কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন

প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারী ২০১৫
  • বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২১৫, ক্রিকেট অপারেশন্স থেকে আকরামের বিদায়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এবার বিশ্বকাপ হবে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে। এ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার হচ্ছেন কে? এ প্রশ্ন গত কয়েকদিনে ঘুরপাক খেয়েছে। অবশেষে সেই প্রশ্নের উত্তর মিলেছে। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ম্যানেজার থাকবেন খালেদ মাহমুদ সুজন। এ পদের দায়িত্ব পালন করবেন। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত হওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা পর্ষদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

শুধু এ সিদ্ধান্তই নয়, গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে বিসিবির কমিটিগুলোর চেয়ারম্যান পদেও রদবদল করা হয়। আলোচিত কমিটি ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান পদ থেকে বিশ্বকাপের আগে সাবেক অধিনায়ক আকরাম খানকে সরিয়ে দেয়া হয়। সেই পদে আরেক সাবেক অধিনায়ক বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়ক নাঈমুর রহমান দুর্জয়কে বসানো হয়। সঙ্গে ক্রিকেটারদের নতুন চুক্তিও ঘোষণা করা হয়। বিসিবির সর্বশেষ সভা হয়েছিল ৩০ সেপ্টেম্বর। সেই সভায় মুশফিকুর রহীমকে সরিয়ে মাশরাফি বিন মর্তুজাকে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক করা হয়েছিল। সাড়ে তিন মাস পর আরেকটি সভা হলো। সেই সভাতেও দেখা গেল রদবদল। নগরীর একটি হোটেলে এ সভা হয়। সভাতে সর্বসম্মতিক্রমেই সব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ সভার আগেই বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বিশ্বকাপে দলের ম্যানেজার ঘোষণা নিয়ে আভাস দিয়েছিলেন, ‘বাইরের কেউ হবেন না। বোর্ডে আছেন, এমন কেউই হবেন ম্যানেজার।’ শেষপর্যন্ত জালাল ইউনুসের কথাই ঠিক হলো। বিসিবির পরিচালক, গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সুজনই হয়েছেন বিশ্বকাপে দলে ম্যানেজার। সুজন এর আগেও বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার ছিলেন। ২০০৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নেয়ার পর একই বছর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে দলের ম্যানেজার ছিলেন। এরপর জাতীয় দলের সহকারী কোচও ছিলেন সুজন। এবার বিশ্বকাপ দলের ম্যানেজার হলেন।

বাংলাদেশ দলের হয়ে ২০০৩ সালের ২৪ এপ্রিল থেকে একই বছর ২৯ অক্টোবর পর্যন্ত টেস্টে নেতৃত্ব দিয়েছেন সুজন। আর ওয়ানডেতেও একই সময়ে তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ দল খেলেছে। না টেস্টে না ওয়ানডেতে কোনটিতেই সুজনের নেতৃত্বে বাংলাদেশ দল জিততে পারেনি। সুজনের নেতৃত্বে ৯ টেস্ট ও ১৫ ওয়ানডে খেলে বাংলাদেশ। কিন্তু জয়ের খাতা শূন্যই থাকে। সুজন এবার মূল্যবান পদেই আসীন হলেন। সুজনের এমন খুশির দিনে অবশ্য আকরামের কষ্টের দিনের শুরু হয়। এদিন থেকেই যে ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয়েছে আকরামকে। তবে টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যানের পদটির দায়িত্ব আকরামকে দেয়া হয়েছে। এ কমিটির চেয়ারম্যান গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পাকে ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিসের (সিসিডিএম) (আগে চেয়ারম্যান ছিলেন আজম নাসির) চেয়ারম্যান করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারী ২০১৫

১৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: