আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভুলোমনা গ্রাম

প্রকাশিত : ৬ জানুয়ারী ২০১৫
ভুলোমনা গ্রাম

স্বামীর ভুলোমন স্বভাবের কারণে স্ত্রীকে প্রায়শই ভোগান্তিতে পড়তে হয়। এ কারণে ভুলোমনা স্বামীকে প্রায়শই স্ত্রীর বকুনি খেতে হয়। বৃদ্ধ বয়সে অনেকেই ভুলোমনা হয়ে পড়েন। দু’একজন অল্প বয়সেও ভুলোমনা হতে পারে। এগুলো স্বাভাবিক ঘটনা। পুরো একটি গ্রামের সবাই ভুলোমনা, এটা কিন্তু অস্বাভাবিক ব্যাপার। এই অস্বাভাবিক ব্যাপারটিই হয়েছে কলম্বিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের এন্টিয়োকুইয়ার পার্বত্যাঞ্চলে। এই গ্রামটির প্রাকৃতিক পরিবেশ এতই মনোমুগ্ধকর যে, মনে হবে এক স্বর্গরাজ্য। সবুজ শ্যামলে ঢাকা এই স্বর্গরাজ্য এখন ভুলোমনাদের রাজ্যে পরিণত হয়েছে। বৃৃদ্ধ, যুবক, শিশু সব বয়সের নারী, পুরুষ ভুলোমনা। এর কারণ আলঝেইমাস রোগ। এই রোগের বিভিন্ন পর্যায়ে আক্রান্ত হয়েছে গ্রামবাসী। বিভিন্ন বয়সে বিভিন্ন পর্যায়ে এই রোগ দানা বাঁধছে তাদের দেহে। মধ্য চল্লিশে এই রোগ এত ভয়াবহ আকার ধারণ করে যে অনেককেই মৃত্যুর কোলে ঢেলে পড়তে হয়।

বিষাক্ত প্রোটিন মস্তিষ্কের কোষগুলোকে নষ্ট করে দেয়। ফলে মানুষের স্মৃতিগুলো মুছে যেতে থাকে হৃদয়পট থেকে। এমনকি মৃত্যুকেও বরণ করে নিতে হয়। শিশু বয়সেই এই রোগের উপসর্গ দেখা যায়। এন্টিয়োকুইয়ায় এই রোগটি চলে আসছে বংশ পরম্পরায়। তিন শ’ বছর ধরে পুরুষানুক্রমিকভাবে রোগটিতে আক্রান্ত হচ্ছে গ্রামবাসী। অল্প বয়সেই সবাই হয়ে যাচ্ছে ভুলোমনা। এবং এক সময় মৃত্যুকে বরণ করে নিতে হচ্ছে। আলঝেইমাস রোগে আক্রান্ত বিশ্বের সবচেয়ে বড় জনগোষ্ঠী হিসেবে এই গ্রামবাসীকে বিবেচনা করা হচ্ছে।

-ওডিটি সেন্ট্রাল অবলম্বনে

আরিফুর সবুজ

প্রকাশিত : ৬ জানুয়ারী ২০১৫

০৬/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: