কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদী মানুষ সোচ্চার দিনভর

প্রকাশিত : ২৯ জানুয়ারী ২০১৫
সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদী মানুষ সোচ্চার দিনভর
  • জাতিসংঘের আইনানুযায়ী খালেদা মানবতাবিরোধী অপরাধী- তোফায়েল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলের সহিংস রাজনৈতিক কর্মসূচী পরিহারের দাবি জানিয়েছে রিয়েল এস্টেট এ্যান্ড হাউজিং অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব)। বুধবার রাজধানীতে পৃথক-পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত সন্ত্রাসবিরোধী সভা-সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচীতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক, সাংস্কৃতিকসহ পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বলেছেন, পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ হত্যা বন্ধ না করলে জাতিসংঘের রুল অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে মানবতাবিরোধী অপরাধে অপরাধী করা হবে। অপ-রাজনীতি থেকে দেশবাসীকে মুক্তি দেয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তারা। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সন্ত্রাস, নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী জনতার দিনভর ছিল নানা কর্মসূচী।

সহিংস রাজনৈতিক কর্মসূচী পরিহারের দাবি রিহ্যাবের ॥

রিয়েল এস্টেট এ্যান্ড হাউজিং অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রাজনৈতিক সহিংসতা পরিহারের অহ্বান জানিয়ে বলা হয়, আবাসন খাতে দীর্ঘ সময়ের মন্দার পর গত মাসে কিছুটা সুবাতাস লাগার আগেই চরম রাজনৈতিক অস্থিরতা শুরু হয়েছে। ফলে নতুন করে আবাসন খাত আবারও সংকটে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। চলমান হরতাল-অবরোধে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের মতো সহিংস পরিস্থিতির কারণে আবাসন ব্যবসায়ীদের ক্রয়-বিক্রয়, মূল্য আদায় বা আর্থিক লেনদেন সর্বনিম্ন পর্যায়ে পৌঁছেছে। হরতাল অবরোধে আবাসন খাতে প্রতিদিন প্রায় ৩৬ লাখ টাকার ক্ষতি হচ্ছে। গত ৫ জানুয়ারি থেকে ২৭ জানুয়ারি মোট ২৩ দিনে আবাসন খাতে প্রায় ৭৯২ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। রিহ্যাবের অন্তর্ভুক্ত ১২ সদস্য প্রতিষ্ঠানকে প্রতিদিন কমপক্ষে ৩ লক্ষ টাকার ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে, যা দেশের অর্থনীতির জন্য চরম হুমকিস্বরূপ। আমরা দেশের এ চরম সংকটময় অবস্থায় দেশের রাজনৈতিক দলগুলোকে সহিংসতা পরিহার করে দেশে শান্তি আনয়নের অনুরোধ জানাচ্ছি এবং রাজনৈতিক ভাষা পরিবর্তনের অহ্বান জানাচ্ছি।

বুধবার রজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি কনফারেন্স লাউঞ্জে “জীবন ও অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকারক সহিংস রাজনৈতিক কর্মসূচী পরিহারের দাবিতে” আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ সব তথ্য জানান সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, গৃহায়ণ শিল্পের বেসরকারী বিনিয়োগকারিগণ এ খাতে বিপুল পরিমাণ অর্থ বিনোয়গ করে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। অধিকাংশ ডেভেলপারগণ অতি উচ্চ সুদে ব্যাংক ঋণ গ্রহণের মাধ্যমে প্রকল্প গ্রহণ করে, আমরা বর্তমানে ক্রেতাহীন অবস্থায় ক্রমাগতভাবে ব্যাংক ঋণের উচ্চ সুদ পরিশোধ করছি। রিহ্যাবের পক্ষে দাবি জনিয়ে বলা হয়, রিয়েল এস্টেট সেক্টরের চরম দুরাবস্থায় ঋণগ্রহণকারী ডেভেলপার প্রতিষ্ঠানসমূহের সুদ মওকুফসহ ব্যাংক ঋণ দুই বৎসরের জন্য পুনঃতফসিলীকরণ এবং স্বল্প ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর জনসাধারণের জন্য “সিঙ্গেল ডিজিট সুদে রি-ফাইন্যান্সিং পুনঃপ্রচলন” করার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সংগঠনের নেতারা বলেন, রাজনৈতিক ভাষা পরিবর্তন বলতে সহিংসতা পরিহারের কথা বুঝাতে চেয়েছি। বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতির একটি সঠিক সুরাহা হওয়া উচিত। দেশের অর্থনীতির সঙ্গে আমাদের সংগঠন গভীরভাবে জড়িয়ে আছে। আমাদের একটি দায়বদ্ধতা আছে। তাই আমরা সকলকে সহিংসতা পরিহারের আহ্বান জানাই। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি রবিউল হক, প্রেস এ্যান্ড মিডিয়া স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী ভূঁইয়া, সহ-সভাপতি আনোয়ারুজ্জামান প্রমুখ।

আপনাকে মানবতাবিরোধী অপরাধে অপরাধী করা হবে- খালেদাকে তোফায়েল ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এমপি বলেছেন, আপনি যদি পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ হত্যা বন্ধ না করেন তাহলে জাতিসংঘের রুল অনুযায়ী আপনাকে মানবতাবিরোধী অপরাধে অপরাধী করা হবে। বুধবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউয়ে জাতীয় শ্রমিক লীগ আয়োজিত ‘বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার মানুষ পুড়িয়ে-জ্বালাও-পোড়াও ও শিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে’ শ্রমিক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন তিনি। তোফায়েল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সমস্ত কিছু ভুলে গিয়ে আপনার (খালেদা) ছেলের মৃত্যুতে সমবেদনা জানাতে গিয়েছিলেন। কিন্তু আপনি দরজা খুললেন না। মানুষ ভেবেছিল, অবরোধ প্রত্যাহার হবে। কিন্তু আপনি করলেন না। আপনার ছেলের নামাজে জানাজায় গাড়ি নিয়ে মানুষ এসেছে। তাদের জন্য অবরোধ ছিল না। অবরোধ শ্রমিক ও সাধারণ মানুষদের জন্য। খালেদা জিয়াকে তিনি আরও বলেন, অবরোধে যারা নিহত হয়েছেন তাদের মধ্যে ১৮ জনই শ্রমিক। এটা কোন রাজনীতি না। বিশ্বের কেউ জঙ্গী তৎপরতা চালিয়ে দাবি আদায় করতে পারেনি, আপনিও পারবেন না। ৫ জানুয়ারি নির্বাচন বানচাল করতে চেয়েছিলেন। পারেননি, পরাজিত হয়েছেন। এবারও পরাজিত হবেন। হবেন, হবেন, হবেন।

কাদের সিদ্দিকীর টানা অবস্থান ॥ চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে সভাপতি কাদের সিদ্দিকী। তার দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত এ অবস্থান কর্মসূচী চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

অপ-রাজনীতি থেকে দেশবাসীকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান ॥ আগুনে মানুষ পোড়ানোর অপরাজনীতি থেকে দেশবাসীকে মুক্তি দিতে অবিলম্বে সকল দলের অংশগ্রহণের ভিত্তিতে অর্থবহ সংলাপের ডাক দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মাহমুদুর রহমান মান্না।

খালেদা জিয়া আম ও ছালা দুটোই হারিয়েছেন-মায়া ॥ গত নির্বাচনে (৫ জানুয়ারি ২০১৪) অংশগ্রহণ না করে খালেদা জিয়া আম ও ছালা দুটিই হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনামন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। বুধবার রাজধানীর মিরপুর পূরবী সিনেমা হলের সামনে ১৪ দলের হরতালবিরোধী প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন। মায়া বলেন, ২০১৯ সালের নির্বাচনেও যদি তিনি (খালেদা জিয়া) না যান, তবে আম, ছালা ও গাছ তিনটিই হারাবেন। এদিকে চলমান রাজনৈতিক সহিংসতার প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ করেছে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট। এতে অংশ নিয়ে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল বলেন, খালেদা জিয়া বোমাবাজ ও সন্ত্রাসীদের গডমাদার।

প্রকাশিত : ২৯ জানুয়ারী ২০১৫

২৯/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: