রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ব্রিসবেনে শারাপোভা ও কারবারের জয়

প্রকাশিত : ৮ জানুয়ারী ২০১৫
ব্রিসবেনে শারাপোভা ও কারবারের জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দোড়গোরায় মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। বিশ্ব টেনিসের সব ফেবারিট তারকারাই এখন বছরের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম জয় করার জন্য প্রস্তুতিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। সেই তালিকায় রয়েছেন রাশিয়ান গ্ল্যামারগার্ল মারিয়া শারাপোভাও। শীর্ষ বাছাই হিসেবে মারিয়া শারাপোভা ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্টে খেলছেন। আর এই ইভেন্টে জয় দিয়েই যাত্রা শুরু করেছেন তিনি। মঙ্গলবার টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় পর্বে তিনি পরাজিত করেন কাজাখস্তানের ইয়ারোসøাভা সভেদোভাকে। এদিন টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা মারিয়া শারাপোভা ৬-০, ৬-১ গেমে পরাজিত করেন সভেদোভাকে। ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় পর্বে শারাপোভা ছাড়াও জয়ের দেখা পেয়েছেন জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবার। জার্মান তারকা ৬-৩ এবং ৭-৫ গেমে হারান রাশিয়ার দারিয়া গাবরিলোভাকে।

গত মৌসুমটা বেশ ভালই কেটেছে মারিয়া শারাপোভার। পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতা রক্ষা করার লক্ষ্য নিয়েই নতুন মৌসুমে মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো কোর্টে নেমেছিলেন তিনি। আর বছরের প্রথম ম্যাচেই জয়ের দেখা পান বর্তমান টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দুইয়ে থাকা মারিয়া শারাপোভা। দ্বিতীয় পর্বে কাজাখস্তানের ইয়ারোসøাভা সভেদোভাকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালও নিশ্চিত করেন তিনি। রাশিয়ান গ্ল্যামারগার্ল মারিয়া শারাপোভা শেষ আটে মুখোমুখি হতে পারেন স্পেনের কার্লা সুয়ারেজ কিংবা ক্রোয়েশিয়ার মিরিয়ানা লুচিচের।

বছরের শুরুতেই দুর্দান্ত পারফর্মেন্সে উপহার দিয়েছেন মারিয়া শারাপোভা। নিজের পারফর্মেন্সে সন্তুষ্ট প্রকাশ করেছেন তিনি। এ বিষয়ে ২৭ বছর বয়সী এই টেনিস তারকা বলেন, ‘কয়েক মাস পর কোর্টে ফিরে আমি নিজেকে দারুণ সুখী মনে করছি। এই সময়ের মধ্যে আমি কেবল অনুশীলনই করেছি। ম্যাচের অনুভব পাওয়ার জন্য এমন কোন কোর্টে খেলতে নামিনি। এ কারণেই আমি শুরুটা দারুণভাবে করতে চেয়েছিলাম। চেষ্টা করছিলাম সবচেয়ে ভাল কিছু করার। আর আমি তা পেরেছিও।’ ২০০৮ সালে মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন শারাপোভা। কিন্তু এর পরের বছরগুলো এই ইভেন্টে হতাশায় কেটেছে তার। তাই এবার নিজেকে স্বরূপে ফেরাতে চান রুশ সুন্দরী। মূলত অস্ট্রেলিয়া ওপেন জয়ের লক্ষ্যেই তিনি প্রস্তুতি নিচ্ছেন এবার।

ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনালে মেয়েদের এককে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছেন, জার্মান তরুণী তারকা এ্যাঞ্জেলিক কারবার। ইউক্রেনের এলিনা সভিতোলিনা এবং যুক্তরাষ্ট্রের বারবারা। এ্যাঞ্জেলিক কারবার দ্বিতীয় রাউন্ডে রাশিয়ার গাবরিলোভাকে ৬-৩, ৬-২ গেমে হারিয়েছেন। মাত্র তিন বছর বয়সেই টেনিস খেলতে শুরু করেছিলেন এ্যাঞ্জেলিক কারবার। কিন্তু কোর্টে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি সে সময়। ২০০৩ সালে এসে প্রথমবারের মতো জুনিয়র টুর্নামেন্ট জয়ের স্বাদ পান এই জার্মান খেলোয়াড়। গত চার বছর ধরে টেনিসের বিশ্ব মঞ্চে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ পান এ্যাঞ্জেলিক কারবার। ২০১১ সালে প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে উঠার রেকর্ড গড়েন তিনি। এরপরের বছর আরও একধাপ এগিয়ে আসেন এই জার্মান খেলোয়াড়। ফ্রেঞ্চ ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনাল ও উইম্বল্ডনের শেষ চারের টিকেট নিশ্চিত করেন তিনি। এবারও ব্যর্থ হন শিরোপার দেখা পেতে। তবে ২০১২ সালের অক্টোবরে প্রথমবারের মতো বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে পাঁচে জায়গা করে নিতে সক্ষম হন এ্যাঞ্জেলিক কারবার। ২০১৩ এবং ১৪ সালেও নিষ্প্রভ কাটে তার। সাফল্য কেবল অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের চতুর্থ পর্বের টিকেট। কিন্তু তারপরও কখনই হতাশ হননি তিনি। ধৈর্য ধরে টেনিস কোর্টে নিজের সেরাটা ঢেলে দেয়ার প্রত্যাশায় বারবারই সচেষ্ট ছিলেন এ্যাঞ্জেলিক কারবার। আর এ কারণেই চলতি মৌসুমে তার সামনে দারুণ এক সুযোগ আসে। দীর্ঘদিন পর জার্মানিকে ফেড কাপের শিরোপা জেতানোর। ১৯৯২ সালে সর্বশেষবার ফেড কাপের শিরোপা জিতেছিল জার্মানি। সেবার টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি স্টেফিগ্রাফ এবং আঙ্কে হুবারের জার্মানি হারিয়ে দিয়েছিল স্পেনকে। আর পেটকোভিচ-কারবারদের সামনে প্রতিপক্ষ ছিল চেকপ্রজাতন্ত্র। যারা গত কয়েক বছর ধরেই ফেড কাপে এককভাবে রাজত্ব করছে। দীর্ঘদিন পর ফেড কাপের ফাইনালে ওঠার পরই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন কারবার।

প্রকাশিত : ৮ জানুয়ারী ২০১৫

০৮/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: