মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মেসি, সুয়ারেজ, নেইমার ঝলকে এ্যাটলেটিকোর আত্মসমর্পণ

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তারকা ত্রয়ী ঝড়ে উড়ে গেল এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। রবিবার স্প্যানিশ লা লীগার ম্যাচে স্বাগতিক বার্সিলোনা ৩-১ গোলে পরাজিত করে অতিথি এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে। ন্যুক্যাম্পে ক্যাটালানদের হয়ে গোল করেন তিন সুপারস্টার নেইমার, লুইস সুয়ারেজ ও লিওনেল মেসি। বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হয়ে একটি গোল পরিশোধ করেন ক্রোয়েশিয়ান ফরোয়ার্ড মারিও মানদুকিচ।

ম্যাচের আগে স্প্যানিশ লা লীগার ইতিহাসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ গোলের পুরস্কার পান মেসি। অসাধারণ রেকর্ড গড়ার স্বীকৃতিস্বরূপ স্পেনের পেশাদার ফুটবল লীগের পক্ষ থেকে মেসির হাতে এলএফপি ট্রফি তুলে দেয়া হয়। স্মারক তুলে দেন বার্সিলোনার সাবেক ফুটবলার কার্লেস রেসাক। গত বছরের ২২ নবেম্বর সেভিয়ার বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করে এ্যাটলেটিকো বিলবাওয়ের কিংবদন্তি ফুটবলার টেলমো জারার রেকর্ড ভাঙেন মেসি। জারার ২৫১ গোলকে টপকে মেসি নতুন করে রেকর্ড বুকে নিজের নাম লেখান। লা লীগায় বর্তমানে মেসির গোলসংখ্যা ২৫৯টি।

ক’দিন আগে কোপা ডেল রে ফুটবলেও মেসি, নেইমার ও সুয়ারেজের নৈপুণ্যে বড় জয় পায় বার্সিলোনা। এবার লা লীগার বড় ম্যাচেও এই তিন তারকা জ্বলে ওঠায় সহজ জয় পেয়েছে লুইস এনরিকের দল। নিজেদের মাঠে শুরু থেকেই এ্যাটলেটিকোর ওপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে বার্স। ১২ মিনিটে প্রথম গোল পায় তারা। মেসি অসামান্য দক্ষতায় একজনকে কাটিয়ে ডান দিক থেকে ডি বক্সের মধ্যে পাস দেন। বল সুয়ারেজের গায়ে লেগে চলে যায় নেইমারের কাছে। অনেকটা বিনা বাধায় গোল করেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। ৩৫ মিনিটে সুয়ারেজের গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বার্সিলোনা। গোলটিতে অবদান ছিল টানা চারবারের বর্ষসেরা ফুটবলার মেসির। ডান দিক থেকে বল পায়ে ক্ষিপ্র গতিতে ছুটে চোখের পলকে সুয়ারেজকে পাস দেন আর্জেন্টাইন তারকা। গোল করতে কোন সমস্যাই হয়নি উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের।

বিরতির পর ৫৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে এ্যাটলেটিকোর হয়ে ব্যবধান কমান ক্রোয়েশিয়ার স্ট্রাইকার মানদুকিচ। ডি বক্সের মধ্যে মেসি স্পেনের ডিফেন্ডার জেসুস গামেসকে ফাউল করলে পেনাল্টি দেন রেফারি। এ কারণে হলুদ কার্ডও দেখেন মেসি। ম্যাচের ৮৭ মিনিটে গোল পান মেসি। ইভান রাকিটিচের দিকে বল বাড়িয়ে দ্রুত ডি বক্সে ঢুকে পড়েন লা লীগার সর্বোচ্চ গোলদাতা। ক্রোয়েট তারকার কাছ থেকে ফিরতি বল পেয়ে গোল করেন মেসি। এই জয়ে ১৮ ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থান ধরে রাখল বার্সিলোনা। এক ম্যাচ কম খেলে ১ পয়েন্ট বেশি নিয়ে শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। ১৮ ম্যাচে ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

ম্যাচ শেষে সাক্ষাতকারে ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার দাবি করেন, সঙ্কট কাটিয়ে বার্সিলোনা এই মুহূর্তে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের দলে এই মুহূর্তে কোন সংকট নেই। আমরা সঙ্কট কাটিয়ে উঠেছি। ধীরে ধীরে আমরা এখন ঘুরেও দাঁড়াচ্ছি। আমরা এখন সবাই ঐক্যবদ্ধ। আমাদের মনোযোগ এখন পুরোপুরি মাঠে নিবদ্ধ করতে হবে। এ ছাড়া ভাল ফলের কোন সুযোগ নেই। এ্যাটলেটিকো কোচ দিয়াগো সিমিওনে বলেন, প্রধমার্ধে আমরা খুব বাজে খেলেছি। আমাদের গতি বলতে কিছুই ছিল না। আমরা প্রতিপক্ষের ওপর কোন চাপই সৃষ্টি করতে পারিনি। দ্বিতীয়ার্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়লেও ম্যাচ ততক্ষণে আমাদের হাত থেকে বেরিয়ে গেছে।

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

১৩/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: