রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

হবিগঞ্জে মাছেরমেলায় দুই কেজি কাতলের দাম ৪৫ হাজার টাকা!

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

রফিকুল হাসান চৌধুরী তুহিন, হবিগঞ্জ থেকে ॥ ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম বাগ্মী নেতা বিপিন চন্দ্র পালের জন্মভূমি হিসেবে পরিচিত হবিগঞ্জ সদর উপজেলাধীন পৈল গ্রামে শুরু হলো প্রাণবন্ত ও দর্শক নন্দিত ‘পৌষ সংক্রান্তির মাছেরমেলা’। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে শুরু এই আকর্ষণীয় মেলা ক্রমান্বয়ে গুটিয়ে শেষ করা হবে শুক্রবার রাত পেরিয়ে শনিবার ভোর পর্যন্ত। এতে অংশ নিচ্ছে হবিগঞ্জ ছাড়াও মৌলভীবাজার, সিলেট, সুনামগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও বি-বাড়ীয়া থেকে নানা বয়সী মাছপ্রেমী লোকজন। আর উপভোগ করছেন হাজার হাজার নারী-পুরুষ। প্রতিবছরের ন্যায় এবারও এই পৌষমেলা শুরু হলে বাজারে ভরে ওঠে নানা প্রজাতির মাছ। নানা কারণে যে মাছ দেখতেই শুধু আনন্দ নয় বরং কে কার মতো করে বেশি দামে ক্রেতাদের কাছে কোন্ মাছটি কত মূল্যে বিক্রি করবে, এমনকি সর্বোচ্চ দামে কিনে সংবাদপত্রের শিরোনাম হয়ে বাহাবা কুড়াবে তা নিয়েও যুদ্ধে লিপ্ত ক্রেতা-বিক্রেতা। আর তা উপভোগ করেন মেলায় আসা হাজার হাজার নারী-পুরুষ। দু’দিনব্যাপী এই মেলায় ২ কেজি ওজনের একটি কাতলা মাছ আশুগঞ্জের মেঘনা নদী থেকে কিনে নিয়ে এসেছিলেন হবিগঞ্জ শহরতলীর উমেদনগর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর নুর। তিনিই এই মেলায় মাছটি বিক্রি করেন ৪৫ হাজার টাকায়। ২ কেজি ওজনের একটি ঘাঘট মাছ শেরপুরের কুশিয়ারা নদী থেকে এই মেলায় নিয়ে এসেছিলেন ব্যবসায়ী নুরাজ মিয়া। তিনি মাছটি বিক্রি করেন ৩০ হাজার টাকায়। ১৫ কেজি ওজনের একটি বোয়াল মাছ এই বাজারে বিক্রি হয় ২০ হাজার টাকায়। এছাড়াও বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে। এমনকি এই মেলায় চিতল, গজার, বড় আইর, রুই, কার্ফু, পুঁটি, চিংড়ি, কৈ, চাপিলা, চান্দা মাছেরও ছিল ছড়াছড়ি। মাছের মেলা হলেও শিশুদের বিনোদনের জন্য যেমন ছিল নানা রকম খেলনা তেমনি ছিল শীতের পিঠাসহ নানাপ্রকার খাবারের সমারোহ। সংশ্লিষ্ট এলাকার মানুষ প্রতিবছর এই মেলার আয়োজন করে তাদের পূর্বপুরুষের ঐতিহ্যকে রক্ষা করে চলেছে।

বিদ্যানন্দের শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

কিছু সাদা মনের মানুষ যারা স্বপ্ন দেখায় বাচ্চাদের, স্বপ্ন দেখায় মানুষের মতো মানুষ হতে। আর তারই প্রেক্ষিতে ২৭ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইএমবি প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীরা মার্কেটিং বিভাগের প্রভাষক ইনতিসার আলমের নেতৃত্বে বিদ্যানন্দের সুবিধা বঞ্চিত ২ শ’ শিশু শিক্ষার্থীর মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেন। -বিজ্ঞপ্তি।

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

১৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: