মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ত্বকের বন্ধু-পানি মেরীনা চৌধুরী

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫
ত্বকের বন্ধু-পানি মেরীনা চৌধুরী

ক্রিম, লোশন, সর, তেল যতই মাখুন না কেন আপনার ত্বকের ওই জৌলুসের বা শরীরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির মূলে রয়েছে দুই অক্ষরের একটি শব্দ : পানি। পানির বিকল্প নেই। শুধু পানি চর্চার মাধ্যমে কী করে রূপ ধরে রাখবেন জেনে নিন।

মনে রাখবেন ত্বকের ২০ শতাংশ পানি। আর এই পানির মাত্রা ঠিকঠাক রাখতে পারলেই ত্বক হবে উজ্জ্বল, মসৃণ সুন্দর।

শুষ্ক আবহাওয়া, রোদ, এয়ারকন্ডিশনির প্লাস্ট ত্বকের আর্দ্রতার শত্রু। এক্ষেত্রে ত্বকের এই সব শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই করতে ব্যবহার করা হয় ক্রিম, লোশন, ময়েশ্চারাইজার ইত্যাদি।

পানি বেস ময়েশ্চারাইজার ত্বক ও আবহাওয়ার মধ্যে একটা আস্তরণ তৈরি করে, যা ত্বকের আর্দ্রতা রক্ষা করতে সাহায্য করে। ত্বকের পরিচর্যা হিসেবে পানি খাওয়ার কোন বিকল্প নেই। যত পানি খাবেন, ততই দেখবেন ত্বক আরও উজ্জ্বল হবে। কেন? কারণ পানি ত্বকের অন্তর্বর্তী বিষ বা টক্সিন, যা ত্বকের রূপ হরণ করে তা ধুয়ে ফেলতে পারে। দিনে অন্তত আট গ্লাস পানি খাবেন।

ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করতে স্টিমির বা ভাপ নিতে পারেন। তবে স্টিম নেয়ার পর ঠা-া পানিতে মুখ ধুয়ে-মুছে, অল্প ময়েশ্চারাইজার অবশ্যই দেবেন।

ত্বকের পক্ষে অন্যতম শ্রেষ্ঠ পানি চর্চা হলো সমুদ্র-স্নান। সমুদ্রের নোনা পানি ত্বকের পক্ষে ভাল। তবে সেই পানিতে গোসল করে রোদে বসলে ত্বকের রং পুড়ে যেতে পারে। তাই বাড়ি বসেই নোনা পানিতে গোসল করতে পারেন। কী করে?

প্রথমে অল্প লবণ নিয়ে সেটা সারা গায়ে আলতো করে মাখুন। এর জন্য সারা গায়ে তেল মেখে, তারপর লবণ লাগানো উচিত। লাগানো হয়ে গেলে অল্প গরম পানিতে গোসল করে নিন। গোসল করার সময় একটা নরম গামছা বা কাপড় দিয়ে সারা শরীর আলতো করে ঘষে নেবেন।

পানির ঝাপটা ও

তার উপকারিতা

পানির ঝাপটা কখনওই জোরে দেবেন না। তবে হাল্কা করে শরীরের ভিন্ন ভিন্ন অংশে পানির ঝাপটা দিলে ত্বক থাকে ভাল, আপনিও হয়ে ওঠেন তরতাজা।

১. যারা প্লেনে খুব বেশি যাতায়াত করেন তাঁরা প্রতি আধঘণ্টা অন্তর প্লেনে মুখ ধুয়ে নেবেন।

২. নোনা সামুদ্রিক পানিতে গোসল করার পর, রোদে পানি শুকিয়ে গেলে, ত্বকে শুষ্ক ভাব আসতেই পারে। সেক্ষেত্রে নোনা পানির উপকারিতা পুরোপুরি গ্রহণ করতে হলে ঠা-া পানিতে গোসল অবশ্যই করবেন।

৩.বেড়াতে গিয়ে ঘুরতে ঘুরতে পা ক্লান্ত হয়ে গেলে পানি দিয়ে পা ধুয়ে নিন। শরীরের ক্লান্তি দূর করতে মুখ ও ঘাড়ে পানি দিন।

৪.সান্ধ্য প্রসাধনের পর মুখে পানির আলতো স্প্রে দিলে দেখবেন প্রসাধন দীর্ঘস্থায়ী হয়।

ছবি: আরিফ আহমেদ

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫

২৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: