মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সীতার অগ্নিপরীক্ষা

প্রকাশিত : ৮ জানুয়ারী ২০১৫
  • অপূর্ব কুমার কুণ্ডু

দশ টাকার নোট মানেই একশত টাকা না যদিও দশটি দশ টাকা মিললে একশত টাকা। তেমনি অগ্নিস্ফুলিঙ্গ মানেই অগ্নিদাহ না যদিও অসংখ্য অগ্নিস্ফুলিঙ্গের সহাবস্থানে অগ্নির দাহিকা। আবার কাস্টমস অফিসারের চোখ ডিঙ্গিয়ে স্বর্ণ চোরাচালান, চোরাকারবারির জন্যে অগ্নিপরীক্ষা যে অর্থে সে অর্থে অগ্নিপ্রজ্বলন করে স্বর্ণকে গলিয়ে খাদমুক্ত করা স্বর্ণকারের জন্যে অগ্নি পরীক্ষা না। একই অগ্নিপরীক্ষা দৃষ্টি ভঙ্গির অদল-বদলে ভিন্ন অর্থ নিয়ে আসে। খাদ খোঁজা অপরাধ জ্ঞান আর খাঁটি আবিষ্কার বিজ্ঞান। জ্ঞান-বিজ্ঞান এবং বিভ্রমের সমাহারে নাট্যকার সাইমন জাকারিয়ার নাটক সীতার অগ্নিপরীক্ষা। সীতার জীবনের পাঁচের অধিক পরীক্ষা পৃথক পৃথকভাবে অগ্নিপরীক্ষা আবার সকল পরীক্ষা মিলেমিশেই সামগ্রিক অর্থে সীতার অগ্নিপরীক্ষা। নাট্যকার সাইমন জাকারিয়া রচিত, অভিনেত্রী-নির্দেশক নাজনীন হাসান চুমকী একক অভিনীত-নির্দেশিত এবং সাধনা প্রযোজিত নাটক সীতার অগ্নিপরীক্ষা মঞ্চস্থ হলো গত ১৯ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটম-লে। নাটম-লে নাট্যকার সাইমন জাকারিয়ার নাটকে কথকের মধ্যে দিয়ে সীতার অবির্ভাব। সীতার সয়ম্বর সভায় রামচন্দ্রের পিতা দশরথের একই পরিবারের চার কন্যার সঙ্গে নিজ চার পুত্রের বিবাহের শর্ত প্রথম অগ্নিপরীক্ষা সীতার জন্যে। নিজ পরিবার আত্মীয়স্বজন বিসর্জন দিয়ে সীতার শ্বশুরবাড়ি গমনের টানা পোড়েন দ্বিতীয় পরীক্ষা। পিতৃসত্য পালনের জন্য রামের বনে গমনে স্বামীকে নিসঙ্গ না করে স্বামীর সহযাত্রী হবার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করা তৃতীয় পরীক্ষা। অশোক বনে আগ্রাসী রাবনের হাত থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারা চতুর্থ পরীক্ষা। প্রত্যর্পণ পর্বে নিজস্ব সতীত্ব প্রমাণের জন্য সীতার অগ্নিপরীক্ষা পঞ্চম তথা চূড়ান্ত পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে মহাকবি বাল্মিকীর মহাকাব্য রামায়ন অবলম্বন সাইমন জাকারিয়ার নিজস্ব দৃষ্টি ভঙ্গিমার নাটক সীতার অগ্নিপরীক্ষা।

পরীক্ষা-নিরীক্ষার নামে নিজের কর্মের মূল্যায়ন নিজেই করে ফেলার দোদুল্যমান সময়ে নাট্যকারের প্রথম দক্ষতা, কথক-সীতা হয়ে নানান চরিত্রের মাঝে প্রবেশ-অবস্থান এবং প্রস্থানে কোন রকম ঝাঁকুনি না রাখা। দ্বিতীয় দক্ষতা, সম্পূর্ণ মহাকাব্য আত্মস্থ করে তবেই নাটকটি লিখতে পারা। তৃতীয় দক্ষতা, অসংখ্য চরিত্রের মুখে সীমিত সংলাপ বসিয়ে ঘটনার ঘনঘটা ঘটিয়ে নাট্যকারের মূল বক্তব্য বলতে পারা। নাটকটির সীমাবদ্ধতা দুটি জায়গায়। এক, লঘু এবং গুরুকে এক ছাঁচে ফেলা। সীতার অগ্নিপরীক্ষা বিষয়টিই যেখানে মহাকাব্যের সূত্রে বটবৃক্ষ সেখানে দশরথের শর্ত কিম্বা পিতৃগৃহ ছাড়বার মতো দুর্বারূপী বিষয়কে এক করে ফেলা। সব লতা-গুল্ম নিয়েই বন, তার মানেই আগাছা মানে গাছ না। দুই, সীতার চূড়ান্ত অগ্নিপরীক্ষা জন্যে এককভাবে একমাত্র স্বামী রামচন্দ্রকে নির্মমভাবে দোষী সাব্যস্ত করা। নাট্যকার নিশ্চই বিশ্বাস করেন, স্বামী রাজা উইন্ডসর স্ত্রীর হাত ধরে রাজ্য ছাড়তে পেরেছিলেন কারণ সেখানকার জীবন ব্যবস্থা ব্যক্তি কেন্দ্রিক। আর রাজা রামচন্দ্র স্ত্রী সীতার অগ্নিপরীক্ষা দেখতে বাধ্য হয়েছিলেন কারণ সেখানকার জীবন ব্যবস্থা সমাজ কেন্দ্রিক। সমাজ কেন্দ্রিক জীবন ব্যবস্থায় রাজা বাধ্য প্রজার চাওয়াকে মূল্যয়ন করতে। নিকট অতীতে, কোন মৃত স্বামীই বলত না স্ত্রী তুমি চিতায় ওঠ। সামাজিক চাপই বাধ্য করত সহমরণের চিতা জ্বালাতে। জ্বালাতে বসে খড়-কুটো-দেশলাই আয়োজনের চক্করে পড়ে নির্দেশনার কাজটাই যখন নিভু নিভু তখন নাজনীন হাসান চুমকীর নির্দেশনা সীমিত, প্রয়োজনীয় এবং যথোপযুক্ত। বাদক দলের ভাব তরঙ্গ, গায়কদলের মরমী গান, মঞ্চ সজ্জায় আড়াল-আবডাল, পোশাকে মহাকাব্যিক আচ্ছাদন, প্রপস সহযোগে দৃশ্ব্যের বিনির্মাণ, একক অভিনয়ে বহুধা চরিত্র চিত্রন, আলোক ছটায় উত্থান-পতন প্রভৃতি বিনির্মাণে নির্দেশক চুমকী নিজের ব্যক্তিসত্তার মতোই তেজঃদীপ্ত এবং গন্তব্য অভিমুখে বহমান। নির্দেশনায় সীমাবদ্ধতা বলতে, নাটকের নাম চরিত্র সীতার কোমলতার ঘাটতি। দ্রোপদী নাম উচ্চারণে যেমন জটিল কূটনীতির ঘ্রাণ তেমনি সীতার নাম উচ্চারণে ত্যাগের ঘ্রাণ। ত্যাগ দাঁড়িয়ে থাকে বিনয়ের আচ্ছাদনে। আচ্ছাদনে কিংবা প্রকাশ্যে কিছু নাটক অভিনেতা-অভিনেত্রীকে চিনিয়ে দেয় আবার কিছু অভিনেতা-অভিনেত্রী (উদাহরন : ফেরদৌসী মজুমদার, হুমায়ুন ফরিদী) নাট্যকারের নাটককে চিনিয়ে দেয়। অনেকটা সেভাবে অভিনেত্রী নাজনীন হাসান চুমকীর অভিনয় মহাকাব্য রামায়নকেই জীবন্ত করে তোলে। রাবন রাজার বীরত্ব, মন্ধোদরীর সতীন জিজ্ঞাংসা, বিভীষণের অধীনতা, সরমার সুহৃদ্যতা, লক্ষণের চঞ্চলতা, দশরথের আমিত্ব, জনকরাজের অসহায়ত্ব, রামচন্দ্রের বিভর্ৎসতা (নাটক অনুসারে), সীতার ব্যকুলতা-ভীতি-আত্মস্থাঘা প্রভৃতি চরিত্র চিত্রায়নে নাজনীন হাসান চুমকী নান্দনিক, প্রাণবন্ত এবং ক্রমান্বয়ে উত্তরণ ঘটাতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। নিষ্পেষণের প্রতিবাদে তেজঃদীপ্ত প্রযোজনা নাটক সীতার অগ্নিপরীক্ষা।

প্রকাশিত : ৮ জানুয়ারী ২০১৫

০৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: