আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

হিজবুল্লাহর সঙ্গে সর্বাত্মক যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে ইসরাইল

প্রকাশিত : ৩০ জানুয়ারী ২০১৫

লেবাননী শিয়া দল হিজবুল্লাহর সঙ্গে আরেক সর্বাত্মক যুদ্ধের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছেছে ইসরাইল। এক সেনা বহরের ওপর চালানো এক ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় দুই ইসরাইলী সৈন্য নিহত হওয়ার বদলা নিতে বুধবার ইসরাইল ওই দলটির বিরুদ্ধে বিমান ও স্থল অভিযান শুরু করলে ওই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। খবর এএফপি ও টেলিগ্রাফের

সীমান্ত শহর গাজারে ইসরাইল ও হিজবুল্লাহর মধ্যে গোলা বিনিময়ের ঘটনায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা বাহিনীর এক স্প্যানিশ সৈন্য নিহত হয়। শহরটি ইসরাইল ও লেবাননের মধ্যবর্তী সীমান্তে অবস্থিত। এটি ছিল ২০০৬ সালে লেবাননে সর্বশেষ যুদ্ধ সংগঠিত হওয়ার পর ইসরাইলের উত্তর সীমান্তে উত্তেজনা সবচেয়ে বিপজ্জনক মাত্রায় উঠে যাওয়ার ঘটনা। ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু ক্ষেপণাস্ত্র হামলার জন্য হিজবুল্লাহকে চড়া মাসুল দিতে হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা প্রশমনের উপায় নিয়ে আলোচনা করতে এক জরুরী বৈঠকে মিলিত হয়। দু’পক্ষ ২০০৬ সালে একমাস ধরে লড়াই করেছিল।

বুধবার ইসরাইল দক্ষিণ লেবাননে ‘সমন্বিত বিমান ও স্থল হামলা’ চালিয়ে হিজবুল্লাহর গোলাবর্ষণের জবাব দেয়। ১৮ জানুয়ারি গোলান মালভূমির এক সিরীয় এলাকায় ইসরাইলী হেলিকপ্টারের হামলার দৃশ্যত প্রতিশোধ নিতে হিজবুল্লাহ গোলাবর্ষণ করে। ইসরাইলী হামলায় হিজবুল্লাহর ছয় সিনিয়র সদস্য ও ইরানী বিপ্লবী রক্ষী বাহিনীর এক কমান্ডার নিহত হয়। ইসরাইল জাতিসংঘকে বলেছে, সে আত্মরক্ষার জন্য ‘প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা’ নেবে। জাতিসংঘে নিযুক্ত ইসরাইলী রাষ্ট্রদূত রন প্রোসর নিরাপত্তা পরিষদের কাছে লেখা এক চিঠিতে বলেন, যখন হিজবুল্লাহ ইসরাইলীদের ওপর হামলা চালাবে তখন ইসরাইল নীরবে দাঁড়িয়ে থাকবে না।

প্রকাশিত : ৩০ জানুয়ারী ২০১৫

৩০/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: