রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

গণগ্রন্থাগারে আট দিনের কল্পবিজ্ঞান বইমেলা শুরু

প্রকাশিত : ৩ জানুয়ারী ২০১৫
গণগ্রন্থাগারে আট দিনের কল্পবিজ্ঞান বইমেলা শুরু
  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভিন গ্রহের এলিয়েন নিটি এসে হাজির হয়েছে সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগার প্রাঙ্গণে। হাল্কা হলুদ শরীর ও নীল মুখাবয়বের প্রাণীটিকে দেখে শিশুসহ বড়রাও অভিভূত। তবে এটির জীবন নেই, প্রতীকী এলিয়েন। আর অতিথির সঙ্গে নিয়ে এলিয়েনটিকে দিয়েই উদ্বোধন করা হয় আট দিনের সায়েন্স ফিকশন বইমেলা। শুক্রবার পৌষের রোদেলা সকালে এভাবেই অভিনব পন্থায় শুরু হলো কল্পবিজ্ঞান বইমেলা। আট দিনব্যাপী এ মেলার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ সায়েন্স ফিকশন সোসাইটি (বিএসএফএস)। আজকের কল্পনা আগামীর বিজ্ঞান স্লোগানে বিজ্ঞানকেন্দ্রিক সৃজনশীল এই প্রতিষ্ঠানটির উদ্যোগে দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে কল্পবিজ্ঞান বইমেলা। গণগ্রন্থাগারের উন্মুক্ত চত্বরে আয়োজিত মেলায় অংশ নিচ্ছে কল্পবিজ্ঞানের বই প্রকাশ করে এমন ৩০টি প্রকাশনী। কল্পবিজ্ঞানের বৈচিত্র্যপূর্ণ ও মজার বিষয়ের ৫ শতাধিক বইয়ের সমাহার ঘটেছে মেলায়। তাই সূচনা দিনের সকাল থেকেই বিজ্ঞানপিপাসু পাঠকের আগমনে সরব হয়ে ওঠে বইয়ের এ আড়ং। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নন্দিত লেখক ও শিক্ষাবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মনোশিক্ষাবিদ ও কথাসাহিত্যিক মোহিত কামাল। স্বাগত বক্তব্য দেন বিএসএফএসের সভাপতি কল্পবিজ্ঞান লেখক মোশতাক আহমেদ। সভাপতিত্ব করেন গণগ্রন্থাগার অধিদফতরের মহাপরিচালক মোঃ হাফিজুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, প্রথম যখন বিএসএফের পক্ষ থেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় তখন মনে হয়েছিল, এটা শুধুই কিছু বিজ্ঞানবিষয়ক বইয়ের প্রদর্শনী হবে। এখানে এসে বুঝলাম এটা আসলে দেশব্যাপী বিজ্ঞানকে জনপ্রিয় করার একটি উদ্যোগ। আর আমি নিজেও অনেকদিন ধরে এই কাজটি করছি। এ প্রসঙ্গে নিজের মজার অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে বলেন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এসে জানাল, তারা ড্রোন তৈরি করবে। আমিও তাদের উৎসাহিত করলাম। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য কিছু টাকা-পয়সাও দিলাম। প্রথমদিকে তাদের নির্মিত ড্রোনটি অল্প একটু ওড়ার পরই আবার মাটিতে এসে পড়ে যেত। বার বারই একই রকম ঘটনা ঘটছিল। আমি তখন সৃষ্টিকর্তার কাছে অনেকবার প্রার্থনা করেছি যেন ড্রোনটি ঠিকমতো আকাশে উড়তে পারে। এক সময় দেখলাম ড্রোনটি ভালভাবেই আকাশে উড়ছে। এমনকি সম্প্রতি সুন্দরবনে ঘটে যাওয়া বিপর্যয়ের চিত্র নিরূপণেও ব্যবহৃত হয়েছে সেই ড্রোনটি। এর মাধ্যমে প্রমাণিত, এ ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়নে দেশে যথাযথ সুবিধা না থাকলেও আমাদের ছেলেমেয়েরা মেধাবী। সুযোগ পেলে তারা অনেক কিছুই করতে পারে। দেশে বিজ্ঞানচর্চার প্রতি আশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমি চাই সবার কাছে বিজ্ঞান ছড়িয়ে যাক। সবাই বিজ্ঞানমনস্ক হয়ে গড়ে উঠুক। তিনি আরও বলেন, কল্পবিজ্ঞান বিষয়ক বইমেলার পাশাপাশি ভবিষ্যতে যেন এ বিষয়ের চলচ্চিত্র নির্মাণেরও উদ্যোগ নেয় বিএসএফএস।

সভাপতির বক্তব্যে হাফিজুর রহমান বলেন, এ মেলার মাধ্যমে পাঠকসমাজ নতুন মাত্রার সন্ধান পাবে। শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞানের প্রতি আরও বেশি আকর্ষণ বোধ করবে। কারণ, নতুন প্রজন্ম এখন অনেক বেশি অনুসন্ধিৎসু ও আধুনিক। সঠিকভাবে তাদের পরিচর্যা করলে এগিয়ে যাবে দেশের বিজ্ঞান।

শুভেচ্ছা বক্তব্যে মোশতাক আহমেদ বিএসএফএসের উদ্দেশ্য, কার্যক্রম ও সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এই প্রতিষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্য সবাইকে বিজ্ঞানচর্চায় উৎসাহিত করা, বিজ্ঞান শিক্ষা বিস্তারে সহায়তা করা ও বিজ্ঞান বিনোদনের প্রসারে কার্যকর ভূমিকা রাখা। ভবিষ্যতে সায়েন্স ফিকশন ফেস্টিভ্যাল করার পাশাপাশি রোবট-এলিয়েন তৈরির প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে। এছাড়া দেশে একটি সায়েন্স সিটি স্থাপনেরও উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

জয়নুল-জসীম-আলমুতী জন্মোৎসব উদ্যাপন ॥ শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের ১০১তম, পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের ১১১তম এবং বিজ্ঞানী আবদুল্লাহ্ আল মুতীর ৮৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার সকালে কচিকাঁচা মিলনায়তনে সংস্কৃতি প্রতিযোগিতার পুরস্কার প্রদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

‘ওয়ান মাইল স্কয়ার’ ॥ শুক্রবার পুরনো ঢাকার ১৬টি স্থানে শুরু হলো ‘ওয়ান মাইল স্কয়ার’ শীর্ষক বিশেষ শিল্পকর্ম প্রদর্শনী। সকালে একযোগে শুরু হয় এই প্রদর্শনী। শিল্পীদের সংগঠন বৃত্ত আর্ট ট্রাস্টের আয়োজন ও নেদারল্যান্ডসের সংস্থা আর্টস কোলাবরেটরির সহায়তায় ১৬টি স্থানে ৪০ শিল্পী সারাদিন ধরে শিল্পকর্ম রচনা করেন।

দৃষ্টিপাতের নতুন প্রযোজনার উদ্বোধনী মঞ্চায়ন ॥ মঞ্চে এলো দৃষ্টিপাত নাট্য সংসদের নতুন প্রযোজনা কয়লা রঙের চাদর। নাটকটি রচনার পাশাপাশি নির্দেশনা দিয়েছেন ম. আঃ সালাম। শুক্রবার শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে প্রযোজনাটির উদ্বোধনী প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।

মঞ্চস্থ শব্দাবলী থিয়েটারের প্রযোজনা ফণা ॥ নতুন বছরের দিত্বীয় দিনে মঞ্চস্থ হলো শব্দাবলী গ্রুপ থিয়েটারের জনপ্রিয় প্রযোজনা ফণা। শিল্পকলা একাডেমির এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে শুক্রবার সন্ধ্যায় নাটকটির প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। শাহমান মৈশান রচিত দর্শক নন্দিত নাটকটির পরিকল্পনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন তরুণ নাট্যনির্দেশক সুদীপ চক্রবর্তী। আশিকুর রহমান লিয়নের পোশাক পরিকল্পনায় নাটকের প্রযোজনা অধিকর্তার দয়িত্বে ছিলেন নাট্যজন সৈয়দ দুলাল।

সামরিকতন্ত্র, যুদ্ধ, হিংসা ও মুক্তিপিপাসু মানুষের এক সমন্বিত আখ্যান ফণা। সংলাপ ও ভাষ্যের সংশ্লেষে নির্মিত নাটকে মানুষের মুক্তির তৃষা স্রেফ পশ্চিমের অধিপতিশীল পুঁজিবাদী মতাদর্শের চিকিৎসাপত্র মাফিক প্রতিফলিত হয়নি বরং সত্তার নিরবধি প্রবাহ ইতিহাসের পটভূমিকায় ঢেউ-চঞ্চল রূপ নিয়েছে। সামরিকবাদী চোখ দিয়ে দেখার বিপরীতে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের সত্যকে জনতার দৃষ্টিতে দেখার রাজনীতি ফণা হানে এই নাটকে।

প্রকাশিত : ৩ জানুয়ারী ২০১৫

০৩/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: