রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আস্থা নেই ॥ ফিদেল ক্যাস্ট্রো

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আমার আস্থা নেই, আমি তাদের সঙ্গে কথাও বলিনি। এক চিঠিতে এ কথা বলেছেন কিউবার ৮৮ বছর বয়সী বিপ্লবী আইকন ফিদেল ক্যাস্ট্রো। চিঠিটি সোমবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে পাঠ করে শোনানো হয়। খবর এএফপির

চিঠিতে বলা হয়, এটি শান্তিপূর্ণভাবে দু’দেশের মধ্যকার দ্বন্দ্ব সমাধানের বিষয়টি বাতিল করে দিচ্ছে না। এর এক সপ্তাহ আগে হাভানায় যুক্তরাষ্ট্র ও কমিউনিস্ট কিউবার মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার লক্ষ্যে দু’দেশের প্রতিনিধিদের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় ঐতিহাসিক আলোচনা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও কিউবার প্রেসিডেন্ট রাউল ক্যাস্ট্রো ১৭ ডিসেম্বর ঘোষণা করেন, স্নায়ুযুদ্ধকালীন দুই প্রতিদ্বন্দ্বী তাদের মধ্যকার সম্পর্ক স্বাভাবিক করার জন্য কাজ করে যাবে। ১৯৬১ সালে দু’দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়। পোপ ফ্রান্সিস এ আলোচনার মধ্যস্থতায় প্রধান ভূমিকা পালন করেছেন। ওয়াশিংটনে কয়েকজন কিউবান আমেরিকান আইন প্রণেতা ওবামার সমালোচনা করে বলেছেন, কিউবায় মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার প্রতিশ্রুতি ছাড়া অনেক ছাড় দিয়েছে প্রশাসন। তারপরও অনেক পর্যাবেক্ষক বেশকিছু পরিবর্তন দেখে বিমূঢ় হয়ে গেছেন যে, ১৯৫৯-এর বিপ্লবী এই নেতা এ দ্বন্দ্ব অবসানের ব্যাপারে প্রকাশ্যে মন্তব্য করেননি এবং তার ভাই রাউল (৮৩) এ পুরনো শত্রুর সঙ্গে সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাচ্ছেন।

হাভানার বিরুদ্ধে আরোপিত মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য কংগ্রেসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ওবামা। তিনি এখন কিছুটা স্বাভাবিক করার জন্য এবং বাণিজ্যের ওপর কড়াকড়ি শিথিলের জন্য তার নির্বাহী ক্ষমতা প্রয়োগ করেছেন। কিউবাকে সন্ত্রাসী তালিকায় অব্যাহত রাখা হবে কিনা, এ বিষয়ে পর্যালোচনার জন্য তিনি ছয় মাস সময় দিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে।

ফিদেল ক্যাস্ট্রো ২০০৬-এ স্বাস্থ্যগত কারণে ক্ষমতা ছেড়ে দেন। কিউবা আমেরিকার একমাত্র একদলীয় কমিউনিস্ট শাসিত দেশ।

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫

২৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: