কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আইসিটি খাতে ৩০ হাজার দক্ষ মানব সম্পদ গড়ে তোলার কার্যক্রম শুরু

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুক্তরাজ্যভিত্তিক আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ং নামের একটি প্রতিষ্ঠান দেশে আইসিটি খাতে ৩০ হাজার দক্ষ মানব সম্পদ গড়ে তোলার কার্যক্রম শুরু করেছে। লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট এ্যান্ড গবর্নেন্স (এলআইসিটি) প্রকল্প ও আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ং যৌথভাবে প্রশিক্ষণের কাজটি করবে। গত শনিবার এই কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয় রাজধানীর পাঁচ তারকা এক হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. একে আজাদ চৌধুরী। এছাড়া ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ইমরান আহমদ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক এসএম আশরাফুল ইসলাম, আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ংয়ের সরকারী খাত ন্যাশনাল লিডার গৌরভ তানেজা, আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ংয়ের পারফর্মেন্স ইম্প্রুভমেন্ট পার্টনার আনুরাগ মল্লিক ও এলআইসিটি প্রকল্প পরিচালক মোঃ রেজাউল করিম এতে বক্তব্য রাখেন। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, উর্ধতন সরকারী কর্মকর্তা ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এই অনুষ্ঠানে ঘোষণা করা হয় ৩০ হাজারের মধ্যে ১০ হাজার আইটি (তথ্যপ্রযুক্তি) ও সায়েন্স গ্র্যাজুয়েটকে দেয়া হবে ‘টপ আপ আইটি প্রশিক্ষণ।’ বাকি ২০ হাজার উচ্চ মাধ্যমিক ও গ্র্যাজুয়েটকে দেয়া হবে ফাউন্ডেশন স্কিল প্রশিক্ষণ। এ প্রশিক্ষণের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, টপ আপ আইটি প্রশিক্ষণ গ্রহণকারীদের মধ্য থেকে কমপক্ষে ৬০ শতাংশ তরুণ-তরুণীকে দেশ এবং বিদেশের বিভিন্ন আইটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি দেবে আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ং। গত ১৩ জানুয়ারি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট এ্যান্ড গবর্নেন্স (এলআইসিটি) প্রকল্প এবং আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ংয়ের মধ্যে এ প্রশিক্ষণের বিষয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

অনুষ্ঠানে ড. একে আজাদ বলেন, সরকার যখন ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের নিরন্তর প্রচেষ্টা বাস্তবায়নের পথে তখন ৩০ হাজার তরুণ-তরুণীকে বিশ্বমানের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ং। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলরদের তাদের স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণে অংশ নিতে উদ্বুদ্ধ করা এবং এলআইসিটি প্রকল্প ও আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ংকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, দেশের আইটি শিল্পে দক্ষ মানব সম্পদের চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে সরকার মানসম্মত প্রশিক্ষণের ওপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। সে কারণে এলাইসিটি প্রকল্প ৩০ হাজার আইটি পেশাজীবী তৈরিতে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ংকে নিয়োগ দিয়েছে। আমার বিশ্বাস এসব আইটি প্রশিক্ষিত তরুণ-তরুণী পাঁচ বছরে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে এক বিলিয়ন ডলারের রফতানির লক্ষ্যমাত্রা পূরণে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ংয়ের পারফর্মেন্স ইম্প্রুভমেন্ট পার্টনার আনুরাগ মল্লিক বলেন, মানসম্মত প্রশিক্ষণ নিশ্চিত করার জন্য আর্নেস্ট এ্যান্ড ইয়ং যুক্তরাষ্ট্রভিক্তিক শীর্ষ স্থানীয় প্রশিক্ষণদাতা প্রতিষ্ঠান ইনফো প্রো লার্নিংয়ের সঙ্গে যৌথভাবে ৩০ হাজার তরুণ-তরুণীকে প্রশিক্ষণের কর্মসূচী বাস্তবায়ন করবে।

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: