রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গোয়েন্দা তথ্য ছিল এক নেত্রীকে হত্যা করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা হবে ॥ নাসিম

প্রকাশিত : ৭ জানুয়ারী ২০১৫

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, আমাদের কাছে গোয়েন্দা সংস্থার তথ্য ছিল একজন নেত্রীকে হত্যা করে দেশে বিশৃঙ্খলা ও গৃহযুদ্ধ সৃষ্টি করা হতে পারে। যেভাবে শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য ভারত থেকে একজন খুনীকে ভাড়া করা হয়েছিল। তাই খালেদা জিয়াকে রক্ষা করার জন্যই ৫ জানুয়ারি তাঁর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছিল। বিরোধী দলের হলেও একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব সরকারের। তাঁর কোন ক্ষতি হলে তার দায় তো আমাদের ওপরই এসে পড়বে।

মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অপরাজেয় বাংলা সংলগ্ন বটতলায় ছাত্রলীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘স্বেচ্ছায় রক্তদান’ কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, দেশে গণতন্ত্র আছে এবং থাকবে। তবে যারা স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি করে, মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে কথা বলে এবং পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করে তাদের জন্য গণতন্ত্র থাকা উচিত নয়। খালেদা জিয়ার সব শক্তি শেষ হয়ে গেছে। এখন উনি যা করছেন তা শুধু পরাজিত শক্তির আর্তনাদ ছাড়া আর কিছুই নয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়াকে দেখে আমার কষ্ট হয়। একজন সেনাপ্রধান তখনই মাঠে নামে, যখন তার সব সৈনিক মারা যায়। খালেদা জিয়ারও একই অবস্থা হয়েছে। তার পাশে একজন নেতাকেও দেখা যায় না। দেশের কোথাও অবরোধ হচ্ছে না জানিয়ে তিনি বলেন, খালেদার ডাকা অবরোধে সাড়া মেলেনি। দেশ আজ মুক্ত হয়ে গেছে। খালেদা জিয়ার ভুলের খেসারত জনগণ কেন দেবে?

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, খালেদা জিয়ার পাশে কেউ ছিল না, তাঁর দলের একজন নেতাও ছিল না। এজন্য তাঁর নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আপনার ডাকে কেন নেতারা নামে না? আপনি কেন একা লড়াই করছেন? একজন নেতা যদি ভুল করে তার জন্য সেই দলকে বছরের পর বছর খেসারত দিতে হয়। আন্দোলন করতে চাইলে পুলিশ, ব্যারিকেট, কাঁটাতার, এগুলো তো থাকবেই। ফুলের পাপড়ি তো সেখানে বিছানো থাকবে না।

বিএনপির প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, জাতির পিতাকে নিয়ে কটাক্ষ কখনোই সহ্য করা যায় না। পৃথিবীর এমন কোন দেশ নেই যেখানে জাতির পিতাকে নিয়ে এভাবে কটাক্ষ হয়। আর লন্ডনে বসে আমাদের দেশের একজন বেয়াদব এ কাজটি করছে। যতক্ষণ পর্যন্ত তারেক জিয়া বক্তব্যের জন্য ক্ষমা না চাইবে ততক্ষণ খালেদা জিয়াকে দেশের কোথাও সমাবেশ করতে দেয়া হবে না।

প্রকাশিত : ৭ জানুয়ারী ২০১৫

০৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: