আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

শীতকালেই কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই। তবে নবেম্বর-ডিসেম্বরেই কাতারে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) প্রধান শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম আল খলিফা। জুন-জুলাইয়ে মধ্যপ্রাচ্যে প্রচ- গরম দেখা দেয়। আর সে কথা বিবেচনা করেই দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বকাপের সময় পরিবর্তন নিয়ে বিশ্বজুড়ে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনার।

ফিফার পক্ষ থেকে ২০২২ সালের বিশ্বকাপের সম্ভাব্য তারিখ চূড়ান্ত করার যে টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে তার প্রধানের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম আল খলিফাকে। আর শুক্রবার সিডনিতে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে এএফসি প্রধান স্বীকার করেছেন যে, ইতোমধ্যেই এ নিয়ে কাজ অনেকদূর এগিয়ে গেছে। ২০২২ শীতকালীন অলিম্পিকের বিরুদ্ধে যাওয়ার কোন প্রশ্নই আসে না। এশিয়ান কাপ উপলক্ষে অস্ট্রেলিয়া সফর করেন শেখ সালমান। সেখানে তিনি আরও বলেন, ‘কাতারের আবহাওয়ার কথা বিবেচনা করেই নবেম্বর-ডিসেম্বরের কথা চিন্তা করা হচ্ছে। কারণ এখানে একটি বিষয় নিশ্চিত যে জুন-জুলাইয়ে সেখানে খেলা কোনভাবেই সম্ভব নয়। শীতের সময়টা বিশ্বকাপের জন্য সবার কাছেই উপযুক্ত বলে টাস্কফোর্স মতো প্রকাশ করেছে।’ আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সভাপতি টমাস বাখ এর আগে আশা প্রকাশ করেই বলেছিলেন, ফিফা সভাপতি সেপ ব্লাটার আশ্বস্ত করেছেন বিশ্বকাপের সঙ্গে শীতকালীন অলিম্পিকের সময়ের কোন জটিলতা হবে না। গরমের সময় কাতারের তাপমাত্রা প্রায় ৫০ ডিগ্রী সেলসিয়াসে পৌঁছায়। বিশ্বকাপে যেহেতু বেশিরভাগই ইউরোপিয়ান দল খেলতে আসে, এই অবস্থায় তাদের পক্ষে খেলা কোনভাবেই সম্ভব নয়। স্বাস্থ্যগত দিকটিও এখানে প্রধান বিবেচ্য বিষয়। ইউরোপিয়ান ক্লাবগুলোর অনুরোধে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা শীতের পরপরই বসন্ত মৌসুমে আয়োজনের বিষয়টিও বিবেচনা করছে। ব্লাটার এবং ফিফা সেক্রেটারি জেনারেল জেরম ভালকে নবেম্বর-ডিসেম্বরে বিশ্বকাপ আয়োজনের পক্ষে মত দিলেও উয়েফা সভাপতি মিশেল প্লাতিনি অবশ্য তার বিরোধিতা করছেন। মূলত উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগের কারণেই জানুয়ারি মাসে আয়োজনের পক্ষে মত দিয়েছেন তিনি।

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫

২৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: