মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

যুদ্ধাপরাধী বিচার ॥ জাপা নেতা সাখাওয়াতের বিরুদ্ধে তদন্তের অগ্রগতি রিপোর্ট দ

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • রাজাকার ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে তৃতীয় সাক্ষীর জবানবন্দী আজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত জামায়াতে ইসলামীর সাবেক সংসদ সদস্য বর্তমানে জাতীয় পার্টির নেতা মাওলানা সাখাওয়াত হোসেনের বিরুদ্ধে এক মাসের মধ্যে তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে পটুয়াখালীর রাজাকার ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের দ্বিতীয় সাক্ষী মোঃ চান মিয়ার জবানবন্দী শেষ করেছে আসামি পক্ষের আইনজীবী। আজ তৃতীয় সাক্ষীর জবানবন্দীর জন্য দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। রবিবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ ও ২ এ আদেশগুলো প্রদান করেছে।

জাতীয় পার্টির নেতা মাওলানা সাখাওয়াত হোসেনের বিরুদ্ধে আগামী এক মাসের মধ্যে তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। প্রসিকিউশন পক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ সময় দেয়া হয়। চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ রবিবার এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক। ট্রাইব্যুনাল একইসঙ্গে মাওলানা সাখাওয়াতের জামিনের আবেদনের শুনানির জন্য ১২ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেছে। এ সময় প্রসিকিউশন পক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর রেজিয়া সুলতানা চমন অন্যদিকে আসামি পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট মইনুল হক।

২২ জানুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের এক আদেশে তদন্ত সংস্থা সেফহোমে সাখওয়াতকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানা গেছে। ২০১৪ সালের ২৯ নবেম্বর সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে রাজধানীর উত্তরখানের মাস্টারপাড়া শাহী মসজিদের কাছে ভাড়া বাসা থেকে সাখাওয়াত হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

২০১২ সালের ১ এপ্রিল সাখাওয়াত হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা তদন্ত করার জন্য নথিভুক্ত হয়। ২০১৩ সালের ১৩ নবেম্বর থেকে তার বিরুদ্ধে তদন্ত করছেন তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক।

ফোরকান মল্লিক ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে অভিযুক্ত পটুয়াখালীর রাজাকার ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের দ্বিতীয় সাক্ষী মোঃ চান মিয়ার জবানবন্দী শেষ করেছে আসামি পক্ষের আইনজীবী। আজ তৃতীয় সাক্ষীর জবানবন্দীর জন্য দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দু’সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম।

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: