রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

প্রশ্ন ফাঁস, গুজব রটানো ও ফেসবুকে হুজুগের বিরুদ্ধে কঠোর চ্যালেঞ্জ

প্রকাশিত : ১৫ জানুয়ারী ২০১৫
  • অপরাধীদের বিরুদ্ধে কড়া হুঁশিয়ারি শিক্ষামন্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আসন্ন এসএসসি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস, গুজব রটানো, ফেসবুকে প্রশ্নের নামে হুজুগ সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বুধবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত পরীক্ষা সংক্রান্ত জাতীয় মনিটরিং কমিটির সভায় একই সঙ্গে অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁসিয়ারি উচ্চারণ করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। প্রশ্ন ফাঁসের ক্ষেত্রে বিজি প্রেসকে প্রথম টার্গেট করে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। এখানে প্রশ্নপত্র ছাপার সঙ্গে জড়িত দুষ্ট লোকদের চৌদ্দগুষ্ঠির তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের মা-বাবা, ভাই-বোন এমনটি প্রেমিক- প্রেমিকাকেও নজরদারিতে রাখা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রশ্ন ফাঁসকারীদের বিরুদ্ধে চ্যালঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেছে, এবার সাহস থাকলে আমাদের মোকাবেলা কর।

এদিকে সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে আসন্ন পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে (কক্ষ নং ১৯২২, ভবন নং ০৬, বাংলাদেশ সচিবালয়)। কন্ট্রোল রুমের ই-মেইল ঠিকানা ( ল্যান্ড ফোন (৯৫৪৯৩৯৬), দু’টি মোবাইল ফোন (০১৭৭৭-৭০৭৭০৫ ও ০১৭৭৭-৭০৭৭০৫), ইন্টারনেট কানেকশন দেয়া হয়েছে। পরীক্ষা শুরুর আগেই এখানে একাধিক আইটি বিশেষজ্ঞ কাজ শুরু করবেন। ফেসবুকে বা অন্য কোনভাবে তথ্য পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিটিআরসি, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থাকে জানিয়ে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব পর্যায়ের এক কর্মকর্তাকে কন্ট্রোলরুমের ইনচার্জের দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে। তাঁর নাম ও মোবাইল নম্বর ওয়েবসাইটে থাকবে। একইভাবে দেশের ১০টি বোর্ডেই ভিন্ন ভিন্ন কন্ট্রোলরুম খোলা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিজি প্রেসের দুষ্ট লোকদের প্রতি এবার কঠোর হুঁশিয়ারি। তাদের বংশধরদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের চৌদ্দগুষ্ঠির খবর আমাদের কাছে আছে। তারা কার সঙ্গে বেশি কথা বলছেন, মা-বাবা, ভাই- বোন, প্রেমিক-প্রেমিকা সবাইকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। সত্যি হোক আর বিভ্রান্তি ছড়ানোর জন্য হোক, কেউ আর এবার এই অপরাধ করে রেহাই পাবেন না। অপরাধীদের বিরুদ্ধে এবার দ্রুত পাবলিক পরীক্ষা আইন-১৯৮০-এ (সংশোধিত ১৯৯৮ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (সংশোধন) আইন-২০১৩) মামলা করা হবে। তিনি বলেন, এসএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের জন্য আমরা অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা করছি। এর বাইরেও অনেক কৌশল আছে যা আমরা প্রকাশ্যে বলছি না। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রশ্ন ফাঁসের গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, যত বড় জ্ঞানী-গুণী হোক না কেন তাদের কথা প্রত্যাখ্যান করবে। পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, কেউ বিভ্রান্তি সৃষ্টিকারীদের দিকে ছুটবেন না। বইয়ের প্রতি মনোযোগী হোন। ভালভাবে পরীক্ষা দিন।

প্রকাশিত : ১৫ জানুয়ারী ২০১৫

১৫/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: