কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সাংহাইয়ের মর্মান্তিক ঘটনায় সরকারের ব্যর্থতা নিয়ে সমালোচনা

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫

চীনের রাষ্ট্রীয় প্রচার মাধ্যম ও সাধারণ নাগরিক ইংরেজী নববর্ষের প্রাক্কালে সাংহাই শহরে পদদলিত হয়ে ৩৬ ব্যক্তি নিহত হওয়ার ঘটনা রোধ করতে ব্যর্থ হওয়ায় সরকার ও পুলিশের সমালোচনা করেছে। এ ঘটনায় আধুনিক চীনের আর্থিক কেন্দ্রস্থল হিসাবে শহরটির সুনাম ক্ষুণœ হয়েছে। খবর সিডনি মর্নিং হেরাল্ডের। সরকারী বার্তা সংস্থা সিনহুয়া শুক্রবার বলেছে, যা ঘটেছে তার দায়দায়িত্ব সরকার এড়াতে পারে না। এতে প্রশ্ন করা হয় সাংহাইয়ের বিখ্যাত ও ঐতিহাসিক রিভারফ্রন্ট ‘বুন্দের’ দিকে এগিয়ে যাওয়া হাজার হাজার মানুষের নিরাপত্তার জন্য কেন এত স্বল্পসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হযেছিল এবং এটি সরকারের সতর্কতার অভাব বলে বার্তা সংস্থাটি মন্তব্য করে। সাংহাইয়ের অনেক বাসিন্দা সমালোচনার প্রতিধ্বনি করে সরকারের শৈথিল্যের নিন্দা করেন। বাসিন্দা তাং লিফেং (৩৮) বলেন, সেখানে যথেষ্ট পুলিশি প্রহরা ও পরিকল্পনা ছিল না।

সাংহাইয়ের মত বড় শহরে লোকজনের পদদলিত হওয়ার ঘটনা দেখা সত্যিই দুঃখজনক। এএফপি জানায়, চীনে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে নিহতদের স্মরণে সাংহাইয়ের সুপরিচিত ওয়ারটারফ্রন্টের সামনে শুক্রবার এক শোকসভার আয়োজন করা হয়। নগরীর গভর্নর জানিয়েছেন, নববর্ষের রাতের ওই মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় নিহত ৩৬ জনের অধিকাংশই যুবতী। ২০১০ সালে সাংহাইয়ের একটি আকাশচুম্বী আবাসিক ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকা-ে ৫৮ জনের মৃত্যুর ঘটনার পর নববর্ষের এই মর্মান্তিক ঘটনাটিই ছিল সবচেয়ে মর্মন্তুদ দুর্ঘটনা। শুক্রবার সকালে প্রায় ১০০ লোক সাংহাইয়ের প্রথম কমিউনিস্ট মেয়র চেন ই’র মূর্তির কাছে ওই দুর্ঘটনাস্থলে জমায়েত হয়। সেখানে সরকার অনুমোদিত সুনির্দিষ্ট স্থানে নিহতদের স্মরণে ফুল দিয়ে শোক প্রকাশ করা হয়।

প্রকাশিত : ৪ জানুয়ারী ২০১৫

০৪/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: