আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চারদিন ব্যাপী শিল্প মেলা শুরু হচ্ছে কাল

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ রফতানি বাণিজ্যকে বহুমুখীকরণ এবং সম্প্রসারণের জন্য ষষ্ঠবারের মতো শুরু হতে যাচ্ছে চার দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক শিল্প মেলা। কাল বুধবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ মেলা শুরু হবে। চলবে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ এ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স এ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিজিএপিএমইএ) এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মেলায় দেশী-বিদেশী শিল্প প্রতিষ্ঠানসহ প্রায় ৬৩২টি স্টল থাকছে। ভারত, চীন, পাকিস্তান, তাইওয়ান, অষ্ট্রেলিয়া, জার্মান, দুবাইসহ ৩০টি দেশ অংশগ্রহণ করবে। স্টলে গার্মেন্টস এ্যাক্সেসরিজ, প্যাকেজিং পণ্যের মেশিনারিজ, কাঁচামাল, গার্মেন্টস এ্যাক্সেসরিজ এবং প্যাকেজিং শিল্প প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত পণ্য প্রদর্শিত হবে।

মেলায় আগত দর্শনার্থীরা মেশিনারিজ এবং উৎপাদিত পণ্যের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার সুযোগ পাবেন। এ প্রসঙ্গে বিজিএপিএমইএ’র সভাপতি রাফেজ আলম চৌধুরী বলেন, দেশীয় সম্পদ বৃদ্ধির অন্যতম উপায় হচ্ছে উৎপাদন বৃদ্ধি ও বাণিজ্যের ব্যাপক প্রসার। রফতানি বৃদ্ধির মাধ্যমে আমাদের মতো জনগোষ্ঠীর দেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা যেতে পারে। এ কর্মসংস্থান দেশের সঞ্চয় বিনিয়োগের পথ প্রশস্ত করবে, বেকার সমস্যার সমাধান এবং দারিদ্র্যবিমোচনে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

তিনি আরও জানান, আমাদের এ্যাসোসিয়েশনের আওতাভুক্ত ১৩শ’র বেশি শতভাগ রফতানিমুখী গার্মেন্টস এ্যাক্সেসরিজ এবং প্যাকেজিং শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এ সব শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো ৩০-৩৫ ধরনের পণ্য উৎপাদন করে। উৎপাদিত পণ্য রফতানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্পসহ অন্যান্য রফতানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানে সরবরাহ করে থাকে।

আগে এসব পণ্য বিদেশ থেকে আমদানি করা হতো উল্লেখ করে রাফেজ আলম চৌধুরী বলেন, বর্তমানে গার্মেন্টস সেক্টরের এ্যাক্সেসরিজ এবং প্যাকেজিংয়ের পুরো চাহিদাই এ খাত মিটিয়ে আসছে। ফলে বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হচ্ছে এবং লিড টাইম কমে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গার্মেন্টস এ্যাক্সেসরিজ এ্যান্ড প্যাকেজিং পণ্য রফতানি করে বিগত অর্থবছরে প্রায় ৪.৭৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বৈদেশিক মুদ্রা আয় হয়েছে। সরকারের নীতিগত সমর্থন পাওয়া গেলে ২০১৮ সালের মধ্যে এ খাত থেকে প্রায় ১২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্জিত হবে।

১৪ জানুয়ারি বেলা ১১টায় মেলা উদ্বোধন করবেন শিল্প মন্ত্রী আমির হোসেন আমু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন- বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী এমাজ উদ্দিন প্রামাণিক, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম. এ. মান্নান, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গবর্নর এসকে সুর চৌধুরী, বিজিএমইএর সভাপতি আতিকুল ইসলাম প্রমুখ।

মেলা উপলক্ষে আগামী ১৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বিজিএপিএমইএর উদ্যোগে দেশী-বিদেশী অংশগ্রহণকারী ও এ্যাসোসিয়েশনের সদস্যদের উদ্দেশে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে এক মিলন মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া মেলা উপলক্ষে আগামী ১৭ জানুয়ারি একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। গার্মেন্টস এ্যাক্সেসরিজ এবং প্যাকেজিং সেক্টরের ওপর সেমিনারটি ওই দিন সকাল সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মিডিয়া বাজারে অনুষ্ঠিত হবে।

প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারী ২০১৫

১৩/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: