কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পুঁজিবাজারে লেনদেন বেড়েছে ৫ শতাংশ

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা অবরোধের মধ্যে দেশের পুুঁজিবাজারে সূচকের কিছুটা পতন হলেও বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ আগের দিনের চেয়ে বেড়েছে। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রবিবারে প্রধান বাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জের লেনদেন আগের দিনের চেয়ে বেড়েছে ৫ শতাংশ। দীর্ঘদিন পরে পুঁজিবাজারে লেনদেন ও দরবৃদ্ধিতে এগিয়ে ছিল বস্ত্র খাতের কোম্পানিগুলো। শুধু তাই নয়, দরবৃৃদ্ধির সেরা ১০টি কোম্পানির মধ্যে ৬টিই তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতের। তবে খাতটির ছোট মূলধনী বা স্বল্প দামের শেয়ারগুলোর ছিল চাহিদার শীর্ষে। প্রায় ছয় মাস ধরে কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর কমতে কমতে একেবারে লোভনীয় পর্যায়ে আসার পরেই চাহিদা বাড়ল। অন্যদিকে অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ও লেনদেন দুটোই কমেছে।

ডিএসইর তথ্যানুযায়ী, ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩০৮ কোটি ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ২৯৪ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার। এ হিসাবে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৪ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার।

এদিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩০৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১১টির, কমেছে ১৪৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির শেয়ার দর।

ডিএসইএক্স বা প্রধান সূচক ২৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৯৪৩ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ১৭৩ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএস৩০ সূচক ১৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৮৩৫ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হচ্ছে- লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড, অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড, সাইফ পাওয়ারটেক, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলস, আইডিএলসি ফিন্যান্স লিমিটেড, অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, আরএসআরএম স্টীল, গ্রামীণফোন, বেক্সিমকো ফার্মা ও ফুয়াং ফুড।

দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : অলটেক্স, ঢাকা ডাইং, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং, সায়হাম কটন, ফু-ওয়াং সিরামিক, এমারেল্ড ওয়েল, মিরাকল ইন্ড্রাস্টিজ, নদার্ন জুটস, প্রাইম টেক্সটাইল ও আনালিমা ইর্য়াং।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : সোনারগাঁও, আলহাজ্ব টেক্সটাইল, মেঘনা পেট, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, জিএসপি ফাইনান্স, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, তাল্লু স্পিনিং, বিডি থাই, আরএসআরএম স্টিল ও বিডি ফাইনান্স।

অপরদিকে সিএসইতে ২৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৭৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ১৭৫ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৩৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৭টির, কমেছে ১২৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : অলটেক্স, অগ্নি সিস্টেম, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, সামিট এলায়েন্স পোর্ট লিমিটেড, সাইফ পাওয়ার টেক, ডেলটা স্পিনিং, ফু-ওয়াং সিরামিক, হামিদ ফেব্রিক্স, বেক্সিমকো ও খুলনা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড।

বাংলাদেশ ফান্ডের সম্পদ মূল্য প্রকাশ ॥ বাংলাদেশ ফান্ডের ইউনিটপ্রতি সম্পদ (এনএভি) প্রকাশ করা হয়েছে। গত ৬ জানুয়ারির হিসাব অনুযায়ী এ সম্পদ মূল্য প্রকাশ করা হয়েছে। সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বর্তমানে বাংলাদেশ ফান্ডের ১০০ টাকা অভিহিত মূল্যের বিপরীতে ইউনিটপ্রতি সম্পদ বাজার মূল্য অনুসারে ১০৭.৮৯ টাকায় দাঁড়িয়েছে। এ ফান্ডের ইউনিটের বিক্রয় এবং পুনর্ক্রয়মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে যথাক্রমে ১১১ টাকা ও ১০৮ টাকা।

বর্তমানে ক্রয়মূল্য অনুসারে বাংলাদেশ ফান্ডের মোট সম্পদ দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮২৯ কোটি ১৬ লাখ ৯০ হাজার ৬০১.৮৮ টাকা এবং বাজার মূল্য অনুসারে ১ হাজার ৮১৬ কোটি ৬১ লাখ ১ হাজার ৪৭৮.২৮ টাকা।

বাংলাদেশ ফান্ড একটি বে-মেয়াদী মিউচুয়াল ফান্ড। পুঁজিবাজারে ভয়বাহ ধসের পরে বাজারকে সাপোর্ট দিতে ২০১১ সালের ১১ মে এ ফান্ডের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করা হয়। ফান্ডটির আকার নির্ধারণ করা হয় ৫ হাজার কোটি টাকা। কিন্তু উদ্যোক্তারা প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী মূলধন না দেয়ায় দেড় হাজার কোটি টাকা দিয়ে এর কার্যক্রম শুরু করা হয়।

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০১৫

১২/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: