মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দিনে ক্ষতি ১৬শ’ কোটি

প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারী ২০১৫
  • হরতাল অবরোধ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ হরতাল-অবরোধে বীমা খাতে দৈনিক ক্ষতির পরিমাণ ১৫ কোটি টাকা বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স এ্যাসোসিয়েশন (বিআইএ)। সংগঠনটি মনে করছে, সার্বিক অর্থনীতিতে এ ক্ষতির পরিমাণ এক হাজার ৬শ’ কোটি টাকা। সোমবার বিআইএর সংবাদ সম্মেলন এসব তথ্য উঠে আসে। বিআইএ সূত্রে জানা গেছে, সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী ২০১৩ সালে এক হাজার কোটি টাকার সম্পদের বীমা দাবি এসেছে। ২০১৪ সালে রাজনৈতিক অস্থিরতায় দেশের অর্থনীতি হুমকির মুখে এবং দ্রুত আলোচনার মাধ্যমে এ পরিস্থিতির উন্নতির দাবি জানায় সংগঠনটি।

সংবাদ সম্মেলনে বিআইএ সভাপতি শেখ কবির হোসেন বলেন, হরতাল-অবরোধে ক্ষতিগ্রস্ত গাড়ির বীমা দাবি পেতে অবশ্যই এর জন্য কাভারেজ নিতে হবে। এজন্য আলাদা প্রিমিয়ামও পরিশোধ করতে হবে। হরতাল-অবোরোধের বীমা কাভারেজ নেয়া নেই এমন কোনো গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হলে বীমা দাবি পাবে না। কী পরিমাণ গাড়ির হরতাল কাভারেজ নেয়া আছে সে তথ্য আমাদের কাছে নেই। ভবিষ্যতে আমরা এ তথ্য সংগ্রহ করব। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২০১৪ সালের ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের এ পযর্šÍ প্রায় ৪০০টি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে এসব গাড়ির মধ্যে কতটির বীমা করা আছে তার সঠিক তথ্য বিআইএর কাছে নেই। হরতাল-অবরোধে একদিনে সার্বিক অর্থনীতির ক্ষতি হয় এক হাজার ৬শ’ কোটি টাকা। বছরে এ ক্ষতির পরিমাণ ৬৪ হাজার কোটি টাকা, যা জিডিপির ৬ দশমিক ৫ শতাংশের সমান। একদিনের হরতাল-অবরোধে পোশাক খাতে ক্ষতি হয় ৩শ’ ৬০ কোটি টাকা। বছরে এর পরিমাণ ১৪ হাজার ৪শ’ কোটি টাকা। সরকারী রাজস্ব খাতে একদিনের ক্ষতি ২শ’ ৫০ কোটি টাকা, বছরে যার পরিমাণ ১০ হাজার কোটি টাকা। শিক্ষা খাতে একদিনের ক্ষতি ৫০ কোটি টাকা। আর বছরে এর পরিমাণ দুই হাজার কোটি টাকা।

তিনি বলেন, হরতাল-অবরোধে সব থেকে বেশি ক্ষতির মুখে পড়ে পাইকারি মার্কেট, শপিংমল এবং অন্যান্য শপ। একদিনের হরতাল-অবরোধে এ খাতে ক্ষতি হয় ৬শ’ কোটি টাকা, বছরে যার পরিমাণ দাঁড়ায় ২৪ হাজার কোটি টাকা। আর্থিক ও ভ্রমণ খাতে হরতাল-অবরোধে একদিনের ক্ষতি ৫০ কোটি টাকা। বছরে এর পরিমাণ দুই হাজার কোটি টাকা। যাতায়াত খাতে একদিনে ক্ষতি ৬০ কোটি টাকা এবং বছরে দুই হাজার ৪শ’ কোটি টাকা। উৎপাদন খাতে একদিনে ক্ষতি ১শ’ কোটি এবং বছরে জার হাজার কোটি টাকা। আর অন্যান্য খাতে একদিনের ক্ষতি ৬৫ কোটি এবং বছরে দুই হাজার ৬শ’ কোটি টাকা। হরতাল-অবরোধে বীমা কোম্পানির ক্ষতির বিষয়ে বিআইএর সহ-সভাপতি আহছানুল ইসলাম টিটু বলেন, হরতাল-অবরোধ হলে বীমা কোম্পানি বিনিয়োগ, আমদানি-রফতানি, প্রিমিয়াম আয়, বীমা দাবি পরিশোধ সবদিক থেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ হিসাবেই একদিনে বীমা কোম্পানির ক্ষতি হয় ১৫ কোটি টাকা। হরতাল-অবরোধ বন্ধে এফবিসিসিআইয়ের আইন ক্ষতিয়ে দেখার বিষয়ে জানতে চাইলে শেখ কবির বলেন, আইনী সুযোগ থাকলে আমরাও এফবিসিসিআইয়ের সঙ্গে আছি। তবে যা কিছু করতে হয়, আইনের ভেতরে থেকে করতে হবে। রাজনৈতিক অস্থিরতা বন্ধে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে সংলাপে বসাতে বিআইএর পক্ষ থেকে কোন উদ্যোগ নেয়া হবে কিনা- জানতে চাইলে বিআইএ সভাপতি বলেন, আমরা কোন কিছুতে জোর করতে পারি না। তবে গণমাধ্যমের মাধ্যমে আহ্বান জানাতে পারি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের সহ-সভাপতি আহছানুল ইসলাম টিটু, নিটল ইহ্ন্যুরেন্সের চেয়ারম্যান কেএম মনিরুল হক এবং কর্ণফুলী ইন্স্যুরেন্সের ভাইস চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন পাভেল।

প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারী ২০১৫

২০/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: