কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আফ্রিদিদের জন্য ইমরান-টনিক!

প্রকাশিত : ১৯ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইমরান খান। পাকিস্তান ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি। ১৯৯২ সালে তাঁর যোগ্য নেতৃত্বে এ পর্যন্ত একবারই শিরোপা জয় করে দলটি। দেশটির তরুণ-যুবা-বৃদ্ধ, রাজনীতিবিদ-সাধারণ মানুষ থেকে খেলোয়াড়, প্রত্যেকের কাছে এখনও তিনি স্বপ্নের পুরুষ। আরও একটি বিশ্বকাপ সামনে রেখে মিসবাহ-উল হক, শহীদ আফ্রিদিদের উজ্জীবিত করতে সেই ইমরানকেই ব্যবহার করতে চাইছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)! লাহোরের বোর্ড অডিটরিয়াম বা অন্য কোথাও স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে অস্ট্রেলিয়াগামী ক্রিকেট সৈন্যদের নিজের সাফল্যের গল্প শোনাবেন ৬২ বছর বয়সী ক্রিকেট-লিজেন্ড। খোদ পিসিবি থেকে এমন ইঙ্গিতই দেয়া হয়েছে।

মাত্র ২৫ দিন, ১৪ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে বসবে ক্রিকেটে বিশ্বশ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। ১১তম বিশ্বকাপ সামনে রেখে দেশ ছাড়ার আগেই ক্রিকেটারদের গ্রেট ইমরানের নিবিড় সান্নিধ্য উপহার দিতে চাইছে পিসিবি। একমাত্র বিশ্বজয়ী সেনাপতির অভিজ্ঞতার কথা শুনিয়ে ইউনুস খান-সরফরাজ আহমেদদের তাতিয়ে তুলতে চায় বোর্ড। পিসিবির উর্ধতন কর্তাকে উদ্ধৃতি দিয়ে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের একটি সূত্র জানিয়েছে, ‘জীবন্ত কিংবদন্তি ইমরান খান দলের ক্রিকেটারদের কাছে অত্যন্ত শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব। তার নেতৃত্বেই ১৯৯২ সালে এ পর্যন্ত একবারই শিরোপা জিতেছিল পাকিস্তান। সেই অভিজ্ঞতা শুনিয়ে আফ্রিদি-মিসবাহদের তাতিয়ে দেয়ার আধ্যাত্মিক ক্ষমতা রয়েছে তার। পিসিবি তাই ইমরানকে হাজির করতে চাইছে। ইতোমধ্যে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। শত ব্যস্ততার মাঝে ক্রিকেটারদের সময় দিতে চেয়েছেন তিনি।’ ১৯৭১ থেকে ১৯৯২ পর্যন্ত পাকিস্তানের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করেন সুপার ক্রেজি ইমরান খান। অলরাউন্ড পারফর্মেন্সে ক্রিকেট বিশ্বে মুগ্ধতা ছাড়া নায়োকোচিত চেহারার সাবেক এই ক্রিকেটার। ক্রিকেট ছাড়ার পর এখন দেশটির পুরোদস্তুর রাজনীতিক তিনি। তার হাতে গড়া তেহরিক-ই ইনসাফ বর্তমানে পাকিস্তানের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল! খেলোয়াড়ি মাঠ থেকে রাজনীতির ময়দান, যেখানে হাত দিয়েছেন সেখানে সফলÑ এমন ব্যক্তিত্বের উপদেশ বাণীতে ক্রিকেটারদের উজ্জীবিত করতে চাইছে পিসিবি। ইমরানের জন্মস্থান লাহোরে দু’দিন আগে শেষ হয়েছে মিসবাহদের বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ক্যাম্প। ঘাম ঝড়ানো, কাঠোর প্রস্তুতি শেষে শিষ্যদের নির্ভার রাখতে পাকিস্তান এবার ফেবারিট নয় বলে মন্তব্য করেছেন বর্তমান কোচ ওয়াকার ইউনুস। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু হবে পাকিস্তানের। তার আগে সহ-আয়োজক নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে তারা। ‘গত বিশ্বকাপেও আমরা ফেবারিট ছিলাম না। কিন্তু দল হিসেবে দুর্দান্ত খেলেছিলাম। সেমিফাইনালে ভারতের কাছে হারের আগে আফ্রিদির নেতৃত্বে অসাধারণ নৈপুণ্য দেখিয়েছিলাম। ফেবারিট না হওয়ার সুবিধা হচ্ছে, খেলোয়াড়রা মানসিক চাপ মুক্ত থেকে সেরাটা দিতে পারে। যেহেতু অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে খেলা, এবার তাই অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলগুলোই এগিয়ে থাকবে।

প্রকাশিত : ১৯ জানুয়ারী ২০১৫

১৯/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: