কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

তেজস্ক্রিয় সেই বস্তুটি নিরাপদে অপসারণ, কেটে গেছে শঙ্কা

প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ শ্রীলংকা থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে ফেরত আসা সেই রফতানির কন্টেনার থেকে তেজষ্ক্রিয় বস্তুটি অপসারণ করে নিরাপদে সংরক্ষণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে বস্তুটি কন্টেনার থেকে বের করে যথাযথ ব্যবস্থা নেয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, শ্রীলংকা ও বাংলাদেশী বিজ্ঞানীদের সমন্বয়ে গড়া বিশেষজ্ঞ টিম। তেজষ্ক্রিয় এ বস্তুটিকে আণবিক শক্তি কমিশনের সাভারের সংরক্ষণাগারে রাখা হবে। এদিকে, যথাযথ পরীক্ষণ ছাড়া ছাড়পত্র দিয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের নিযুক্ত পিএসআই কোম্পানির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানটি।

গত বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিশেষজ্ঞ টিম ওই স্ক্র্যাপ স্টেইনলেস স্টিল স্ক্র্যাপভর্তি কন্টেনার থেকে একটি একটি করে পণ্য বের করে আনার কাজ শুরু করে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা ৪০ মিনিটের দিকে কন্টেনারের একেবারে শেষ অংশে পাওয়া যায় ছোট এই বস্তুটি, যা অনেকটা মোবাইল ফোনের ব্যাটারির মতোই। আয়তনে এটি দুই থেকে তিন ইঞ্চি এবং ওজনে দুই থেকে তিনশ’ গ্রাম।

বিশেষজ্ঞরা জানান, বস্তুটি সিল করা থাকায় ক্ষতিকর মাত্রায় রেডিয়েশন ছড়ায়নি। বিশেষ ব্যবস্থায় এটিকে সংরক্ষণ করা হয়েছে কালো রঙের একটি ছোট কন্টেনারে।

তেজষ্ক্রিয় এ বস্তুটির বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন আণবিক শক্তি কমিশন চট্টগ্রাম কার্যালয়ের পরিচালক বিজ্ঞানী মাসুদ কামাল, এটমিক এনার্জি রেগুলেটরি অথরিটির কর্মকর্তা বিজ্ঞানী ড. মোফাজ্জল হায়দার, চট্টগ্রাম বন্দরের পরিচালক (নিরাপত্তা) লে. কর্নেল আলমগীর কবির এবং চট্টগ্রাম কাস্টমসের সহকারী কমিশনার ও মেগাপোর্ট ইনিশিয়েটিং প্রজেক্টের ইনচার্জ আহমেদুর রেজা চৌধুরী। তারা বস্তুটির বিষয়ে এবং এর অপসারণ ও সংরক্ষণ নিয়ে অবহিত করেন।

আণবিক শক্তি কমিশনের পরিচালক মাসুদ কামাল জানান, উদ্ধার হওয়া তেজষ্ক্রিয় বস্তুটির সক্ষমতা ৫ থেকে ১০ মিলিকিউরি। এর বিকিরণের মাত্রা ১২ হাজার মিলিসিবার্টস পার আওয়ার। তবে বস্তুটি সিল করা থাকায় এবং ভেঙ্গে না যাওয়ায় কোন ঝুঁকির সৃষ্টি হয়নি। বিশেষজ্ঞ দল এটিকে সতর্কতার সঙ্গে বের করে এনে একটি বিশেষায়িত কন্টেনারে রেখেছে। এর থেকে তেজষ্ক্রিয়তা ছড়ানোর আর কোন আশঙ্কা নেই।

প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারী ২০১৫

১৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: