মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে গতি ফিরেছে ॥ অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত : ২ জানুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন দলীয় স্বার্থে কোন ধরনের রাজনৈতিক অস্থিরতা সৃষ্টির আর সুযোগ নেই। এমন কিছু করার চেষ্টা করা হলে দেশের জনগণ তা প্রতিহত করবে। তিনি আরও বলেন, দেশে বর্তমান অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড অব্যাহত রয়েছে। আমাদের রফতানি বেড়েছে, রেমিটেন্স প্রবাহ বাড়ছে। সব মিলিয়ে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকা-ে গতি ফিরে এসেছে। এ অবস্থায় দেশের জনগণ কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা সহ্য করবে না।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সঙ্গে মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই) নবনির্বাচিত প্রতিনিধিরা সৌজন্য সাক্ষাত করলে এলে তিনি এসব কথা বলেন। ওই সময় দেশের চলমান রাজনৈতিক সঙ্কটাবস্থা থেকে উত্তরণে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৈঠক করারও আহ্বান জানিয়েছেন এমসিসিআই নেতারা। এমসিসিআইয়ের সভাপতি সৈয়দ নাসিম মঞ্জুরের নেতৃত্বে সংগঠনের ১৩ সদস্যের নবনির্বাচিত কমিটির সবাই ওই সময় উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে এমসিসিআইর ১১০ বছর উদযাপন উপলক্ষে প্রকাশিত একটি বই অর্থমন্ত্রীর হাতে তুলে দেয়া হয়।

দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে এমসিসিআই নেতারা বলেন, ২০১৩ সালের অবরোধ-হরতালে দেশের অর্থনীতির যে ক্ষতি হয়েছে সেই ক্ষতি এখনও পুরোপুরি কাটিয়ে উঠা সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় আগামী দিনগুলোতে গত ২০১৩ সালের পুনরাবৃত্তি যাতে না হয় সে জন্য সরকারী দলকেই কিছুটা ছাড় দিয়ে এগিয়ে আসতে হবে এবং বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নিতে হবে।

বৈঠকে এমসিসিআইর পক্ষ থেকে দেশের সামষ্টিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনায় সরকারের সফলতার কথা উল্লেখ করে বলা হয়, সামনের দিকে এগোতে হলে সরকারকে নয়টি চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে। এগুলো হচ্ছেÑ ‘ভিশন ২০২১’ অর্জনে ৮ থেকে ১০ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি অর্জন করা, অভ্যন্তরীণ ও বৈদেশিক বিনিয়োগ বাড়ানো, আর্থিক ঘাটতি মোকাবেলায় দ্রুত রফতানি পণ্য বাড়ানো, শক্তিশালী উৎপাদনমুখী খাত গড়ে তোলা, অবকাঠামো ঘাটতি দূর করা, আর্থিক সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ধীরগতি এবং আঞ্চলিক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখা।

ব্যবসায়ীরা এলএনজি গ্যাস বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, এলএনজি গ্যাস স্টেশন করতে পারলে ভাল হতো। এলএনজি গ্যাস আমদানি করতে পারলে আমাদের গ্যাসের চাহিদা মেটানো সহজ হতো। এজন্য একটি স্টেশন নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। কিন্তু প্রথমবার টেন্ডার করলেও তাতে কোন সাড়া মেলেনি। দ্বিতীয়বারের মতো টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ২ জানুয়ারী ২০১৫

০২/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: