আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

১০ জানুয়ারি বড় ধরনের শোডাউনের প্রস্তুতি আওয়ামী লীগের

প্রকাশিত : ৭ জানুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আগামী ১০ জানুয়ারি রাজধানীতে বড় ধরনের সাংগঠনিক শক্তির মহড়া দেবে শাসক দল আওয়ামী লীগ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ওই দিন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত জনসভাকে জনসমুদ্রে রূপ দিয়ে আরেকটি শোডাউনের সর্বাত্মক প্রস্তুতি চলছে দলটিতে। লাখো মানুষের ঢল নামিয়ে বিএনপি-জামায়াত জোটের আন্দোলনের হুমকির জবাব দিতে চায় দলটির নীতিনির্ধারকরা।

সমাবেশ সফল করতে কেন্দ্রীয় নেতারা প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন সহযোগী সংগঠন, মহানগর থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য এবং থানা ও ওয়ার্ডের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করছেন। মঙ্গলবারও কর্মসূচী সফল করতে ধানম-িতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই বর্ধিত সভাতেই ১০ জানুয়ারি মানুষের ঢল নামিয়ে রাজপথ দখলের বড় মহড়া প্রদর্শনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নেতারা।

সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, ১০ জানুয়ারি যে জনসভা হবে তা আমাদের আনন্দ ও বিজয়ের। জনসভাকে জনসমুদ্রে রূপান্তরিত করতে হবে। আওয়ামী লীগসহ মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সকলকে নিয়ে আমরা প্রমাণ করে দেব যে জাতির পিতা আদর্শ চিরঞ্জীব ও সমুন্নত। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করে যত বেশি লোক সমাগম ঘটানো যায় সেই দিকে লক্ষ্য রাখা হবে। নগরের প্রতিটি নেতা ও সংসদ সদস্যকে সাধ্যমতো দলের নেতাকর্মীদের জনসভায় উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে। পুরো ঢাকাকেই মিছিলের নগরীতে পরিণত করতে হবে।

নগরের সাধারণ সম্পাদক ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম বলেন, আমরা ১০ তারিখের সমাবেশকে জনসমুদ্রে পরিণত করব। খালেদা জিয়া একটু দেখুক, ১০ তারিখে আমরা তাঁকে আমরা সাংগঠনিক শক্তির সামান্য নমুনা দেখাতে চাই। আমরা প্রমাণ করব আমরা জনগণের দল। আজকে (মঙ্গলবার) কর্মীদের সমাগম দেখেই প্রমাণ হয় ১০ তারিখে লাখ লাখ মানুষের ঢল নামবে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ আজিজ বলেন, ১০ জানুয়ারি ঐতিহাসিক দিন, গুরুত্বপূর্ণ দিন। ওই দিন আপনারা রঙ-বেরঙের পতাকা নিয়ে প্রস্তুতি নিয়ে আসবেন।

এ সময় নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, ১০ জানুয়ারির সমাবেশকে জনসমুদ্রে রূপান্তর করা হবে। ৫ জানুয়ারি আমরা সরকারের এক বছরপূর্তি ঠিকমতো করতে পারিনি। যে আনন্দ আমরা করতে পারিনি, সেটা আমরা ১০ তারিখে করব।

এমএ আজিজের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, বজলুর রহমান, হাজী মোহাম্মদ সেলিম এমপি, শাহে আলম মুরাদ, এ্যাডভোকেট সানজিদা খানম এমপি প্রমুখ।

প্রকাশিত : ৭ জানুয়ারী ২০১৫

০৭/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: