রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ইউরো জোনে রাখতে চাই গ্রীসকে

প্রকাশিত : ১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • এথেন্সকেও শর্ত মানতে হবে ॥ ইইউ কমিশনারের ঘোষণা

গ্রীস ইউরো জোনের সদস্য এবং একক মুদ্রাটির ভবিষ্যত গ্রীসের ইউরো পরিত্যাগ না করার ওপর নির্ভর করছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) অর্থনৈতিক ও আর্থিক বিষয়ক কমিশনার এ কথা জানান। ওই কমিশনার পিয়ার মস্কোভিসি বিবিসির হার্ডটক অনুষ্ঠানে বলেন, আমরা গ্রীসকে ইউরো জোন ত্যাগ করা থেকে বিরত রাখতে সবকিছুই করব। তবে তিনি এ কথাও বলেন, গ্রীক সরকারকে আগের প্রতিশ্রুতিগুলোর প্রতি সম্মান দেখাতে হবে। এরমধ্যে গ্রীসের নয়া বামপন্থী অর্থমন্ত্রী বলেছেন, তিনি তার দেশের বেইল আউটের শর্তাদি নিয়ে ‘ত্রিপক্ষীয়’ টিমের সঙ্গে কথা বলবেন না। ইউরোপীয় কমিশন, ইউরোপীয় সেন্ট্রাল ব্যাংক ও আইএমএফ বিশ্বের এ তিনটি প্রতিষ্ঠান গ্রীসের ঋণ পরিচালনা দেখাশোনা করে থাকে। তবে ওই অর্থমন্ত্রী ইয়ানিস ভারোফাকিস শুক্রবার বলেন, তিনি গ্রীসের দেনার কিছু অংশ বাতিল করানোর চেষ্টায় ওই ত্রিপক্ষের কোন মিশনের পরিবর্তে ইউরো জোনের নেতাদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চান। বামপন্থী সিরিজা পার্টি কৃচ্ছ্রনীতিবিরোধী কর্মসূচী পেশ করে গত সপ্তাহান্তের নির্বাচনে জয়ী হয়। এতে গ্রীসের ঋণের অর্ধেক অবলোপন করানো এবং চাকরি, বেতন ও পেনশন ছাটাই করার নীতি পাল্টে দেয়ার অঙ্গীকার করা হয়। খবর বিবিসি ও আলজাজিরা অনলাইনের।

মস্কোভিসি বলেন, আমরা মনে করি ইউরো জোনে গ্রীসের স্থান রয়েছে, ইউরোর গ্রীসকে দরকার এবং গ্রীসেরও ইউরো জোনে থাকা দরকার এবং সে ইউরো জোনে থাকতে চায়। মস্কোভিসি এক সময়ে ফরাসী অর্থমন্ত্রী ছিলেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা মনে করি, গ্রীসের ইউরো ত্যাগ না করা ইউরো জোনের স্থিতিশীলতা এবং ইউরোর বিশ্বাসযোগ্যতার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সেজন্য আমরা গ্রীসের ইউরো ত্যাগ এড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় সবকিছুই করব। কিন্তু কমিশনার বলেন, যদিও ইউরোপকে গত রবিবারের নির্বাচনের পর গ্রীক জনগণের ইচ্ছার প্রতি সম্মান দেখাতে হবে, তথাপি দেশটির পূর্ববর্তী সরকারের দেয়া প্রতিশ্রুতির কথাও বিবেচনায় নিতে হবে। এ নির্বাচনে সিরিজা পার্টি জয়ী হয়।

মস্কোভিসি বলেন, আমরা অবশ্যই এসব ইস্যু ধীরেস্থিরে ও শান্ত পরিবেশে মীমাংসা করব।

নয়া গ্রীক অর্থমন্ত্রী বলেন, তিনি ত্রিপক্ষ ইউরোপীয় কমিশন, ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংক এবং ইন্টারন্যাশনাল মনিটারি ফান্ডের (আইএমএফ) সঙ্গে কাজ করবেন না। তিনি তাদের ‘নষ্টভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত এক কমিটি’ বলে অভিহিত করেন। এর আগে তিনি ইউরো গ্রুপ প্রধান জেরোয়েন ডিজসেলব্লোয়েমের সঙ্গে কথা বলেন। ইয়ানিস ভারোফাকিস বলেন, এর পরিবর্তে তিনি পৃথক পৃথকভাবে তিনপক্ষের সদস্যদের সঙ্গে এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশসমূহের সঙ্গে ‘ফলপ্রসূ’ আলোচনা চাচ্ছেন।

তিনি বিবিসির নিউজনাইট প্রোগ্রামে বলেন, আমরা কার্যকর করা যাবে না এমন কোন কর্মসূচী কার্যকর করার চেষ্টার ভান করতে প্রস্তুত নই। এটি পাঁচ বছর ধরে দৃশ্যত কোন সুবিধা প্রদান করতে ব্যর্থ হচ্ছে।

ইউরো গ্রুপের প্রধান জেরোয়েন ডিজসেলব্লোয়েম বলেন, গ্রীসের সংস্কার প্রতিশ্রুতিতে অবিচল থাকা উচিত।

তিনি বলেন, ইউরো জোনের ভেতর গ্রীসের অর্থনীতির আরও পুনরুদ্ধারে গ্রীস ও ইউরো গ্রুপের পারস্পরিক স্বার্থ রয়েছে। তিনি এথেন্সকে এর বেইল আউট নিয়ে পুনরালোচনার চেষ্টায় একতরফা পদক্ষেপ নেয়ার বিরুদ্ধে সতর্ক করে দেন।

গ্রীসের দেউলিয়াত্ব কেটে ওঠার চেষ্টায় ২৪ হাজার কোটি ইউরোর (২৭ হাজার কোটি ডলার) বেইল আউটের বিনিময়ে কঠোর বাজেট হ্রাস মেনে নেয়। এ নিয়ে ২০১০ সালে ওই তিনপক্ষের সঙ্গে দেশটির মতৈক্য হয়।

ঋণদানের বর্তমান কর্মসূচী ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে। এরপরও ১৮০ কোটি ইউরোর তহবিল রক্ষিত রয়েছে। যদি গ্রীস তিনপক্ষের শর্তাদি পালন করে, তাহলে ওই অর্থ গ্রীসকে দেয়া হতে পারে। মস্কোভিসি আরও বলেন, ইউরোপজুড়ে ইইউবিরোধী দলগুলোর উদ্ভব ইউনিয়নের প্রতি হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে।

প্রকাশিত : ১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০১/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: