কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অবরোধে নাশকতা করে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০১৫
  • মাঠে নেই নেতারা ॥ অধিকাংশ এলাকায় সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে আসছে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবরোধ ডেকে বিএনপি-জামায়াতের নেতারা মাঠে না নামায় রাজধানীসহ সারাদেশের অধিকাংশ এলাকায় যানবাহন চলাচলসহ সব কিছুই ছিল প্রায় স্বাভাবিক। তবে রবিবার বিএনপি জোটের ডাকা ষষ্ঠ দিনের অবরোধে বিচ্ছিন্নভাবে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ভাড়াটে পিকেটারদের দিয়ে বোমাবাজি, ট্রেনের ফিশপ্লেট খুলে ফেলা, যানবাহন ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্নভাবে নাশকতা চালিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা করা হয়েছে। তবে বিশ্ব এজতেমার দিনে অবরোধ কর্মসূচী পালন করায় ধর্মের নামে রাজনীতি করা বিএনপি-জামায়াত কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েছে।

রাজধানীতে অবরোধ চিত্র ॥ রাজধানী ঢাকায় যানবাহন চলাচলসহ সবকিছু ছিল স্বাভাবিক। নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়সহ রাজধানীজুড়েই পুলিশের করা নিরাপত্তা থাকায় অবরোধকারীদের চোখে পড়েনি। তবে কোন এলাকায় পিকেটাররা ঝটিকা মিছিল বের করে নাশকতার চেষ্টা করেছে। বিকেলে শেওড়াপাড়া বাসস্ট্যান্ডে জাবালে নূর পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে (ঢাকা মেট্রো ব-১১৬৯২৫) আগুন দিয়ে দ্রুত সটকে পড়ে অবরোধকারীরা। তবে আগুনে কোন যাত্রী হতাহত হয়নি। খবর পেয়ে দ্রুত মিরপুর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

রবিবার সকালে আগারগাঁও জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট হাসপাতালে অবরোধকারীদের ককটেল বিস্ফোরণে আহত ফেনী জেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল কাদের মিয়াকে দেখতে গিয়ে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক জনগণের জানমাল রক্ষায় অবরোধের নামে বিশৃঙ্খলাকারীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। পুলিশ বিশৃঙ্খলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করছে বলে তিনি জানান।

বগুড়ায় রেললাইনে নাশকতা, শেরপুরে ২টি ট্রাকে অগ্নিসংযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ বগুড়ায় অবরোধকারীদের নাশকতার হাত থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে একটি যাত্রীবাহী ট্রেন। বিএনপি-জামায়াতের ডাকা লাগাতার অবরোধে শনিবার মধ্যরাতে বগুড়া সদরের ছাতিয়ানতলায় এলাকায় রেল লাইনে নাশকতা চালান হয়। বিএনপি-জামায়াতের নাশকতাকারীরা রেললাইনের স্প্যান্ডেল ক্লিপ খুলে ফেলাসহ রেললাইন গ্যাস কাটার দিয়ে কেটে রেখে যায়। ওই সময় একটি ট্রেন আসার কথা ছিল। রেল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থল থেকে ৪ কিলোমিটার দূরে গাবতলি স্টেশনে ট্রেনটি দ্রুত থামিয়ে দেয়। এতে রক্ষা পায় অনেক প্রাণ। এ ঘটনায় পুলিশ ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি এনামূল হকসহ ৫ জনকে আটক করে। একই রাতে বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় অবরোধকারীরা আলুবোঝাই দু’টি ট্রাকে পেট্রোলবোমা ছুড়ে আগুন দেয়। এছাড়া রবিবার সকাল ও দুপুরে শহরের পিটিআই মোড়সহ কয়েকটি স্থানে অবরোধকারীরা ককটেল বিস্ফোরণ করে।

পুলিশ ও রেল সূত্র জানায়, শনিবার রাত দেড়টার দিকে মোটরসাইকেল ও ভটভটি ভ্যানে করে আসা ৫০-৬০ জন অবরোধকারী ছাতিয়ানতলায় এলাকায় রেলওয়ের গেটম্যান বাহারকে মারপিট করে বেঁধে ফেলে মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়। পরে তারা লাইনের ৫শ’ স্প্যান্ডেল ক্লিপ খুলে গ্যাস কাটার দিয়ে কেটে রেখে যায়। ওই সময় ঠাকুরগাঁও থেকে সান্তাহারগামী একটি ট্রেন বগুড়া রেলস্টেশনের দিকে আসছিল। এরই মধ্যে রেললাইনের পাহারায় থাকা মোখলেছ নামে এক রেলকর্মীর বিষয়টি নজরে আসে। বগুড়া স্টেশন ও রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগকে খবর দেয়া হলে ঠাকুরগাঁও থেকে আসা ট্রেনটি তাৎক্ষণিক গাবতলি রেলস্টেশনে থামিয়ে দেয়া হয়। এ ঘটনায় প্রায় ৪ ঘণ্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। তবে সকাল সোয়া ৬টায় পুনরায় ট্রেন চলাচল শুরু হয়। এ ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ভাংচুর নাশকতার মামলায় ৫৭ জনসহ বিভিন্ন মামলায় মোট ৮৪ জন গ্রেফতার হয়েছে।

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ ২০ দলীয় জোটের লাগাতার অবরোধে জনসমর্থন না পেয়ে নাশকতার পথে এগোচ্ছে জামায়াত-বিএনপি। আন্দোলনের নেতৃত্বে বিএনপি হলেও রাজশাহী অঞ্চলে নাশকতায় সবচেয়ে বেশি অংশ নিচ্ছে জামায়াত-শিবির। প্রকাশ্যে রাজপথে সুবিধা করতে না পেরে এখন তারা অপেক্ষাকৃত নির্জন এলাকায় মহাসড়ক বেছে নিয়েছে। সুযোগ পেলেই চলন্ত গাড়িতে ছুড়ে মারছে পেট্রোলবোমা। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সরকারী ও ব্যক্তিমালিকানাধীন সম্পদ। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন সড়ক-মহাসড়কে নাশকতার চেষ্টা চালাচ্ছে জামায়াত-শিবির।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, রাজশাহী অঞ্চলের চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাট, রাজশাহীর বেলপুকুর, খড়খড়ি, গোদাগাড়ী, পুঠিয়ার বানেশ্বর এবং চারঘাটের হলিদাগাছি এলাকায় নাশকতার জোন হিসেবে বেছে নিয়েছে জামায়াত-শিবির। এসব এলাকায় প্রতিরাতেই চলন্ত গাড়িতে নাশকতা চালানো হচ্ছে। এছাড়া রাজশাহী অঞ্চলের সরকারী গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় হামলা ও নাশকতার ছক এঁটেছে জামায়াত-শিবির ও নেতৃত্বে থাকা বিএনপি।

চট্টগ্রামে অবরোধ ভেঙ্গে গেছে

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ বিএনপির ডাকা লাগাতার হরতাল-অবরোধে কোনই প্রভাব নেই জনজীবনে। দলটির পক্ষ থেকে পরবর্তী নির্দেশ দেয়ার আগেই সড়ক মহাসড়কে বেরিয়ে পড়েছে যানবাহন। শুধু নগরীতেই নয়, মহাসড়কেও পুরোদমে চলছে সকল ধরনের পরিবহন। রবিবার থেকে অবরোধের কোন তেজ নেই বললেই চলে। তবে নাশকতার আশঙ্কায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। গত শনিবার রাতভর অভিযান চালিয়ে চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপি-জামায়াতের ২৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়েছে জেলা ও নগর পুলিশের পক্ষ থেকে। এদিকে, অবরোধ ভেঙ্গে যাওয়ায় হতাশা নেমে এসেছে বিএনপি-জামায়াত-শিবিরে।

রবিবার চট্টগ্রাম নগরী ও জেলায় বিএনপির অবরোধ কর্মসূচী ছিল নামেই। সড়কগুলোর চিত্র ছিল একেবারেই স্বাভাবিক। বন্দরনগরীতে সব ধরনের যানবাহন চলেছে। শুধু নগরীই নয়, চট্টগ্রাম থেকে ফেনী, নোয়াখালীসহ বিভিন্ন জেলা এবং কক্সবাজারের উদ্দেশে যাত্রীবাহী বাস ছেড়ে যায় অন্যান্য দিনের মতোই। তবে ঢাকা অভিমুখে লোকাল বাসগুলো চলাচল করলেও বিলাসবহুল বাসগুলো চলে সীমিত আকারে।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতভর অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন উপজেলা থেকে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের ২৭ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) মুহাম্মদ নাঈমুল হাসান সাংবাদিকদের জানান, যাদের আটক করা হয়েছে তাদের অধিকাংশই বিভিন্ন সময়ে পরিচালিত সহিংসতার মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। পুলিশী অভিযানে গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রয়েছেন মীরসরাই থানায় এক বিএনপি কর্মী, সীতাকু-ে ৩ বিএনপি ও ২ শিবিরকর্মী, পটিয়ায় ৪ বিএনপি কর্মী, ফটিকছড়িতে ১ বিএনপি ও ২ জামায়াত কর্মী, লোহাগাড়ায় ৪ জামায়াত ও ১ বিএনপি কর্মী, রাঙ্গুনিয়ায় ২ বিএনপি ও ২ জামায়াত কর্মী, সাতকানিয়ায় জামায়াতের ১ জন ও শিবিরের ২ কর্মী এবং রাউজানে ২ বিএনপি কর্মী। এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

ঘাটাইলে ২০ গাড়ি ভাংচুর

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল ॥ টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় রবিবার দুপুরে অবরোধের সমর্থনে বের হওয়া বিএনপির মিছিলে ফাঁকা গুলি ছোড়ে পুলিশ। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ৬ জন। এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অবরোধ সৃষ্টি করে অন্তত ২০টি গাড়ি ভাংচুর করেছে। পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বিএনপির ৮ কর্মীকে আটক করেছে।

সিলেটে গাড়ি ভাংচুর কালে শিবিরকর্মী নিহত

স্টাফ রিপোর্টার সিলেট ॥ সিলেটে পিকেটিং ও গাড়ি ভাংচুর কালে গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারিয়েছে এক শিবিরকর্মী। শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিবিরকর্মী শরিফুল ইসলাম শরিফ (২৫) সদর উপজেলার টুকেরবাজারের বলাউরা নয়ামসজিদ এলাকার বাসিন্দা। তার বাবার নাম মৃত আফতাব আলী। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনার সময় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের টুকেরবাজার জাঙ্গাইল পয়েন্টে গাড়ি ভাংচুর করছিল। এমন সময় দ্রতগতির একটি মিনিট্রাক তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে ওই যুবক মারা যায়।

রাত সাড়ে ১০টায় দিক্ষণ সুরমা চন্ডিপুল বাইপাস সড়কের কায়স্তরাইল-গালিমপুর এলাকায় পাথরবোঝাই একটি ট্রাকে (ঢাকা মেট্রো ট-১১৬১৬৭) অগ্নিসংযোগ করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ৩টি মোটরসাইকেল যোগে ৬ জন ট্রাকটির গতিরোধ করে পেট্রোল ঢেলে অগ্নিসংযোগ করে পালিয়ে যায়।

উল্লাপাড়ায় ২টি সিএনজি অটোরিক্সায় আগুন ॥ স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ থেকে বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচী অবরোধ স্থানীয় কর্মসূচী হরতাল চলাকালে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া ঝিকিড়া কবরস্থানের কাছে ২টি সিএনজি অটোরিক্সায় আগুন দিয়েছে অবরোধকারীরা। অপরদিকে এনায়েতপুর কেজির মোড়ে ২টি ও সৈয়দপুরে ১টি সিএনজি অটোরিক্সা ভাংচুর করা হয়। এদিকে সিরাজগঞ্জ শহরে হরতাল চলাকালে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৪ বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

বরিশালে পুলিশের গাড়িতে হামলা

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের বাবুগঞ্জ উপজেলার রহমপুর ব্রিজের সন্নিকটে শনিবার রাত সোয়া বারোটার দিকে সহকারী পুলিশ সুপারের গাড়িতে হামলা চালিয়েছে অবরোধকারীরা। এতে গাড়ির গ্লাস ভেঙ্গে সহকারী পুলিশ সুপার সুদীপ্ত সরকার ও চালক মোঃ মহসিন আহত হয়েছেন। জেলা পুলিশ সুপার একেএম এহসান উল্লাহ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, সহকারী পুলিশ সুপার সুদীপ্ত সরকার তার দায়িত্ব পালনকালে দেখতে পান অবরোধকারীরা মহাসড়কে টায়ার জ্বালিয়ে যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে। এ সময় তিনি গাড়ি নিয়ে সামনে অগ্রসর হলে অবরোধকারীরা তার গাড়ি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে।

একইদিন রাত দশটার দিকে একই এলাকায় যাত্রীবাহী মেঘনা পরিবহনে হামলা চালিয়েছে অবরোধকারীরা। এতে যাত্রীসহ কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়।

রংপুরে গাছের গুঁড়ি আর বালুর বস্তা ফেলে সড়ক অবরোধ: স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর ॥ অবরোধ কর্মসূচীর ৬ষ্ঠ দিন রবিবার রংপুরের দর্শনা এলাকার রংপুর-ঢাকা মহাসড়কে গাছের গুঁড়ি আর বালুর বস্তা ফেলে এবং টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেছে শিবির কর্মীরা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। শিবির জেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত কর্মসূচী পালন করলেও বিএনপি তেমন একটা মাঠে নেই বললেই চলে। এদিকে নাশকতা করার অভিযোগে শনিবার রাতে পুলিশ জামায়াত শিবিরের ৪ ও ১ বিএনপি কর্মীসহ মোট ৫৬ জনকে আটক করেছে।

হবিগঞ্জে চোরাগোপ্তা হামলা : নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ ॥ অবরোধকে কেন্দ্র করে চোরাগোপ্তা হামলায় শনিবার রাত ৯টা থেকে রবিবার ভোর রাত পর্যন্ত হবিগঞ্জের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের লস্করপুর হতে শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রিজ এলাকায় নির্বিচারে যানবাহন ভাংচুর করেছে নেতাকর্মীরা। পুলিশ ও পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা মিডিয়া কর্মীদের জানান, ওই সময়জুড়ে ১০Ñ১৫টি গাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। তন্মধ্যে হবিগঞ্জ-সিলেটগামী বিরতিহীন ১টি বাস, এনা পরিবহনের ১টি গাড়ি ও ১টি শ্যামলী পরিবহনের বাসও রয়েছে। এ সময় অন্তত ৭Ñ৮ জন যাত্রী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মুন্সীগঞ্জে হরতালের পক্ষে বিপেক্ষ মিছিল: স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জ শহরে রবিবার সন্ধ্যায় হরতালের সমর্থনে আওয়ামী লীগ মিছিল বের করে। শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি পিপি এ্যাডভোকেট আব্দুল মতিনের নেতৃত্বে মিছিলটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মিছিলের স্লোগান ছিল- “দোকানপাট খুলবে-গাড়ির চাকা ঘুরবে।” এর আগে জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানার নেতৃত্বে বিএনপির ডাকা সোমবার হরতালের সমর্থনে একটি মিছিল শহরের উত্তরাংশের সড়ক প্রদক্ষিণ করে। তারা হরতালের পক্ষে স্লোগান দেয়।

সাভারে যাত্রীবাহী বাসে আগুন : নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার ॥ রবিবার সকাল সাতটার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আশুলিয়া থানাধীন সাভার ডেইরী ফার্ম গেটের সামনে ‘গ্রামীণ সেবা’ পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় যাত্রীরা দ্রুত বাস থেকে নেমে যাওয়ায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

দিনাজপুরে ট্রাকে অগ্নিসংযোগ : স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ দিনাজপুরে অবরোধকারীরা রাতের বেলা নাশকতামূলক কর্মকা- চালালেও দিনে পুলিশী প্রহরায় চলছে ট্রাকসহ অন্য যানবাহন। শনিবার রাতে দিনাজপুরে অবরোধকারীরা ২টি ট্রাকে অগ্নিসংযোগ ও ৩টি ট্রাক ভাংচুর করেছে। ট্রাক ভাংচুরের সময় ৩ জনকে আটক করেছে বিজিবি।

কুমিল্লায় সংঘর্ষ : নিজস্ব সংবাদদাতা, কুমিল্লা ॥ রবিবার কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম, সদর দক্ষিণ ও বরুড়ায় ১০টি যানবাহনে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা। এছাড়া জেলার দেবিদ্বারে ছাত্রদলের সঙ্গে পুলিশ-ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে সাংবাদিকসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। এ সময় দোকান-পাটসহ অর্ধশতাধিক প্রতিষ্ঠানে ভাংচুর করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৬০ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে পুলিশ ২০ জনকে আটক করেছে বলে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা ॥ ২০ দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে মাগুরা শহরের ভায়নার মোড় এলাকায় বাসে অগ্নি সংযোগের ঘটনায় জেলা বিএনপির সভাপতি কবির মুরাদসহ ৪২ জন বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীর নামে মাগুরা সদর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। গতকাল শনিবার রাতে মাগুরা সদর থানায় পুলিশের এসআই মানিক চন্দ্র বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন।

এছাড়াও অবরোধ চলাকালে চুয়াডাঙ্গায় গাড়ি ভাংচুর মামলায় মনিরুল ইসলাম নামে এক বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করা হয়। জয়পুরহাটে বাস-ট্রাকে আগুন দেয় অবরোধকারীরা। নড়াইলে জেলা বিএনপির সাংগঠনিক ও পৌর মেয়র সম্পাদক জুলফিকার আলীকে আটক করে পুলিশ। নোয়াখালীতে আওয়ামী লীগ বিক্ষোভ করেছে। রুপগঞ্জে ককটেল বিস্ফোরণ ও সড়কে আগুন দিয়েছে অবরোধকারীরা। চুয়াডাঙ্গায় যাত্রীবাহী বাসে আগুন দিয়েছে হরতালকারীরা। গোপালগঞ্জে অবরোধের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে ছাত্ররা। নড়াইলে বিএনপির ৮ কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। কুড়িগ্রামে জামায়াতের ৩ কর্মী আটক এবং খুলনায় বিএনপি-জামায়াতের ৯ কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রকাশিত : ১২ জানুয়ারী ২০১৫

১২/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: