কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

এবার খোদ অমিত শাহ্্ই বললেন ফোনালাপ হয়নি

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে টেলিফোন করার বিষয়ে এবার খোদ অমিত শাহই জানালেন, বেগম খালেদা জিয়াকে তিনি কোন টেলিফোন করেননি। তাঁর সাথে কোন কথাও হয়নি। টেলিফোনে কথা বলার বিষয়টি পুরোটাই মিথ্যা সংবাদ বলে জানিয়েছেন ভারতের বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ্। শনিবার ঢাকার একাধিক গণমাধ্যমে টেলিফোনে তার এ কথা প্রচার করা হয়।

এদিকে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ সরাসরি এ তথ্য জানানোর পরে শনিবারও বিএনপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয় বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বিজেপি সভাপতির টেলিফোন আলাপ হয়েছে।

শনিবার টিভি চ্যানেল একাত্তর ও চ্যানেল টুয়েন্টি ফোরকে টেলিফোনে অমিত শাহ বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে টেলিফোনে কোন আলাপ হয়নি। টেলিফোনের আলাপের খবরটি মিথ্যা ঘটনা। টিভি চ্যানেলে অমিত শাহ বলেন, ‘আমি ফোন করিনি। এটি পুরোটাই মিথ্যা। আমি বাইরে কোন ফোন করিনি।’

৫ জানুয়ারি নির্বাচনের প্রথম বর্ষপূর্তিতে বিএনপির পক্ষ থেকে অবরোধ কর্মসূচী দেয়া হয়। এই অবরোধ কর্মসূচী চলাকালে বুধবার রাত সাড়ে দশটায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ ফোন করেন বলে বিএনপির পক্ষ থেকে খবর প্রকাশ করা হয়। বিএনপি চেয়ারপার্সনের প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান সে সময় জানিয়েছিলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে ভারতের বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ টেলিফোন করেছেন। অমিত শাহ টেলিফোনে বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ খবর নিয়েছেন। এ বিষয়ে বিএনপির পক্ষ থেকে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। সেই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নিয়েছেন ভারতীয় জনতা দল (বিজেপি) সভাপতি অমিত শাহ। বুধবার রাতে তিনি ফোনে খালেদা জিয়ার সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তাঁর আশু সুস্থতা কামনা করেন। এমন সৌজন্য দেখানোর জন্য খালেদা জিয়া এই শীর্ষ বিজেপি নেতাকে ধন্যবাদ জানান। এছাড়া দেশ-বিদেশের আরও অনেকেই খালেদা জিয়াকে ফোন করে তার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।’

এ খবর গণমাধ্যমে প্রকাশের পর শুক্রবার বিএনপির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে দাবি করা হয়, ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ সরাসরি টেলিফোন করে গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নিয়েছেন। শুক্রবার ভারতের হাইকমিশন ও সংশ্লিষ্ট সূত্রকে উদ্ধৃত করে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফোন করার খবরটি ভুয়া বলে এ সংক্রান্ত যে সংবাদ প্রচারিত হয়েছে তাও অস্বীকার করে দলটি।

এদিকে শনিবারও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে ভারতের বিজেপির সভাপতি অমিত শাহের ফোনালাপ হয়েছে বলে পুনরায় দাবি করে বিএনপি। দলের যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জানান, বিজেপি প্রধান অমিত শাহ খালেদা জিয়াকে টেলিফোনে খোজখবর নিয়েছেন এটাই সত্যি। টেলিফোনে তাঁকে অবরুদ্ধ করে রাখার নিন্দা জানান। চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে পারি বিজেপি প্রধান খালেদা জিয়াকে টেলিফোন করেছিলেন বলে উল্লেখ করেন। শনিবার অজ্ঞাত স্থান থেকে কয়েকটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলের সামনে সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, অমিত শাহের টেলিফোন নিয়ে সরকার নানা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে মিথ্যাচারের মাধ্যমে অপপ্রচারে লিপ্ত হয়েছে তারা। এটি তাদের চূড়ান্ত হীনমন্যতারই বহিঃপ্রকাশ।

প্রকাশিত : ১১ জানুয়ারী ২০১৫

১১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: