মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শীর্ষ বাছাই জোকোভিচ

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা। তবে এবারের আসরের শীর্ষ বাছাই হলেন সার্বিয়ার নোভাক জোকোভিচ। গত মৌসুমে অসাধারণ পারফর্মেন্স উপহার দিয়েই অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন ওয়ারিঙ্কা। আর এটাই ছিল তার ক্যারিয়ারের প্রথম কোন গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট জয়। গত বছর এই ইভেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে নোভাক জোকোভিচকে হারিয়েছিলেন সুইজারল্যান্ডের ওয়ারিঙ্কা। আর ফাইনালে স্প্যানিশ টেনিস তারকা রাফায়েল নাদালকে পরাজিত করে জীবনের প্রথম শিরোপা জিতেন তিনি। আর সেই শিরোপাই স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কার জীবনকে পরিবর্তন করে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন চতুর্থ বাছাই ওয়ারিঙ্কা।

এ বিষয়ে স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা বলেন, ‘ক্যারিয়ারে পরিবর্তন আসবেই। এটা নিশ্চিত। আপনি যখন কোন একটি গ্র্যান্ডসøাম জিতবেন তখন অবশ্যই আপনি টেনিস ইতিহাসেরই অংশ হয়ে যাবেন। আর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন আমার জীবন এবং টেনিসকেই পরিবর্তন করে দিয়েছে। এখানে আবারও আসতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। এখন আমি খুব ভাল খেলছি। আশা করি এবারও এখানে আমার সেরাটা দিতে পারব। এটা বছরের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট। এখান থেকে আবারও শূন্য থেকে শুরু হবে। সেভাবে নিজেকে প্রস্তুতও করতে হবে।’ শুক্রবারের ড্র অনুযায়ী এবারও কোয়ার্টার ফাইনালে স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা মুখোমুখি হতে পারেন নোভাক জোকোভিচের। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কা এবং র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নাম্বার তারকা নোভাক জোকোভিচ ছাড়াও অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের হট ফেবারিট রজার ফেদেরার। সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে ১৭ গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন সুইজারল্যান্ডের এই জীবন্ত কিংবদন্তি। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন চারবার। তাই বয়স ৩৩ হলেও ক্যারিয়ারের ১৮তম গ্র্যান্ডসøাম জয়ের জন্য মুখিয়ে আছেন ফেড এক্সপ্রেস। গত সপ্তাহে ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনাল টেনিস টুর্নামেন্টেও নিজের জাত চিনিয়েছেন। পুরো টুর্নামেন্টেই দারুণ খেলে মৌসুমের প্রথম শিরোপা নিজের শোকেসে তুলেছেন তিনি। সেইসঙ্গে গড়েছেন ১০০০তম এটিপি ম্যাচ জয়ের অবিস্মরণীয় কীর্তিও। তবে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে তার বড় হুমকি এবার ব্রিটিশ টেনিস তারকা এ্যান্ডি মারে। কেননা ড্র অনুযায়ী শেষ আটে মারে-ফেদেরারের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ক্যারিয়ারে দুটি গ্র্যান্ডসøাম জিতেছেন এ্যান্ডি মারে। কিন্তু দুর্ভাগ্য এখনও অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জেতা হয়নি তার। তবে এই ইভেন্টে তিনবার ফাইনাল খেলেছেন তিনি। ২০১০ ও ১১ সালে টানা দুইবার ফাইনালে উঠার কীর্তি গড়েন মারে। এবং ২০১৩ সালেও ফাইনালে উঠেন তিনি। কিন্তু ২৭ বছর বয়সী এই ব্রিটিশদের প্রতিনিধি নিজেকে ফাইনালের মঞ্চে মেলে ধরতে পারেননি কখনই। তবে অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার নিশ্চই নিজেকে চ্যাম্পিয়ন করার লক্ষ্য নিয়েই কোর্টে নামবেন এ্যান্ডি মারে। এই ইভেন্টের আরেক ফেবারিট রাফায়েল নাদাল। ক্যারিয়ারের দুর্দিন পার করছেন এই স্প্যানিয়ার্ড। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে রাফায়েল নাদালের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ হলেন চেক প্রজাতন্ত্রের টমাস বার্দিচ। এছাড়াও সেরার তকমাটা গায়ে মেখে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোর্টে নামবেন কেই নিশিকোরি-ডেভিড ফেরারের মতো খেলোয়াড়রা। শেষ চমক দেখাতে পারেন নবীন কোন টেনিস খেলোয়াড়ও।

প্রকাশিত : ১৭ জানুয়ারী ২০১৫

১৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: