কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বরিশালে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে পুত্রকে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ চলমান মামলা থেকে রেহাই পেতে বাদী ও তার নিকট আত্মীয়-স্বজনদের ফাঁসাতে নিজপুত্রকে হত্যা করে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার সকালে জেলার গৌরনদী প্রেসক্লাবে হাজির হয়ে এ অভিযোগ করেন বাবুগঞ্জ উপজেলার ব্রাহ্মণদিয়া গ্রামের প্রায় অর্ধশত নিরীহ গ্রামবাসী। ওই গ্রামের আজিজুল বেপারি, গিয়াস উদ্দিন, কাওসার হোসেন, আলী আকবর, বাবুল বেপারি ও সাইদুল বেপারিসহ অন্যরা অভিযোগ করেন, সম্প্রতি ঘটনা নিয়ে বাবুগঞ্জের ব্রাহ্মণদিয়া গ্রামের মৃত আঃ হক বেপারির পুত্র সাইদুল বেপারি ও তার লোকজনদের ওপর হামলা চালায় একই গ্রামের আব্দুর রব বেপারির পুত্র রুহুল আমীন বেপারি (২৮) ও তার লোকজনে। এ ঘটনায় সাইদুল বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়েরের পর ১৩ দিন কারাভোগ করেন রুহুল আমীন। সম্প্রতি সে কারাগার থেকে বেরিয়ে জানতে পারে তার স্ত্রীকে পরিবারের লোকজন তাড়িয়ে দিয়েছে। এ নিয়ে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে রুহুল আমীনের বাগ্-বিত-ার একপর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, গত ২৬ জানুয়ারি রাতে রুহুল আমীনের সঙ্গে তার স্বজনদের দ্বিতীয় দফা হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে রুহুল আমীনের পিতা রব বেপারি, ভাই রোকন বেপারি, চাচাত ভাই নজরুল ইসলাম, সোহেল বেপারি, ইউনুস বেপারি ও নিকটাত্মীয় রানা চাপরাশী রুহুল আমীনকে বেধম মারধর করেন। এতে রুহুল আমীন জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। স্থানীয় পল্লীচিকিৎসক ডাঃ আনোয়ার হোসেন জানান, ২৭ জানুয়ারি ভোরে তাকে রুহুলের নিকটাত্মীয়-স্বজনরা বাড়িতে নিয়ে যান। বাড়িতে গিয়ে ঘরের মধ্যে শুইয়ে রাখা রুহুল আমীনকে তিনি মৃত হিসেবে পান। পরবর্তীতে তিনি রুহুল আমীনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পরামর্শ দিয়ে চলে যান। গ্রামবাসীর অভিযোগে আরও জানা গেছে, বিষয়টি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত ও প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে তাৎক্ষণিক রুহুলের পরিবারের লোকজন লাশটি বাড়ির সন্নিকটের একটি খড়ের গাদার কাছে ফেলে রেখে পুলিশে খবর দেয়।

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: