আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কোহলি-আগ্রাসন দেখতে মুখিয়ে জনসন

প্রকাশিত : ৩ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মহেন্দ্র সিং ধোনির টেস্ট-অবসর ঘিরে ভারতীয় ক্রিকেটে গত কয়েকদিন ওলট-পালট অবস্থা। আলোচনায় কেবলই বিশ্বজয়ী ‘ক্যাপ্টেন কুল’। ডামাডোলে অনেকটা যেন চাপা পড়ে গেছে নতুন অধিনায়ক প্রসঙ্গ। ধোনি থেকে বিরাট কোহলি যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে ভারত। নেতৃত্বের অভিষেক হয়ে গেছে এ্যাডিলেডে, কিন্তু ধোনির অবসরে এখন দায়িকত্বটা পুরোপুরিই চলে আসছে কোহলির কাঁধে। এক ম্যাচ হাতে রেখে ইতোমধ্যে সিরিজ খুইয়েছে দল। তবু মঙ্গলবার সিডনিতে শুরু হতে যাওয়া চতুর্থ ও শেষ টেস্ট ঘিরে বইছে অন্যরকম আবহ! প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়ার পেস তারকা মিচেল জনসন মনে করেন কোহলির নেতৃত্বে ভারত আরও আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলবে।

‘বিরাটের নেতৃত্বে ভারত আরও আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলবে। ওর মানসিকতা সম্পর্কে আমরা ভাল করেই জানি। চাইব অন্যদের মাঝে সেটা ছড়িয়ে পড়ুক। সুতরাং সিরিজ শেষ হয়ে গেলেও বিরাটের নেতৃত্বে অন্য ভারতকে দেখতে পাব। তবে ছেড়ে কথা বলব না। স্টিভেন স্মিথের অধীনে আমরাও সমান আগ্রাসী। এ্যাডিলেড থেকে ব্রিসবেন হয়ে মেলবোর্ন, গত তিন ম্যাচে ধারণাটা মন্দ নয়, সবাই জানে এই ভারতকে কিভাবে চাপে ফেলতে হয়। জয় দিয়ে নতুন বছর শুরু করতে মরিয়া সবাই। সিডনিতে লড়াইটা হবে দারুণ।’ আগেরবার অস্ট্রেলিয়া সফরে ৪-০তে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল ওয়ানডের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারত। সেবার এই সিডনি টেস্টেই দর্শকদের ‘মধ্যমা’ দেখিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তরুণ কোহলি।

মঙ্গলবার সেই বিরাট এবার একই ভেন্যুতে নামছেন পূর্ণাঙ্গ অধিনায়ক হিসেবে। ক্রেজি আচরণ, মেজাজ ও আগ্রাসনটা তার রক্তে, সেটা ভেতর বা বাইরে যেখানেই হোক। শচীন টেন্ডুলকর, রাহুল দ্রাবিড়, ভিভিএস লক্ষণরা অবসরে যাওয়ায় বর্তমান দলটির প্রায় সবাই তরুণ। শেষ দিকে চলে গেলেন ঠা-া মাথার ধোনিও। মাথা গরমের সমারোহে পরিস্থিতিটা যে কী হতে যাচ্ছে, তা দেখতে গোটা ক্রিকেটবিশ্বই মুখিয়ে! আর মাথা গরম কোহলির জন্য নাকি ‘সেøজিংয়ের-পসরা’ সাজিয়ে অপেক্ষা করছে অসিরা, খোদ কোচ ড্যারেল লেহম্যানই বলেছেন, তরুণ কোহলির ধৈর্যের পরীক্ষা নিতে চান তিনি! কোহলির জন্য স্পেশাল সেøজিং এখনও শুরু হয়নি বলে হুঙ্কার দিয়েছেন তিনি। বলেছেন, ‘কোহলির মাথাটা গরম, সেটা আমরা জানি। জানি বলেই সেই মাথাটাকে আরও গরম করে দিতে চাই, যাতে ব্যাট হাতে সে তার স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে না পারে!

ইনজুরিগ্রস্ত ধোনির অনুপস্থিতিতে এ্যাডিলেডের প্রথম টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হয় কোহলির। ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন তিনি। অল্পের জন্য দল হারলেও তার আগ্রাসী অধিনায়কত্ব ভূয়সী প্রসংশা কুড়ায়। উইকেটের পেছনে খুব কাছে থেকে দেখার অভিজ্ঞতা থেকে কোহলি সম্পর্কে অসি-উইকেটরক্ষক ব্র্যাড হ্যাডিনের মূল্যায়ন। ‘এ্যাডিলেডে-ব্রিসবেনেও উক্তপ্ত বাক্য বিনিময়ে একাধিকবার ঝামেলা হয়েছে। তাতে কোহলির ব্যাটিংয়ে কোন প্রভাব পড়েনি। কারণ ও প্রকৃতি প্রদত্ত ব্যাটসম্যান। যে কোন পরিস্থতিতে সেরটা দিতে সক্ষম। সঙ্গে আগ্রাসী মেজাজ ভারত দলে অন্যমাত্র যোগ করবে।’ পাশাপাশি অভিজ্ঞ এই উইটেকরক্ষক কথা বলেছেন সরে যাওয়া সেনাপতি ধোনিকে নিয়েও। ‘ধোনির যেটা সববেয়ে বড় গুণ, সেটা ওর টেম্পারমেন্ট। ম্যাচে পরিস্থিতি যাই হোক না কেন মাথা ঠা-া রাখতে পারে। এ জন্য ওর ক্যারিয়ারটা অসাধারণ।’ সিরিজে এগিয়ে থাকলেও দলকে সতর্ক বার্তা হ্যাডনের, ‘মেলবোর্নে একটুর জন্য ফয়সালা হয়নি। তার আগে দুটি ম্যাচেই তুমুল ফাইট দিয়েছে ভারত। সুতরাং সিডনিতে জয় দিয়ে বছর শুরু করতে আমাদের আরও ভাল খেলতে হবে।’ ওদিকে টেস্ট থেকে অবসর নেয়ায় শেষ ম্যাচে ধোনি দলের সঙ্গে থাকবেন কি না, তা নিয়ে ধূম্রজাল তৈরি হয়েছে। কারণ ত্রিদেশীয় ওয়ানডে ও বিশ্বকাপ শুরু হতে এখনও বেশ কিছুটা সময় বাকি। ধোনি না থাকায় এবার উইকেটের পেছনে জায়াগা পাকা করার সুযোগ ঋদ্ধিমান সাহার সামনে।

প্রকাশিত : ৩ জানুয়ারী ২০১৫

০৩/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: