কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

‘কোন অভিযোগ নেই, নিজের কাজ করে যেতে চাই’

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে ওয়ানডেতে সর্বাধিক উইকেটের মালিক। দীর্ঘদিন দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন অপরিহার্য ক্রিকেটার হিসেবে। ২০০৪ সালে ওয়ানডে দলে সুযোগ পাওয়ার পর থেকেই নিজের যোগ্যতা বলে টিকিয়ে রেখেছিলেন দলের নির্ভরযোগ্য স্পিনার হিসেবে। তবে ইনজুরি ছাড়া এর আগে কখনও বাদও পড়েননি এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চুক্তি থেকে। কিন্তু এবার বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দল থেকে এবং কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকেও বাদ পড়েছেন ৩২ বছর বয়সী বাঁহাতি এ স্পিনার। বেশ অভিমান করেই তিনি বললেন, ‘আমি তো ছোট খেলোয়াড়, তাই আমাকে নিয়ে কোন আলোচনা নেই, এ কারণে আমারও কোন অভিযোগ নেই। যদি সম্ভব হয় নিজের কাজ করে যাব এবং দলে ফিরব।’ এসব কিছুর জন্য কারও কাছ থেকে কারণ জানতে চাননি কিংবা অভিযোগও নেই রাজ্জাকের। জানিয়েছেন নিজের কাজটা করে যেতে চান। বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নটা ভঙ্গ হওয়ার পর এখন আসন্ন জাতীয় লীগের দিকে মনোযোগ দিতে চান তিনি।

১৫৩ ওয়ানডে খেলে বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র বোলার হিসেবে ওয়ানডেতে দুই শ’ উইকেট শিকারের মাইলফলক ছুঁয়েছেন রাজ্জাক। এখন পর্যন্ত তিনিই সর্বাধিক ২০৭ উইকেটের মালিক বাংলাদেশের পক্ষে। সম্প্রতি কিছুটা ফর্মহীনতায় ভুগছিলেন এবং ইনজুরির কারণে ফিটনেস সমস্যাও ছিল। কিন্তু পুরোপুরি ফিট হয়ে এবার প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগেও ফিরে পূর্ণ ছন্দে বোলিং করেছেন। এরপরও শুধু বিশ্বকাপ দলই নয়, চুক্তি থেকেও বিসিবি তাঁকে ছেঁটে ফেলেছে। এ বিষয়ে রাজ্জাক বলেন, ‘আমি কি করেছি সেটা সবাই জানে। দলে সুযোগ পাওয়ার পর থেকে এর আগে কখনও চুক্তি থেকে বাদ পড়িনি। যদি কাউকে পছন্দ না হয়, আমাকে যদি দরকার না মনে করে সেক্ষেত্রে দলে না রাখতেই পারে।

সেটা পুরোপুরি টিম ম্যানেজমেন্ট এবং নির্বাচকদের ব্যাপার। এ বিষয়ে আমি কারও কাছে কিছু জানতে চাইনি। তাতে কী লাভ হবে? আমি নিজের কাজ করে যেতে চাই। গত এক মাস ধরেই আমি পুরোপুরি ফিট। সেটা নিয়ে কোন সমস্যা নেই। কিন্তু কাউকে বাদ দিতে চাইলে অনেক ধরনের সমস্যাই তুলে ধরা হয়।’ তবে বিশ্বকাপের মতো বড় একটি মঞ্চে থাকতে পারছেন না এই প্রতিভাবান স্পিনার। পরের বিশ্বকাপ আসতে আসতে ক্যারিয়ারে হয় তো অনেক উত্থান-পতন এবং পরিবর্তন আসবে। এ বিষয়ে রাজ্জাক বলেন, ‘বিশ্বকাপও একটা আন্তর্জাতিক ম্যাচের আসর। তবে অনেক বড় মঞ্চ। খেলতে পারলে অবশ্যই ভাল লাগত। কিন্তু সেটা তো আর সম্ভব নয়। এটা নিয়ে এখন হতাশ হয়ে কিংবা আক্ষেপ করেও কোন লাভ নেই। পরবর্তী বিশ্বকাপ? অতদূর চিন্তা করতে চাই না। এর আগে অনেক খেলা আছে বাংলাদেশের। নিজেকে প্রমাণ করতে চাই, এতদিন যা করেছি তাই করব। ইনশাআল্লাহ অবশ্যই দলে ফিরব।’

বৃহস্পতিবার বিসিবির দশম সাধারণ সভায় ক্রিকেটারদের নতুন চুক্তি ঘোষণা করা হয়। ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত নতুন এ চুক্তির মেয়াদ। আগে চুক্তিতে ১২ জন থাকলেও এবার তা করা হয়েছে ১৪ জনের। তালিকায় নতুন করে ঠাঁই পেয়েছেন ইমরুল কায়েস, আল আমিন হোসেন, তাইজুল ইসলাম, আরাফাত সানি ও শফিউল ইসলাম। বাদ পড়েছেন রাজ্জাক ছাড়াও সোহাগ গাজী ও রবিউল ইসলাম। ‘এ+’ গ্রেডে রয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল এবং মুশফিকুর রহীম। ‘এ’ গ্রেডে শুধু মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ‘বি’ গ্রেডের রুবেল হোসেন, নাসির হোসেন ও ইমরুল কায়েস, ‘সি’ গ্রেডে শফিউল ইসলাম, এনামুল হক বিজয় এবং মুমিনুল ইসলাম। ‘ডি’ গ্রেডে আরাফাত সানি, আল আমিন হোসেন এবং তাইজুল ইসলাম।

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

১৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: