কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অনুশীলনের মধ্যমণি রুবেল

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হয়েছে সোমবার। সেই প্রস্তুতিতে প্রথম দিনে মধ্যমণি হয়ে থাকলেন পেসার রুবেল হোসেন। অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপীর করা নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় জামিন পেয়েই যে প্রস্তুতিতে যোগ দিয়ে ফেলেছেন রুবেল।

অনুশীলন হয়েছে কন্ডিশনিং ও স্ট্র্যাংথ টেইনিং। জিম করেছেন ক্রিকেটাররা। ফিটনেস সম্পর্কে সচেতন হয়েছেন। কিন্তু অনুশীলন নয়, যেন রুবেলই মুখ্য হয়ে ওঠেন। সকালে রুবেল স্টেডিয়ামে আসতেই, ‘রুবেল এসেছেন, রুবেল এসেছেন’ সবার কণ্ঠে শোনা যায়। এরপর যখন জিম করতে থাকেন, সেখানেও দেখা যায় রুবেলই আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে আছেন। ফটোগ্রাফারদের ক্যামেরার ফ্লাশ কিংবা সাংবাদিকদের কথোপকথন সবকিছুর মূলেই থাকেন রুবেল। জিম সেশনে ক্রিকেটারদের মাঝেও রুবেল হয়ে ওঠেন প্রথম দিনের আকর্ষণ।

তাই তো ড্রেসিংরুমের সামনে রুবেলের প্রতি বিশেষ মনোযোগ দেয়া, আরেক পেসার আল আমিন, অধিনায়ক মাশরাফির সঙ্গে ছবি তোলা, সবকিছুই যেন রুবেলকেন্দ্রিকই ছিল। রুবেলকেও দেখা গেল খুব খোশমেজাজেই আছেন। অট্টহাসি যেন তার থামেই না। ক্রিকেটারদের সঙ্গে কী নিয়ে যেন একটু পর পর আলাপ-আলোচনা করেন, আর হাসতে থাকেন। কখনও উচ্চ হাসিও বাদ পড়েনি।

তাই বলে রুবেল সবার সঙ্গেই এমনটি করেননি। ক্রিকেটারদের সঙ্গে ঠিকই খোশমেজাজে মিশেছেন। কিন্তু যেই মিরপুর স্টেডিয়াম থেকে মিরপুর একাডেমি ভবনে জিম করতে গেছেন একদম নিশ্চুপ থেকেছেন। না হাসি আছে মুখে, না কারও সঙ্গে কোন কথা বলেছেন। সাংবাদিকদের তো এড়িয়ে চলতে পারলেই যেন বাঁচেন। মুখ দিয়ে কোন কথা বের হয়নি রুবেলের। যা হাসি-ঠাট্টা সবই ক্রিকেটারদের সঙ্গেই করেছেন।

হ্যাপীর করা মামলায় ৮ জানুয়ারি কারাগারে যেতে হয় রুবেলকে। রবিবারই জেল থেকে বের হন রুবেল। জামিন পান। বিশ্বকাপেও যে খেলতে পারবেন, তা নিশ্চিতও হয়ে যায়। রুবেল তাই প্রথম দিনের অনুশীলন থেকে দলের সঙ্গেই থাকছেন।

রুবেলের এ অন্তর্ভুক্তি বিসিবির জন্যও স্বস্তিদায়ক হয়েছে। ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খানই বলেছেন, রুবেলের জামিন বিসিবির জন্য স্বস্তিদায়কই। প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদও একই কথা বলেছেন, ‘এটা খুব সাধারণ ব্যাপার। আমরা একটা স্কোয়াড ঘোষণা করেছি। প্রত্যেকটা বোলার কিংবা ব্যাটসম্যানের আলাদা আলাদা রোল থাকে। রুবেলের গতি আছে বলে। পুরনো বলে ভাল বল করতে পারে। মাঝে মাঝে সেকেন্ড ব্যাটিং পাওয়ার প্লেতেও ভাল বল করতে পারে। প্রত্যেকটা খেলোয়াড়কে যার যার রোল বিবেচনা করেই দলে নিয়েছি। স্কোয়াডের একটা ছেলে মুক্ত হয়ে যাওয়া এবং দলের অনুশীলনে অংশগ্রহণ করতে পারাটা অবশ্যই দলের জন্য ভাল। সবার জন্যই এটা স্বস্তির ব্যাপার।’ রুবেল এখন বল হাতে কতটা স্বস্তি দিতে পারেন সেটাই দেখার বিষয়।

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

১৩/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: