কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জামালপুর ও মেহেরপুরে অবরোধের কবলে সবজি চাষী

প্রকাশিত : ১৯ জানুয়ারী ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, জামালপুর, ১৮ জানুয়ারি ॥ জামালপুরে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র চরে আবাদকৃত সবজি টানা অবরোধের কবলে পড়েছে। এতে চাষীরা ক্ষতিগ্রস্তের শিকার হয়ে পড়েছেন। ন্যায্যমূলে সবজি বিক্রি করতে না পেরে কৃষকরা হতাশ। প্রতি বছরের মতো এবার পুরাতন ব্রহ্মপুত্র চর এলাকা বিশেষ করে লক্ষ্মীরচর, তুলশীরচর, নরুন্দি, শরিফপুর এলাকায় টমেটো, বেগুনসহ নানা জাতের শীতের সবজি আবাদ হয়েছে। আবাদকৃত এসব সবজি রাজধানীসহ দেশের নানা প্রান্তে রফতানি শুরু হয়েছে। নান্দিনা বাজারে সবজির বিরাট পাইকারি হাট। এছাড়া শরিফপুর, কালিবাড়ী, বারুয়ামারী, গজারিয়া মোড়, তারাগঞ্জ বাজার, নরুন্দি বাজারে সবজির পাইকারি হাট বসে। চলতি জানুয়ারি মাসের শুরুতেই টমেটো প্রতি মণ বিক্রি হয়েছে ৮ থেকে ৯শ টাকায়। বেগুন বিক্রি হয়েছে ৭ থেকে ৮শ টাকায়। অথচ অবরোধের কারণে দাম অর্ধেকে নেমে এসেছে। পচনশীল এসব পণ্য নিয়ে কৃষক ও পাইকাররা দিশেহারা। লক্ষ্মীরচর গ্রামের টমেটো চাষি মোস্তফা জানান, অবরোধ আমাদের শেষ করে দিয়েছে। আমরা টমেটো বেগুনের ন্যায্য দাম পাচ্ছি না। নান্দিনা বাজারে সবজি আড়তদার বকুল মিয়া জানান, অবরোধের কারণে একদিকে চাষীরা সবজির ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত অন্যদিকে, ট্রাকভাড়াও বেড়েছে দ্বিগুণ।

নিজস্ব সংবাদদাতা মেহেরপুর থেকে জানান, ২০ দলীয় জোটের লাগাতার অবরোধ আর হরতালের যাঁতাকলে পড়ে চরম বিপাকে পড়েছে মেহেরপুরের সবজি চাষী ও ব্যবসায়ীরা। কঠোর শ্রম ও অর্থ বিনিয়োগ করে উৎপাদিত লাখ লাখ টাকার কাঁচা মাল চোখের সামনেই নষ্ট হচ্ছে। হরতাল আর অবরোধে প্রতিদিন কমপক্ষে কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কৃষক ও ব্যবসায়ীরা। সবজি উৎপাদনে মেহেরপুর জেলার সুনাম রয়েছে দেশের সর্বত্র। জেলার পাতাকপি, ফুলকপি, বিটকপি, আলু, শিম, লালশাকসহ অনান্য কাঁচা সবজি জেলার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর মেহেরপুরের তথ্য মতে, চলতি বছর প্রায় ৪ হাজার হেক্টর জমিতে সবজি চাষ হয়েছে।

প্রকাশিত : ১৯ জানুয়ারী ২০১৫

১৯/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: