মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চেলসি, ম্যানসিটির অবিশ্বাস্য বিদায়

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অঘটনের রাতে ইংলিশ এফএ কাপ ফুটবল থেকে বিদায় নিয়েছে দুই পরাশক্তি চেলসি ও ম্যানচেস্টার সিটি। ঘরের মাঠে দল দুটির বাজে হারে বিস্মিত হয়েছেন অনেকে। শনিবার রাতে স্টামফোর্ড ব্রিজে দুই গোলে এগিয়ে যেয়েও চেলসি ৪-২ গোলে হার মানে তৃতীয় সারির দল ব্র্যাডফোর্ড সিটির কাছে। ইতিহাদ স্টেডিয়ামে মিডলসবার্গের কাছে ২-০ গোলে পরাজয়ের স্বাদ পায় প্রিমিয়ার লীগের চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটি।

ফলে চতুর্থ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয়েছে সিটি ও চেলসিকে। আর অসাধারণ জয়ে পঞ্চম পর্বে উঠে গেছে ব্র্যাডফোর্ড ও মিডলসবার্গ। অঘটনের রাতে জয় পায়নি লিভারপুলও। নিজেদের মাঠ এ্যানফিল্ডে দ্বিতীয় সারির দল বোল্টন ওয়ান্ডারার্সের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে দ্য রেডসরা। এর আগে শুক্রবার রাতে ক্যামব্রিজ ইউনাইটেডের সঙ্গে গোলবিহীন ড্র করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও। ড্র করায় ম্যানইউ ও লিভারপুলকে খেলতে হবে রিপ্লে ম্যাচ। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে রীতিমতো অপ্রতিরোধ্য চেলসি। এখন পর্যন্ত তালিকার শীর্ষে আছে দলটি। এফএ কাপের চতুর্থ পর্বের শুরুটাও হয়েছিল দুর্দান্ত। গ্যারি কাহিল ও রামিরেস গোল করলে মনে হচ্ছিল সহজ জয় পেতে যাচ্ছে দ্য ব্লুজরা। তবে সব ধারণা ভুল প্রমাণ করে অঘটনের শিকার হতে হয়েছে জোশে মরিনহোর দলকে। ম্যাচের ২১ মিনিটে অস্কারের পাস থেকে চেলসিকে এগিয়ে নেন কাহিল। ৩৮ মিনিটে মোহাম্মদ সালাহ’র সহযোগিতায় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রামিরেস। তবে এর তিন মিনিট পরই সফরকারীদের হয়ে ব্যবধান কমান জোনাখন স্টিয়েড। ২-১ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় স্বাগতিক চেলসি। বিরতি থেকে ফিরে চেলসি বেশ কয়েকবার আক্রমণ চালালেও গোল আদায় করতে পারেনি। উল্টো ম্যাচের ৭৫ মিনিটে ফিলিপ মোরিস গোল করলে খেলায় সমতা আনে ব্র্যাডফোর্ড। ৮২ মিনিটে স্টিয়েডের পাস থেকে এ্যান্ড্রু হালিডে গোল করলে ৩-২ গোলে এগিয়ে যায় অতিথিরা। ম্যাচের যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে (৯৪ মিনিট) চেলসির কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন মার্ক ইয়েটেস। ফলে ৪-২ গোলের অসাধারণ জয় পায় ব্র্যাডফোর্ড সিটি। এ জয়ে ১৮ বছর পর এফএ কাপের পঞ্চম পর্বে উঠল দলটি। আর নিজেদের মাঠে ভরাডুবিতে চলতি মৌসুমে চার শিরোপা জয়ের আশা জলাঞ্জলি হয়েছে চেলসির। দলের বাজে হারে হতাশা ব্যক্ত করেছেন চেলসি কোচ জোশে মরিনহো। এই হারকে তিনি জঘন্যতম হিসেবে উল্লেখ করেছেন। ইতিহাদ স্টেডিয়ামে বিদায় নেয়া ম্যাচে ম্যানসিটি দুটি গোলই হজম করে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে। বিজয়ী মিডলসবার্গের হয়ে গোল দুটি করেন প্যাটট্রিক ব্যামফোর্ড ও এনরিকে গার্সিয়া মার্টিনেস। গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর ফার্নান্ডোর ভুলের সুযোগ নিয়ে ম্যাচের ৫৩ মিনিটে অতিথি মিডলসবার্গেকে এগিয়ে দেন ব্যামফোর্ড। পোস্টের খুব কাছাকাছি থেকে লক্ষ্যভেদ করেন ইংলিশ এই ফরোয়ার্ড। বিজয়ী দলের ব্যবধান দ্বিগুণ করা গোলটিতেও অবদান রাখেন ব্যামফোর্ড। চেলসি থেকে ধারে খেলতে আসা এই তরুণের বাড়ানো বল থেকে যোগ করা সময়ে (৯৩ মিনিট) ডান পায়ের শটে ব্যবধান ২-০ করেন স্পেনের মার্টিনেস। আরেক ম্যাচে অঘটনের রাতে জিততে পারেনি লিভারপুলও। বোল্টন ওয়ান্ডারার্সের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে ব্রেন্ডন রজার্সের দল। এ্যানফিল্ডে বল দখলের লড়াইয়ে লিভারপুল এগিয়ে থাকলেও সাফল্য মেলেনি। দুই অর্ধেই বেশকিছু সহজ সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি স্বাগতিকদের রাহিম স্টার্লিং, স্টিভেন জেরার্ডের মতো তারকারা। আসরের পঞ্চম পর্বে যেতে হলে প্রতিপক্ষের মাঠে ফিরতি ম্যাচে জিততে হবে লিভারপুলকে।

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫

২৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: