কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পুঁজিবাজারে সূচকের উর্ধগতি

প্রকাশিত : ৯ জানুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সকালে পতন দিয়ে শুরু হলেও বিকেলে সূচকের উত্থান দিয়ে দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন শেষ হয়েছে। বেশিরভাগ কোম্পানির দিনে তালিকাভুক্ত ব্যাংক, ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বস্ত্র খাতের কিছু কোম্পানির দর বাড়ায় এ দিনে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কিছুটা কমেছে। চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতার মাঝেও তালিকাভুক্ত শেয়ারগুলোর দর আগের তুলনায় অনেকগুণ কমে যাওয়ার কারণে অনেকেই শেয়ারের ক্রয়াদেশ বাড়াচ্ছেন। এরই প্রতিফলন ঘটছে শেয়ার বাজারে। ফলে শুরুতে বিক্রির চাপ থাকলেও শেষ পর্যন্ত শেয়ার কেনার চাপ বেড়েছে।

ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে জানা গেছে, এ দিন দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ডিএসইএক্স সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৯৬৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। অন্যান্য সূচক দুটি কিছুটা কমেছে। এছাড়া ডিএস-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৮৫৪ পয়েন্টে এবং ডিএসইএস সূচক ১ পয়েন্ট কমে এক হাজার ১৮১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৫৪টির, কমেছে ১০৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টির দাম। এদিকে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে মোট ২৯৪ কোটি ২৯ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবস বুধবার লেনদেন হয়েছিল মোট ২৯৭ কোটি ৮৩ লাখ টাকা।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, খাতভিত্তিক লেনদেনের সেরা স্থান দখল করে তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৪২ কোটি টাকা। যা মোট লেনদেনের ১৫ ভাগ। দ্বিতীয় স্থানটি দখল করেছে ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের ৩৫ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১২ দশমিক ৭৩ ভাগ। তৃতীয় অবস্থানে ছিল জ্বালানি এবং শক্তি খাতের কোম্পানিগুলো। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ ৩৪ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১২ দশমিক ১৫ ভাগ।

ডিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, আইডিএলসি, অগ্নি সিস্টেম, অলটে আরএসআরএম স্টিল, ডেসকো, স্কয়ার ফার্মা, গ্রামীণফোন, অলিম্পিক ও সাইফ পাওয়ার টেক।

দর বৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ঢাকা ডায়িং, অলটেক্স, মিথুন নিটিং, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, অ্যাপেক্স স্পিনিং, অগ্নি সিস্টেম, আইসিবি ১ম এনআরবি, গ্রামীণ স্কিম ১, ফু-ওয়াং সিরামিক ও ডিবিএইচ।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : নদার্ন জুটস, অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স, স্যান্ডার্ড সিরামিক, শ্যামপুর সুগার মিল, ন্যাশনাল টি, বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক, আরএসআরএম স্টিল, সাভার রিফ্যাক্টরীজ, খান ব্রাদার্স ও মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ওয়েবসাইট সূত্রে জানা গেছে, এ দিন সিএসইর সিএসসিএক্স সূচক ৩৮ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ২৩০ পয়েন্টে অবস্থান করে। এ ছাড়া সিএসই-৩০ সূচক ৬২ পয়েন্ট বেড়ে ১২ হাজার ৩৩৫ পয়েন্টে এবং সিএএসপিআই সূচক ৪৫ পয়েন্ট বেড়ে ১৫ হাজার ২৬৪ পয়েন্টে দাঁড়ায়। সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৩৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৬টির, কমেছে ৮৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির দাম। লেনদেন হয় মোট ২৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল মোট ৩৪ কোটি ৯১ লাখ টাকা।

সিএসইর দর বৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো, অলটেক্স, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, অলিম্পিক, আইডিএলসি, সামিট পোর্ট এলায়েন্স লিমিটেড, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, সাইফ পাওয়ার টেক ও হামিদ ফেব্রিক্স।

প্রকাশিত : ৯ জানুয়ারী ২০১৫

০৯/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: