আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভারতের উজ্জ্বল টেস্ট ভবিষ্যত নিয়ে আশাবাদী শাস্ত্রী

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এবার অস্ট্রেলিয়া সফরে ভারতীয় ক্রিকেট দলের নৈপুণ্য আগের যেকোন বারের তুলনায় বেশ ভাল। যদিও চার টেস্টের সিরিজটা ইতোমধ্যেই ২-০ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে স্বাগতিক অসিরা। মেলবোর্নে তৃতীয় টেস্ট ড্র করার মাধ্যমে তা নিশ্চিত হয়েছে প্রথম দুই টেস্টেই অস্ট্রেলিয়া জয় তুলে নেয়াতে। সমানে-সমান লড়াই করেছে তিন টেস্টেই ভারতীয় দল। তবে মূল পার্থক্যটা ছিল দু’দলের বোলিং আক্রমণে। এমনটাই মনে করেন ভারতীয় দলের পরিচালক রবি শাস্ত্রী। শাস্ত্রীর মতে ভারতীয় দলে এখন এমন একটি বোলিং বিভাগ প্রয়োজন যারা নিয়মিত হারে প্রতিপক্ষের ২০ উইকেট তুলে নিতে পারবে। শাস্ত্রীর দাবি অস্ট্রেলিয়ার অভিজ্ঞ একটি বোলিং বিভাগ আছে। কিন্তু ভারতের সে রকম নেই বলেই চলতি সিরিজে পরাজয় বরণ করতে হয়েছে। সে জন্য এখন ভারতীয় দলের মনোযোগী হওয়া উচিত বোলিং বিভাগকে উন্নত করার দিকে। সিডনিতে মঙ্গলবার সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্টে মুখোমুখি হবে ভারত-অস্ট্রেলিয়া। নিয়মিত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি অবসর নিয়ে ফেলায় দলের নেতৃত্বে থাকছেন বিরাট কোহলি। প্রথম টেস্টে তিনি বেশ আক্রমণাত্মক মেজাজেই দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ইনজুরির কারণে ধোনির অনুপস্থিতিতে। সে ম্যাচে বিশাল টার্গেট তাড়া করেও জেতার পর্যায়ে চলে গিয়েছিল ভারতীয় দল। সে কারণে দলের পারফর্মেন্সকে যথেষ্ট ইতিবাচকভাবেই দেখছেন শাস্ত্রী। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে যেটুকু পার্থক্য আছে সেটা কাটিয়ে উঠতে এখন শুধু দলের বোলিং বিভাগে উন্নতির দিকে বিশেষ মনোযোগ দেয়া প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করেন শাস্ত্রী। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সামনে অনেক কঠোর পরিশ্রম করতে হবে এতে কোন সন্দেহ নেই। প্রাথমিকভাবে আমাদের পেতে হবে কিংবা তৈরি করে নিতে হবে এমন বোলিং বিভাগ যারা প্রতিপক্ষের ২০ উইকেট নিতে সক্ষম। তবে আমি অনেক বেশি আশাবাদী এ দলটিকে নিয়ে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি তা হচ্ছে আমরা আক্রমণাত্মক মেজাজের কিছু খেলোয়াড় পেয়েছি। আর এ জন্য গত ১২-১৫ মাসের পরিশ্রমটাই কার্যকর হয়েছে।’

তবে হুট করেই নিয়মিত অধিনায়ক ধোনি অবসর নিয়ে ফেলায় উন্নতির ধারাটা খানিকটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে মনে করেন শাস্ত্রী। তবে তিনি আশা করছেন নেতৃত্বে পরিবর্তন ক্রিকেটারদের মানসিকতায় তেমন প্রভাব ফেলবে না। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমার সময়ে আমি বেশ কয়েকজন অধিনায়কের অধীনে খেলেছি। তাঁদের কেউ এক রকম ছিলেন না। সব অধিনায়কেরই ভিন্ন ধরনের মানসিকতা থাকে। কিন্তু যিনি সেরা তিনি ঠিকই খেলোয়াড়দের মানসিকতা বুঝে সবার সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেন। বুঝতে পারেন দ্রুতই তাঁদের চিন্তাচেতনা এবং কৌশল।’ কোহলিকে নিয়ে দারুণ আশাবাদী শাস্ত্রী। তিনি মনে করেন খেলার ধরনে কিছু ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে তাঁর নেতৃত্বে ভারতীয় দলে। তিনি বলেন, ‘অনেকেরই ধারণা নেই ধোনির কোন কথা কতটা গ্রহণযোগ্য ছিল এবং কতটা মর্যাদা পেত। শুধু কোহলি নয়, দলের স্টাফরাও তাঁকে সম্মান করতেন। তবে কোহলি কিছুটা ব্যতিক্রম। তিনি অনেক বেশি আক্রমণাত্মক। তবে তিনি সবসময়ই যেকোন বিষয়ে সবার সঙ্গে আলোচনার জন্য প্রস্তুত থাকেন। মাত্র ২৬ বছর বয়সেই তিনি দলকে নেতৃত্ব দেয়ার জন্য যথেষ্ট যোগ্যতা অর্জন করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে সম্পূর্ণ তরুণ একটি দল যথেষ্ট ভাল কিছু করার মতো নিদর্শন ইতোমধ্যেই দেখিয়েছে। এখন যেটা প্রয়োজন তা হচ্ছে কোহলির নেতৃত্বে একটি গোছানো দল তৈরি করা।’

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫

০৪/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: