কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কক্সবাজারে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন, ধসে পড়ার আশঙ্কা

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫

এইচএম এরশাদ, কক্সবাজার ॥ প্রয়োজনীয় সংস্কারের অভাবে কক্সবাজার শহরের প্রাণকেন্দ্র বাজারঘাটা প্রধান সড়ক সংলগ্ন শত বছরের পুরনো একটি ভবন ঝুঁকিপূর্ণ এবং ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। যে কোন মুহূর্তে ভবনটি ধসে প্রাণহানির আশঙ্কা করছে সচেতন মহল। ওই ভবনের নিচে রয়েছে ১৫টি দোকান। ব্যবসায়ীরা বিকিকিনির খাতিরে তাদের ব্যবসা কার্যক্রম চালিয়ে গেলেও অনেকের মনে সর্বদা আতঙ্ক লেগেই রয়েছে বলে জানা গেছে। শফি ডাক্তারের বিল্ডিং নামের এ ভবনটির পাশ দিয়ে পথচারীরা হেঁটে যেতেও ভয় পায়। যে কোন সময় ধসে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনায় মানবিক বিপর্যয় ঘটে যাওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করছে স্থানীয়রা। মালিক পক্ষ প্রশাসনের কাছে আবেদন জানালেও জরাজীর্ণ ভবনটির ব্যাপারে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কোন ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়নি এ পর্যন্ত। স্থানীয়দের মতে-মানবিক কারণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এগিয়ে আসা অত্যন্ত জরুরী।

সরেজমিনে দেখা যায়, শহরের বাজারঘাটার প্রধান সড়কে মৃত শফি ডাক্তারের বিল্ডিং নামে পরিচিত ভবনটি সংস্কারের অভাবে ছাদ, পিলার ও চারপাশের দেয়ালের আস্তর খসে পড়ে বিভিন্ন স্থানে দেখা দিয়েছে অসংখ্য ফাটল। শুধু তাই নয়, ভবনটির বিভিন্ন স্থানে পিলার এবং অন্যান্য অবকাঠামো ভেঙ্গে ঝুলে রয়েছে। বিভিন্ন স্থানে অনায়াসে ভেঙ্গে পড়ছে। ভবনের নিচে যে সব ব্যবসায়ী রয়েছে, তারাও ব্যবসা করে যাচ্ছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। প্রধান সড়ক লাগোয়া এলাকায় এই ঝুঁকিপূর্ণ ভবনটি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নজরে পড়ছে প্রতিনিয়ত। তার পরও এ ব্যাপারে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ভবনটির মালিক সূত্রে জানা গেছে, ১৯৪০ সালের দিকে এই ভবনটি নির্মাণ করা হয়। নির্মাণ হওয়ার পর থেকে কোন ধরনের সংস্কারের ছোঁয়া পায়নি। বর্তমানে ভবনটি সংস্কার করতে চাইলেও ভাড়াটিয়ারা ভবন ছেড়ে দিচ্ছে না।

ড. সাইদুল ইসলাম পরমাণু শক্তি কমিশনের সদস্য নিযুক্ত

বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এবং ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজি (এনআইবি), সাভারের মহাপরিচালক ড. মোঃ সাইদুল ইসলামকে ১৩ জানুয়ারি এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের সদস্য (জীববিজ্ঞান) পদে নিয়োগ প্রদান করেন। ড. মোঃ সাইদুল ইসলাম ১৯৫৬ সালের ২৫ ডিসেম্বর নাটোর জেলার সিংড়া থানার পাছতিরাইল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি স্থানীয় চৌগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১৯৭২ সালে মাধ্যমিক এবং ১৯৭৪ সালে বিল চলন শহীদ সামছুজ্জোহা কলেজ হতে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। ড. ইসলাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৭৯ সারে প্রাণিবিদ্যায় সম্মান ও ১৯৮২ সালে কীটতত্ত্বে স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হন। তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয় হতে ১৯৯৪ সালে বিকিরণ কীটতত্ত্বে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন। -বিজ্ঞপ্তি।

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী ২০১৫

২৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: