কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

’১৯ সালেই মেট্রো রেল দিয়ে চলাচল করা যাবে

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫
  • সংসদে ও. কাদের

সংসদ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর যানজট নিরসনে নির্মাণাধীন মেট্রোরেল প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০২৪ সালে। তবে কাজের অগ্রগতি দেখে নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার সময় ৫ বছর এগিয়ে এনেছে। তাই আগামী ২০১৯ সালে রাজধানীবাসী মেট্রোরেল দিয়ে চলাচল করতে পারবেন।

রবিবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংসদ সদস্য নুরজাহান বেগমের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ ঘোষণা দেন। মন্ত্রী জানান, ইতোমধ্যে মেট্রোরেলের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ শুরু হয়েছে। এক প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২২ হাজার কোটি টাকা। প্রকল্প ব্যয়ের মধ্যে ১৬ হাজার কোটি টাকার যোগান দেবে বিদেশী সংস্থা জাইকা। তারা আমাদের কাজের অগ্রগতি দেখে তারা নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার সময় ৫ বছর এগিয়ে এনেছে। তিনি বলেন, এ বছরই ৮টি টেন্ডার হবে। ২০১৬ সালের একেবারে প্রথম দিকেই এ প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। এর পরবর্তী তিন বছর এ প্রকল্পের কাজ পুরোভাবে চলবে। ২০১৯ সালে উন্মুক্ত করা হবে বহুল আকাক্সিক্ষত মেট্রোরেল।

জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য এ কে এম মাঈদুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান। বিআরটিসিতে গত ৬ বছরে ২৯০ কোটি ২৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯৫৮টি বাস ক্রয় করা হয়েছে। এর মধ্যে চীন থেকে ২৭৫টি, কোরিয়া থেকে ২৫৫টি এবং ভারত থেকে ৪২৮টি বাস ক্রয় করা হয়। ক্রয় করা ৯৫৮টি বাসের মধ্যে বর্তমানে ১৫৮টি বাস অকেজো অবস্থায় আছে। মেরামতযোগ্য বাসগুলো মেরামত করে পুনরায় চালু করা হয়ে থাকে। বিআরটিএতে শর্ষের মধ্যে আগে ভূত ছিল। সরকারের শক্ত পদক্ষেপের ফলে সেখানে দুর্নীতিসহ ওইসব ভূত ৫০ ভাগ কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে।

আগামী জুনের মধ্যে জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ চার লেনের মহাসড়ক যানবাহন চলাচল চালু হবে জানিয়ে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, জানুয়ারির মধ্যে কাজের অগ্রগতি সন্তোষজনক না হয়, তবে প্রকল্পের কাজটি সেনাবাহিনীকে দেয়া হবে। তিনি দাবি করেন, সড়ক ও জনপদ বিভাগের আওতাধীন দেশের কোন সড়ক বা মহাসড়কের বেহাল দশা নেই। এলজিআরডি নাকি সড়ক ও জনপদের রাস্তা এটা না জেনে অনেকেই ঢালাও মন্তব্য করেন, যা আদৌ সত্য নয়।

সরকারী দলের গোলাম দস্তগীর গাজীর প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের জানান, দেশের মধ্যে চলাচলকারী বিভিন্ন পরিবহনের ভাড়া নির্ধারণ ও নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে সরকার ইতোমধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এ লক্ষ্যে শীঘ্রই বিভিন্ন বাস টার্মিনালে ডিজিটাল ব্যানার বা বিল বোর্ডের মাধ্যমে বাসের ভাড়ার তালিকা প্রচার করা হবে। প্রতিটি বাস টার্মিনালে ডিজিটাল ব্যানার বা বিল বোর্ডের মাধ্যমে দূরত্ব ভেদে ভাড়ার তালিকা প্রচার করা হবে।

নুরজাহান বেগমের অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, রাজধানীর যানজটমুক্ত করতে নতুন ফ্লাইওভার নির্মাণের পরিকল্পনা আছে। এরই অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে সম্ভাব্য সমীক্ষা অনুযায়ী ঢাকার মহাখালী ফ্লাইওভার থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সংলগ্ন এলাকায় ১৪০ মিটার আন্ডারপাস ও ৪৪০ মিটার সার্ভিস রোড এবং ৫৮০ মিটার র‌্যাম্পসহ ৪৯০ মিটার ফ্লাইওভার নির্মাণের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এছাড়া হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুতুবখালি পর্যন্ত মোট ৪৬ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার দীর্ঘ ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে, যা ২০১৮ সালের মধ্যে শেষ হবে।

পাঁচ বছরে নারী ধর্ষণের মামলা প্রায় ১৭ হাজার- প্রতিমন্ত্রী চুমকি ॥ ন্যাপের সংসদ সদস্য মিসেস আমিনা আহমেদের প্রশ্নের জবাবে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি জানান, পুলিশ সদর দফতরের তথ্য অনুযায়ী দেশে পাঁচ বছরে নারী নির্যাতন মামলার সংখ্যা ২ লাখ ৫৮ হাজার ৫২টি এবং নারী ধর্ষণের ঘটনায় মামলার সংখ্যা ১৬ হাজার ৭৭৪টি।

ঢাকা-চট্টগ্রামে হাইস্পিড বুলেট ট্রেন চালু হবে- রেলমন্ত্রী ॥ সরকারী দলের সংসদ সদস্য এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক সংসদে জানান, বাংলাদেশ রেলওয়ের ঢাকা চট্টগ্রাম হতে চট্টগ্রাম পর্যন্ত রেলপথের দূরত্ব কমানো এবং হাইস্পিড বুলেট ট্রেন চালুর জন্য ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-দাউদকান্দি-কুমিল্লা/লাকসাম হয়ে চট্টগ্রাম পর্যন্ত স্ট্যান্ডার্ড গেজ দ্বৈত রেলপথ নির্মাণের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। রেলপথটি নির্মিত হলে ঢাকা হতে চট্টগ্রামের দূরত্ব প্রায় ৯০ কিলোমিটার হ্রাস পাবে এবং প্রায় ৩ ঘণ্টার মধ্যে যাত্রী সাধারণ ঢাকা হতে চট্টগ্রাম পৌঁছাতে পারবে।

তিনি জানান, উল্লেখিত প্রকল্পটি জি টু জি ভিত্তিতে বাস্তবায়নের জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ে একটি চীনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। প্রকল্পটির জন্য চীন সরকারের অর্থায়নের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদন এবং অর্থায়ন নিশ্চিত হওয়ার পর প্রকল্পের কাজ শুরু করা হবে।

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫

২৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: