মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

চ্যাম্পিয়ন সিমোনা

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫
চ্যাম্পিয়ন সিমোনা
  • শেনঝেন ওপেনের শিরোপা হাতে রোমানিয়ার সিমোনা হ্যালেপ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চীনের শেনঝেন ওপেনে শিরোপা জয়ের ফেবারিট ছিলেন সিমোনা হ্যালেপ। কারণ এ ডব্লিউটিএ আসরে তিনিই শীর্ষ বাছাই। সেটার কোন ব্যতিক্রম ঘটেনি। শনিবার ফাইনালে তিনি সহজ জয় তুলে নিয়ে জিতেছেন শিরোপা। প্রতিপক্ষ সুইজারল্যান্ডের টিমিয়া ব্যাসিনস্কি কোন ধরনের প্রতিদ্বন্দ্বিতাই গড়ে তুলতে পারেননি। তাকে সরাসরি ৬-২, ৬-২ সেটে হারিয়েছেন হ্যালেপ মাত্র ৬২ মিনিটের সংক্ষিপ্ত লড়াইয়ে। নতুন বছরটা তাই রোমানিয়ার এ তারকা বেশ ভালভাবেই শুরু করলেন শিরোপা জয় দিয়ে। এটি তার ক্যারিয়ারের নবম ডব্লিউটিএ শিরোপা। বর্তমানে ডব্লিউটিএ র‌্যাঙ্কিংয়ে তিন নম্বরে অবস্থান করছেন হ্যালেপ। শেনঝেনে তিনিই শীর্ষ বাছাই হিসেবে অংশ নেন। ফাইনালে তেমন বড় ধরনের কোন বাধা ছাড়াই পা রেখেছিলেন। তার তুলনায় ফাইনালের প্রতিপক্ষ হিসেবে টিমিয়া অনেকটাই দুর্বলতর। কারণ বিশ্বের ৪৭ নম্বর তারকা এ আসরে অষ্টম বাছাই হিসেবে অংশ নেয়ার সুযোগ পেয়েছেন। ৫ লাখ মার্কিন ডলারের এ আসরে শুরু থেকেই অন্যতম ফেবারিট হ্যালেপ কোন সুযোগই দেননি টিমিয়াকে। তবে সহজ জয়ের পরও হ্যালেপ বলেন, ‘ম্যাচের আগে আমি তেমন ভাল বোধ করছিলাম না। কিছুটা অসুস্থ ছিলাম। সে জন্য আমি নিজেকেই বুঝাচ্ছিলাম যে হারানোর কিছুই নেই এখানে। ধীরস্থিরভাবে কোর্টে যাও, মাথা ঠা-া রাখ, মনোযোগী হও এবং অন্তত প্রতিটি পয়েন্টের জন্য লড়। আর নিজেকে দেয়া এই প্রবোধটাই বেশ কার্যকর হলো এবং আমি সত্যিই অনেক স্বাভাবিক থাকতে পেরেছি। আমি অত্যন্ত খুশি যে আমি দিনকে দিন ভাল খেলতে পারি এবং এখানে প্রতি ম্যাচেই আমার উন্নতি হয়েছে।’ এখানেই থেমে থাকতে চান না হ্যালেপ। এবার পরবর্তী টুর্নামেন্টগুলোর দিকে নজর দিতে চান। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এখন আজ যেমন খেলেছি সেভাবেই খেলা চালিয়ে যাওয়ার দিকে মনোযোগী হব। পরবর্তী টুর্নামেন্টেও আমি এমনটা খেলতে চাই। এমনকি প্রত্যাশা করছি এরচেয়েও ভাল করার।’ হারলেও টিমিয়া দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছেন এবার। ২০১০ সালের পর প্রথমবার কোন ডব্লিউটিএ ফাইনালে উঠেছেন দুটি উইম্বল্ডন জয়ী চেক তারকা পেত্রা কেভিতোভাবে সেমিতে হারিয়ে। তিনি বিশ্বের চতুর্থ র‌্যাঙ্কিংধারী আর আসরের দ্বিতীয় বাছাই ছিলেন।

সাবেক তারকা কামালের প্রত্যাশা

ওয়ার্ল্ড হকি লীগ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ওয়ার্ল্ড হকি লীগ রাউন্ড-২ কে সামনে রেখে ১৮ সদস্যের ঘোষিত বাংলাদেশ জাতীয় হকি দল ভাল করবে। সেই সঙ্গে নতুন অধিনায়ক ও প্রায় এক বছর বাদে দলে ফেরা জিমি, রানা ও পিন্টুকে নিয়ে দলের শক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মনে করেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়করা।

ওয়ার্ল্ড হকি লীগে গতবার অনুষ্ঠিত সেই আসরে চীনকে ৪-২ গোলে হারিয়েছিল লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। কিন্তু রাউন্ড ওয়ানের বাধা টপকাতে পারলেও সেবার রাউন্ড টু’য়ের বাধা টপকাতে পারেনি জিমি-চয়নরা।

এবার সেই আক্ষেপ ঘোচাতে চায় বাংলাদেশ। গ্রুপের মারপ্যাঁচে সেমিফাইনাল খেলারও হাতছানি কৃষ্ণ-মিমোদের সামনে।

বাংলাদেশ জাতীয় হকি দলের সাবেক অধিনায়ক রফিকুল ইসলাম কামাল বলেন, ‘তরুণ এবং অভিজ্ঞতার সমন্বয়ে দলটি করা হয়েছে, সেক্ষেত্রে আমি এ দলটি নিয়ে আশাবাদী। যারাই দলে এসেছেন তারাই যোগ্যতার বলেই এসেছেন, হকিতে অধিনায়কের ভূমিকা অত বড় নয়।’

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

১১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: