মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

জনপ্রিয় লেখক হতে হলে

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫
জনপ্রিয় লেখক হতে হলে

লেখালেখির জগতেই জনপ্রিয়তার সিঁড়ি খুব কম লেখকের জন্য বরাদ্দ। আপনি ভালো লিখলেই যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠবেন, কিংবা জুতার তলা ক্ষয় করে ফেললেই যে প্রকাশকরা আপনাকে সাদরে বুকে টেনে নেবেন, এর কোন নিশ্চয়তা নেই। আবার বেশি বই প্রকাশ হলেই যে আপনি ভালো লেখক বা জনপ্রিয় লেখক হয়ে ওঠবেন সে নিশ্চয়তাও কিন্তু কেউ দিতে পারে না। এই যখন অবস্থা, তখন তীর্থের কাক হওয়া ছাড়া উপায় কী? তবে উপায় আছে, আর তা বাতলেও দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের স্টোনি বুক ইউনিভার্সিটির গবেষকরা।

গবেষকরা বলেছেন, জনপ্রিয় লেখকগণ সাধারণত মানুষের আবেগকে চিহ্নিত করতে পারেন এমন শব্দ তাঁদের বইয়ে বেশি বেশি উল্লেখ করেন। এ ক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছে ‘ভালোবাসা’, ‘চাওয়া’, ‘প্রতিজ্ঞা করা’, ‘কান্না’, ‘উল্লাস’ ইত্যাদি। আবার পাঠককে চিন্তার খোরাক দেওয়া বিভিন্ন শব্দ যেমন- ‘নির্দিষ্ট করা’ বা ‘স্মরণ করা’ জাতীয় শব্দগুলোও পাঠককে আকৃষ্ট করে।

গবেষকদের মতে, প্রায় ৪০ হাজার বইয়ের নাম এবং জনপ্রিয়তা বিবেচনা করে গবেষণাটি করা হয়েছে। বইগুলোর জনপ্রিয়তা মাপা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেসবের ডাউনলোড সংখ্যা এবং আমাজন ডটকমের বই বিক্রির তালিকা থেকে। গবেষকরা দেখেছেন, যেসব বইয়ের নামে বেশি পরিমাণ অব্যয় যেমন- এবং, ও, অথবা, কিন্তু থাকে সেসব বইয়ের কাটতি বেশি। তবে বইয়ে বেশি বেশি বাগধারা ব্যবহারে নিষেধ করেছেন তাঁরা। দেখা গেছে, এসব বাগধারা পাঠকের মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি করে। ও হ্যাঁ, গবেষণাটা হয়েছে শুধু ইংরেজি ভাষাভাষী লেখকদের জন্য। বাংলা সাহিত্যে জনপ্রিয় হওয়ার জন্য এই তরিকাই ব্যবহার করতে হবে, সে কথা কিন্তু গবেষকরা বলেননি।

-সায়েন্স ডেইলি অবলম্বনে

ইব্রাহিম নোমান

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী ২০১৫

২৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: