মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বিবিসির গণতন্ত্র দিবস

প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারী ২০১৫
  • ইউরোপে রাজনৈতিক ভূমিকম্প একে দিয়েছে আলাদা গুরুত্ব

বিবিসি মঙ্গলবার গণতন্ত্র দিবস পালন করেছে। বিবিসি রেডিও, টিভি ও অনলাইনজুড়ে দিবসটি পালিত হয়। এমন এক সময় এ দিবস পালন করা হলো যখন ইউরোপজুড়ে চলছে রাজনৈতিক ভূমিকম্প। খবর বিবিসি অনলাইনের

চলতি বছর লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টারে প্রথম পার্লামেন্ট নির্বাচনের ৭৫০তম বার্ষিকী উপলক্ষে গণতন্ত্র দিবস হিসেবে পালন করতে বিবিসি মঙ্গলবার (২০ জানুয়ারি) দিনটিকে বেছে নেয়। এছাড়া এ বছর ম্যাগনাকার্টারও ৮শ’ বছর পূর্ণ হচ্ছে। বিশ্বব্যাপী গণতন্ত্রায়নের ক্ষেত্রে ম্যাগনাকার্টাকে একটি মাইলফলক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বিবিসির ডেমোক্র্যাসি ডে উদযাপনের উদ্যোক্তা ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (ইআইইউ) গবেষণায় বলা হয়েছে, চলতি বছর ইউরোপে আরও রাজনৈতিক ভূমিকম্প হবে। রাজনৈতিক ভূমিকম্প বলতে এখানে মূলধারার দলগুলোর বাইরে নতুন রাজনৈতিক শক্তির উত্থানকে বোঝানো হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এ বছর ইউরোপের কিছু দেশে সেরকম কিছু ঘটতে পারে। ভোটারদের প্রয়োজন মূল্যায়ন করতে ব্যর্থতাই মূলধারার রাজনৈতিক দলগুলোর পিছিয়ে পড়ার কারণ বলে গবেষকরা জানিয়েছেন। এ বছর মে’তে যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচন হচ্ছে। যুক্তরাজ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরাজমান রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার মধ্যে হবে এ নির্বাচন। এ নির্বাচন থেকে আরেকটি রাজনৈতিকভাবে দোদুল্যমান সরকার আসবে বলে ইকোনমিস্ট গবেষকরা ধারণা করছেন। কনজারভেটিভ ও লেবারের মতো মূল দলগুলোর বাইরে ইউকে ইন্ডিপেন্ডেন্ট পার্টি (ইউকিপ) নামে একটি নতুন দল এখন বেশ ভালভাবেই ভোটারদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে পেরেছে। এবারের নির্বাচনে তাদের নতুন শক্তি হিসেবে উঠে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। ইআইইউর মতে, এককভাবে কোন দলের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া দিন দিন কঠিন হয়ে উঠছে। এ মাসের ২৫ তারিখ আগাম নির্বাচন হচ্ছে গ্রীসে। গত মাসে দেশটির পার্লামেন্ট সদস্যরা নতুন একজন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করতে ব্যর্থ হওয়ার পর এই নির্বাচন হতে চলেছে। অনেকে মনে করছেন, এই নির্বাচনে উগ্র বামপন্থী জনপ্রিয় সিরিজা পার্টি ভাল করতে পারে। ইআইইউ আশঙ্কা করছে, দলটি সরকার গঠন করতে পারলে ইউরোপীয় ইউনিয়নজুড়ে এই বার্তাটি দেয়া হবে যে, একটি অস্থির টালমাটাল রাজনৈতিক অবস্থা আসন্ন।

অভিবাসন ও ব্যয় সঙ্কোচন এখন ইউরোপের রাজনীতির অন্যতম প্রধান দুটি ইস্যু। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, স্পেন, ফ্রান্স, সুইডেন জার্মানী ও আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত নির্বাচনগুলোয় এর প্রভাব লক্ষ্য করা গেছে। বলা চলে, ইস্যু দুটি ইউরোপের দেশে দেশে রাজনীতির চালচিত্র পাল্টে দিচ্ছে। প্রচলিত অর্থে ডান-বামের ধারায় আটকে থাকা মূলধারার রাজনৈতিক দলগুলো এখন আর ভোটারদের কাছে টানতে পারছে না।

ইআইইউর গবেষণায় গত পাঁচ বছরে বিশ্বের ৯০টি দেশে শিক্ষিত, তরুণ ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীকে প্রতিবাদী ভূমিকায় নামতে দেখা গেছে। এসব দেশের মানুষ আর তাদের রাজনৈতিক নেতাদের ওপর আস্থা রাখতে পারছে না। ইউরোপের বাইরে মধ্যপ্রাচ্য, এশিয়া, উত্তর আফ্রিকা ও লাতিন আমেরিকান দেশগুলোতে প্রচলিত রাজনৈতিক ধারার বিরুদ্ধে জনতাকে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে কী কী হুমকি রয়ে গেছে এবং এর প্রতিবন্ধকতাগুলো যেভাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে, সেদিকে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করাই বিবিসির গণতন্ত্র দিবস পালনের উদ্দেশ্য। মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াসহ সব জায়গাতেই গণতন্ত্রের দাবি, যেসব আন্দোলন চলছে প্রতিষ্ঠিত রাষ্ট্রীয় শক্তিগুলোকে তার গুরুত্ব অনুধাবন করতে হবে।

প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারী ২০১৫

২১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: