কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

‘গ্রুপিং-স্বাগতিক সিঙ্গাপুরের পলিটিক্স’

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫
  • দাবি অধিনায়ক কৃষ্ণ কুমারের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগামী ১৭-২৫ জানুয়ারি সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিতব্য ‘ওয়ার্ল্ড হকি লীগ’-এর দ্বিতীয় পর্বে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় হকি দল। এ উপলক্ষে আজ রাত সাড়ে ১০টায় মালয়েশিয়ার উদ্দেশে রওনা হচ্ছে বাংলাদেশ হকি দল। সেখান ১২ এবং ১৩ তারিখে মালয়েশিয়ার সঙ্গে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ১৫ জানুয়ারি ওমান জাতীয় দলের সঙ্গেও একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। গত সোমবার ওয়ার্ল্ড হকি লীগের দ্বিতীয় পর্বের জন্য দল ঘোষণা করে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন। ১৮ সদস্যের দলে নতুন মুখ আশরাফুল। এছাড়াও দলে ঠাঁই পেয়েছেন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা তিন খেলোয়াড়- রাসেল মাহমুদ জিমি, কামরুজ্জামান রানা এবং ইমরান হাসান পিন্টু। ‘ফিটনেস’ সমস্যার কারণে অনুশীলন ক্যাম্প থেকে আগেই বাদ পড়েছিলেন আরেক শাস্তিপ্রাপ্ত খেলোয়াড়, সাবেক অধিনায়ক-গোলরক্ষক জাহিদ হোসেন। এছাড়া অভিজ্ঞদের মধ্যে বাদ পড়েন শেখ মোঃ নান্নু এবং তাপস বর্মণ।

দীর্ঘসময় খেলার বাইরে থাকা জিমি, রানা ও পিন্টুর ‘ফিটনেস’ নিয়ে দুশ্চিন্তা ছিল নির্বাচক ও কোচদের। তবে এই তিনজনের ফিটনেসে সন্তুষ্ট তারা। ওয়ার্ল্ড হকি লীগের প্রথম রাউন্ডে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ। উল্লেখ্য, ওয়ার্ল্ড হকি লীগে কখনই দ্বিতীয় পর্বের গ-ি পেরুতে পারেনি বাংলাদেশ। মালয়েশিয়া যাওয়া উপলক্ষে শনিবার সাভারের বিকেএসপি থেকে ঢাকায় চলে আসে জাতীয় হকি দল। বিকেলে মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে অনুশীলন করে ঘাম ঝরান জিমি-মিমো-চয়নরা। অনুশীলনের পর কথা হয় দলের সহকারী কোচ মামুন উর রশীদ, অধিনায়ক কৃষ্ণ কুমার, গোলরক্ষক অসীম গোপ এবং দলের সহকারী ম্যানেজার রফিকুল ইসলাম কামালের সঙ্গে।

দলের সহকারী কোচ মামুন উর রশিদ বলেন, ‘আমরা অপেক্ষা করছি অনুশীলন ম্যাচগুলোর জন্য। ওই ম্যাচগুলো খেললেই বুঝতে পারব দলের আসল অবস্থাটা কোথায়। কারণ এতদিন আমরা ট্রেনিং করেছি, নিজেদের মধ্যে ম্যাচ খেলেছি। কোন প্রতিপক্ষের সঙ্গে খেলিনি। তাই এখনই কোন মন্তব্য করা মুশকিল।’ সকালে মালয়েশিয়া পৌঁছার পরই বিকেলে অনুশীলন ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ভ্রমণক্লান্তি ওই ম্যাচে কোন প্রভাব ফেলবে? ‘আমরা মূলত তিনটি ম্যাচ খেলব আমাদের দুর্বল পয়েন্টগুলো বের করার জন্য। সেজন্য অনুশীলন ম্যাচের ফল যাই হোক তাতে কোন সমস্যা হবে না।’

এতদিন মূলত কোচ গোবিনাথ এবং মামুন এশিয়ান গেমসে দলের যে সমস্যাগুলো ছিল, সেগুলো নিয়েই কাজ করেছেন। ‘এশিয়ান গেমসে আমরা অধিকাংশ গোলই খেয়েছি পেনাল্টি কর্নার থেকে। পেনাল্টি কর্নার ডিফেন্সে আমাদের অধিকাংশ কাজ করা হয়েছে। তাছাড়া পাসিংয়েও আমাদের ভুল ছিল। ফিটনেসে সমস্যা ছিল। এ বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করা হয়েছে। দলের পুরো রক্ষণভাগ নিয়েও কাজ করা হয়েছে।’ বলেন মামুন। অধিনায়ক কৃষ্ণ কুমার বলেন, ‘প্রস্তুতি অনেক ভাল হয়েছে। ৪৫ দিন অনেক হার্ড ট্রেনিং করেছি আমরা। ফিটনেসের ওপরই জোর দেয়া হয়েছে। আত্মবিশ্বাসও বেশ ভাল। আমাদের আশা আছে, ওয়ার্ল্ড হকি লীগে আমরা ভাল খেলব।’

প্রতিপক্ষের সঙ্গে খেলতে গিয়ে শুরুর দিকেই গোল হজম করলে খেলায় আর ফিরে আসতে পারে না বাংলাদেশ। ‘সর্বশেষ এশিয়ান গেমসে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আমাদের এই সমস্যা হয়েছে। জাপানের কাছে বাজে খেলে হারি ৮-০ গোলে। আসলে ওই ম্যাচের আগে আমাদের জাপান দল সম্পর্কে কোন তথ্য বা ধারণা ছিল না। এবার আমাদের নতুন মালয়েশিয়ান কোচ এসে জাপানের ম্যাচের ভিডিও দেখে তাদের শক্তিমত্তা-দুর্বলতা চিহ্নিত করেছেন। সেই সঙ্গে আমাদের শক্তিমত্তা-দুর্বল দিকও বুঝতে পেরে সেগুলো নিয়ে বিস্তর কাজ করেছেন। আশা করছি এবার সিঙ্গাপুরে সে রকম কোন কিছু ঘটবে না।’ যোগ করেন কৃষ্ণ। ওয়ার্ল্ড হকি লীগে পুল ‘বি’তে বাংলাদেশের সঙ্গে আছে জাপান, পোল্যান্ড এবং মেক্সিকো। এ প্রসঙ্গে কৃষ্ণ বলেন, আমাদের কঠিন গ্রুপে ফেলতে স্বাগতিক সিঙ্গাপুর কূটকৌশল প্রয়োগ করেছে আমাদের বিরুদ্ধে! সেটা হলো ওরা প্রথম আমাদের গ্রুপেই ছিল। সেক্ষেত্রে আমাদের প্ল্যান ছিল- পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে অন্তত এক পয়েন্ট নিতে পারলে দুর্বল সিঙ্গাপুরকে তো হারাবই। কিন্তু ফিজি নাম প্রত্যাহার করে নেয়ায় শক্তিশালী মেক্সিকোকে আমাদের গ্রুপে ঠেলে দেয়া হয়। যাই হোক আমরা ইউটিউবে মেক্সিকোর ভিডিও দেখেছি। তারা অনেক ভাল দল। কদিন আগেই মেক্সিকো শক্তিশালী জার্মানিকে হারিয়েছে। আর সিঙ্গাপুর নিজেরা চলে গেছে অন্য সহজ গ্রুপে। এটা তো একপ্রকার পলিটিক্সই! তারপরও আমরা ভাল খেলার চেষ্টা করব।’

অধিনায়ক হিসেবে এটাই হচ্ছে কৃষ্ণর প্রথম এ্যাসাইনমেন্ট। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘চেষ্টা থাকবে ভাল কিছু করার। দলের সবাই আমাকে সহযোগিতা করছে। দলের পুরনো অধিনায়করাও অনেক সাহায্য করছেন। দলের অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব অনেক বেড়ে গেল। দলটা অনেক ভালই হয়েছে। জিমি ভাই, পিন্টুরা আসাতে দলের শক্তি অনেক বেড়েছে। দলের জুনিয়র প্লেয়াররা অনেক ভাল করছে। দলের সবার মধ্যে বোঝাপড়াটা অনেক ভাল। যা আগে ছিল না।’ গোলরক্ষক অসীম গোপ বলেন, ‘সাভার বিকেএসপিতে আমরা ভালই অনুশীলন করেছি। কাল (রবিবার) মালয়েশিয়া যাচ্ছি দলের সঙ্গে।’ সাবেক অধিনায়ক-গোলরক্ষক জাহিদ হোসেন সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিতব্য ওয়ার্ল্ড হকি লীগে বাংলাদেশ দল থেকে বাদ পড়েছেন ফিটনসে সমস্যার জন্য। ফলে দলের প্রধান গোলরক্ষক হিসেবে খেলাটা একপ্রকার নিশ্চিতই অসীমের জন্য। এতে কতটা চাপমুক্ত তিনি? ‘আসলে খেলাধুলা মানেই চ্যালেঞ্জ। আমি চ্যালেঞ্জ নিতে সবসমযই প্রস্তুত থাকি। এমনকি অনুশীলনের সময়ও সমান সিরিয়াস থাকি।’ গত ডিসেম্বরে ঢাকায় জুনিয়র এএইচএফ কাপ হকিতে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। আসরের সেরা গোলরক্ষক অসীমকে তখন জনকণ্ঠ প্রশ্ন করেছিল নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে জাহিদ ফিরলে দলের মূল একাদশে জায়গা পাওয়াটা কতটা কঠিন হবে? তখন অসীমের জবাব ছিল এ রকম : ‘সমস্যা নেই। আমি চেষ্টা করব নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করে খেলতে। কে খেলবে, সেটা নির্বাচকদের ব্যাপার।’ ওয়ার্ল্ড হকি লীগে গোলরক্ষকরাই হবেন ম্যাচের মূল নিয়ামকÑএমনটাই মনে করেন অসীম, ‘ওয়ার্ল্ড হকি লীগে আমাদের চেয়ে বাকি দলগুলো সবাই র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে। স্বভাবতই কঠিন প্রতিপক্ষদের বিরুদ্ধে খেলতে হবে আমাদের। ওসব ম্যাচে গোলরক্ষকের ওপর প্রচণ্ড চাপ থাকবে। কাজেই তখন ভাল না খেললে নিজের জালে গোলের বন্যা বয়ে যাবে, যা দলের জন্য হারের কারণ হবে।’ ১২ জানুয়ারি মালয়েশিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ প্রসঙ্গে অসীমের ভাষ্য, ‘বাংলাদেশ দলের পুরনো সমস্যা হচ্ছেÑ নতুন কোন জায়গায় কোন টুর্নামেন্ট খেলতে গেলে শুরুর দিকেই গোল খেয়ে নাভার্স হয়ে যাই। প্রথম ম্যাচেই এমনটা হয় বেশি। এক্ষেত্রে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের আগে যদি একাধিক প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে পারি, তাহলে সেই জড়তা-সমস্যাটা কাটিয়ে ওঠা সহজ হবে।’

ওয়ার্ল্ড হকি লীগের দ্বিতীয় রাউন্ডে কোয়ালিফাই এর আগেও করেছে বাংলাদেশ। এবারও সেই একই একই সাফল্যের পুনরাবৃত্তি করতে চান অসীম গোপ। রফিকুল ইসলাম কামাল বলেন, ‘ওয়ার্ল্ড হকি লীগ রাউন্ড-২ কে সামনে রেখে ১৮ সদস্যের ঘোষিত বাংলাদেশ জাতীয় হকি দল ভাল করবে। সেই সঙ্গে নতুন অধিনায়ক ও প্রায় এক বছর বাদে দলে ফেরা জিমি, রানা ও পিন্টুকে নিয়ে দলের শক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে।’

বাংলাদেশ জাতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক রফিকুল ইসলাম কামাল বলেন, ‘তরুণ এবং অভিজ্ঞতার সমন্বয়ে দলটি করা হয়েছে, সেক্ষেত্রে আমি এ দলটি নিয়ে আশাবাদী। যারাই দলে এসেছেন তারাই যোগ্যতার বলেই এসেছেন, হকিতে অধিনায়কের ভূমিকা অত বড় নয়।’

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

১১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: