মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

শ্যালা নদী দিয়ে আজ থেকে নৌযান চলবে

প্রকাশিত : ৭ জানুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মংলা-ঘষিয়াখালি চ্যানেলের খনন কাজ সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত আজ সকাল থেকে শ্যালা নদী দিয়ে নিয়ন্ত্রিত উপায়ে সাময়িকভাবে নৌযান চলাচলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়। সেই সঙ্গে এ নদী দিয়ে রাতে কোন নৌযান চলাচল করতে পারবে না। নৌযানগুলো দিনের বেলায় সুন্দরবন এলাকার শ্যালা নদী অতিক্রম করতে হবে। তবে কুয়াশা ও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় দিনের বেলায়ও শ্যালা নদীতে নৌযান চলাচল করতে পারবে না। তেলবাহী জাহাজ চলাচল আপাতত বন্ধ থাকবে। সোমবার শ্যালা নদীতে নৌযান চলাচল বন্ধ থাকায় উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় এসব সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে পরিবেশমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব শফিক আলম মেহেদী, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ নজিবুর রহমান, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম, মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়াল এডমিরাল রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান ড. মোঃ শামছুদ্দোহা খন্দকার, সমুদ্র পরিবহন অধিদফতরের মহাপরিচালক কমোডর এম জাকিউর রহমান ভূইয়া, প্রধান বন সংরক্ষক মোঃ ইউনুস আলী, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মহাপরিচালক কবির বিন আনোয়ার, পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক মোঃ রইছউল আলম মন্ডল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, মংলা-ঘষিয়াখালি চ্যানেলের খনন কাজ জুন মাসের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে। সুন্দরবন এলাকায় শ্যালা নদী দিয়ে জাহাজ চলাচলের ক্ষেত্রে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার জন্য কোস্টগার্ড দায়িত্ব পালন করবে। কোস্টগার্ডকে সহায়তা করবে বিআইডব্লিউটিএ, বন বিভাগ, মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ ও সমুদ্র পরিবহন অধিদফতর।

প্রকাশিত : ৭ জানুয়ারী ২০১৫

০৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: