আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দেয়ার পুরস্কার ঘোষণা র‌্যাবের

প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ পেট্র্রোলবোমাসহ অন্য নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দেয়ার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেছে পুলিশ ও র‌্যাব। এ সব সন্ত্রাসীর তথ্য পাওয়া মাত্রই পরিশোধ করা হবে নগদ টাকা। তথ্য দাতাদের ব্যাপারে কঠোর গোপনীয়তাও রক্ষা করা হবে। র‌্যাব ও পুলিশ শনিবার এ বিষয়ে পৃথক পৃথক ঘোষণা দেয়।

এ দিন সকালে র‌্যাব সদর দফতর রাজধানীসহ দেশব্যাপী পেট্রোলবোমা, ককটেল ও আগুন দিয়ে নাশকতাকারীদের ধরার জন্য ৮ ক্যাটাগরির পুরস্কার ঘোষণা করেন র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ।

এরপরই দুপুরে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় শুক্রবার রাতে যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোলবোমা হামলাকারীদের ধরিয়ে দিলে পাঁচ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছে পুলিশ। পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) জালাল উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

এ দিকে ‘মা কাঁদছে, জ্বলছে দেশ, ঘুরে দাঁড়াও বাংলাদেশ’Ñএমন সেøাগান নিয়েই নাশকতাকারীদের সমূলে প্রতিহত করে ঘুরে দাঁড়াতে চায় র‌্যাব। কিছুতেই নাশকতাকারীদের বিন্দুুমাত্র ছাড় না দেয়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন- চলমান সহিংস পরিস্থিতি যে কোন মূল্যে নিয়ন্ত্রণে রাখা হবে। পেট্রোলবোমা দিয়ে মানুষ হত্যা করাকে কিছুতেই রাজনীতি বলা যাবে না। এটা ফৌজদারি অপরাধ। র‌্যাব সে জন্যই নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দেয়ার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেছে। এ সব ঘটনা রাজনৈতিক কি না-সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘আমি এ প্রশ্নের উত্তর দেব না। কিন্তু বোমা মারা কি রাজনৈতিক কাজ? এটি ফৌজদারি অপরাধ। প্রচলিত আইন এগুলো সমর্থন করে না।

র‌্যাব মহাপরিচালক দাবি করেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পদক্ষেপ ও জনগণের সহায়তার ফলে এসব ঘটনা শুরুর তুলনায় কমেছে। শনিবার র‌্যাব সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব তথ্য প্রকাশ করা হয়। এ সময় বোমাবাজ নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দেয়ার জন্য আট ক্যাটাগরিতে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়।

র‌্যাব মহাপরিচালক এ সময় রাজধানীসহ সারাদেশে নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে সাধারণ জনগণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেন, নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দিলে বা তাদের সম্পর্কে নির্দিষ্ট তথ্য দিলে তথ্যদানকারীকে ১০ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত পুরস্কার দেয়া হবে। ককটেল নিক্ষেপকারীর সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিলে ১০ হাজার টাকা, গাড়িতে বোমা, অগ্নিসংযোগ ও ভাংচুরের ছবি ব্যক্তিগত মোবাইল, ক্যামেরাতে ভিডিওচিত্র ধারণ করে র‌্যাবকে সরবরাহ করলে ১০ হাজার টাকা, পেট্রোলবোমা নিক্ষেপকারীর সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিলে ২০ হাজার টাকা, ককটেল নিক্ষেপকারীকে হাতেনাতে গ্রেফতারে সাহায্য করলে ২৫ হাজার টাকা পুরস্কার দেয়া হবে।

এ ছাড়া টিভি চ্যানেলে দেখানো বোমা, পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ ও যানবাহন ভাংচুরকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে সাহায্য করলে ২৫ হাজার টাকা, ককটেল নিক্ষেপের পরিকল্পনাকারী, সংগঠকদের সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিলে ৫০ হাজার টাকা, পেট্রোলবোমা নিক্ষেপকারীদেরকে হাতেনাতে গ্রেফতারে সাহায্য করলে ১ লাখ টাকা ও পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের পরিকল্পনাকারী, সংগঠকদের সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিলে ১ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হবে।

পুরস্কার ঘোষণার ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে এসব কর্মকা- যাঁরা করছেন তাদের বিরুদ্ধে বৃহৎ ঐক্যের প্রয়োজন রয়েছে। একই সঙ্গে সামাজিক অংশগ্রহণও জরুরী। যারা র‌্যাবকে সহায়তা করবে, তাদের পরিচয় গোপন রাখা হবে। র‌্যাবের ডিজি জানান, ৫ জানুয়ারির পর থেকে একটি গোষ্ঠী দেশব্যাপী নাশকতা চালিয়ে যাচ্ছে। এদের অর্থায়ন করছে সংঘবদ্ধ একটি গ্রুপ। আমরা চাই না আর কোনো মানুষ এ সব সন্ত্রাসীদের হাতে প্রাণ হারাক।

প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারী ২০১৫

২৫/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: