কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বছরজুড়ে কবিকণ্ঠে কবিতা

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

বছরভর কবি ও কবিতার সংগঠনগুলো নিয়মিতভাবেই কবিকণ্ঠে কবিতাপাঠের আয়োজন করেছিল। লক্ষণীয় হলো প্রাতিষ্ঠানিক বা সাংগঠনিকেভাবে আয়োজিত কবিতাসন্ধ্যার পাশাপাশি কোন কবিকে ঘিরে আড্ডায়, কিংবা কোন কবির বাসভবনে ঘরোয়াভাবে অথবা রাজধানীর কোন একটি এলাকাকে কেন্দ্র ধরে নিয়ে সেখানকার কবিদের একত্রিত করে কবিতাপাঠের আসর হয়েছে প্রচুর। দর্শনীর বিনিময়ে কবিতাসন্ধ্যা যেমন আয়োজিত হয়েছে, তেমনি আবার কবিতাসন্ধ্যায় কবিতা পাঠ করে কবিরা পেয়েছেন সম্মানী। সব মিলিয়ে কবিতার প্রায়োগিক পরিবেশনা বিচারে এ বছর অন্য যে কোন বছরের তুলনায় কবিতা পাঠের আয়োজন হয়েছে সংখ্যায় অনেক বেশি।

প্রতিবছরের মতোই এ বছরেও অসংখ্য কবির কলমে রচিত হয়েছে অজস্র সোনালি পঙ্ক্তিমালা।

বই প্রকাশের ফাল্গুন হলো ফেব্রুয়ারি। বাংলা একাডেমি চত্বরে মাসব্যাপী চলা বইমেলায় প্রকাশিত হয় সারাবছরে প্রকাশিত বইয়ের সিংহভাগ। কোন ব্যতিক্রম না মেনেই এ বছরও সবচেয়ে বেশি মুদ্রিত বইয়ের বিষয় কবিতাই। বইমেলায় কবিতার সেই সোনালি যৌবন না থাকলেও প্রতিবছর এই অলাভজনক চর্চায় মেতে উঠছেন একদল তরুণ, নিজের লেখা প্রথম গ্রন্থ নিয়ে হাজির হয়ে যাচ্ছেন বইমেলায়। বিক্রি কম হলেও কবিতার বইয়ের সংখ্যার কোন ঘাটতি নেই। কবিতা প্রকাশের আরেক মৌসুম হলো ঈদ। উপন্যাস, ছোটগল্প আর প্রবন্ধের পাশাপাশি প্রতিটি দৈনিকের ঈদসংখ্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে সংখ্যাতীত কবির কবিতা প্রকাশের মহোৎসব। প্রতিষ্ঠিত কবিদের কবিতাই বেশি প্রকাশিত হয় ঈদ সংখ্যায়। তবে এবার বহু তরুণের কবিতা প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন ঈদসংখ্যায়। অনেক দৈনিক সপ্তাহে সাহিত্যের জন্য নির্ধারিত ৪ পৃষ্ঠা বরাদ্দ দিতে না পারলেও ঢাউস ঈদসংখ্যা প্রকাশে ক্লান্তিহীন।

প্রতিবছরের মতোই এ বছর ফেব্রুয়ারির ১ ও ২ তারিখে জাতীয় কবিতা পরিষদ আয়োজিত দু’দিনব্যাপী কবিতা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অনেক নাম-না-জানা কবি ও ছড়াকার তাদের লেখা এ মঞ্চে পাঠ করেন, অনেকে হাজির হয়ে যান প্রথম লেখা অপরিপক্ব কবিতাটি নিয়েই। ম্যাজিক লণ্ঠন নামে একটি সংগঠন প্রতি সপ্তাহে কবিতা পাঠের আয়োজন করে রেকর্ড গড়তে যাচ্ছে। ৪৯৮টি কবিতার আসর করেছে সংগঠনটি। তার মানে নতুন বছরের শুরুতেই ৫০০তম কবিতা আসরের বিরল আয়োজনটি করতে যাচ্ছে তারা।

গুলশান ক্লাব বর্ণাঢ্য কবিতাসন্ধ্যার আয়োজন করে আমন্ত্রিত কবিদের প্রত্যেককে উত্তরীয় পরিয়ে সম্মাননা জানিয়েছে। নিয়মিতভাবে কবিতাপাঠের আসরের আয়োজনের জন্যে ক্লাব কর্মকর্তা কবি সৈয়দ আল ফারুক ধন্যবাদ পাবেন। ধন্যবাদ প্রাপ্য কবি ফরিদ কবিরেরও। একটি সাহিত্য পত্রিকার ব্যানারে তিনি প্রায় নিয়মিতভাবেই কবিতা পাঠের আসর বসিয়েছেন বিভিন্ন দশকের কবিদের অংশগ্রহণে।

কবিদের নগদ সম্মানী প্রদান করে দৃষ্টান্ত গড়েছেন কথাসাহিত্যিক আতা সরকারের সংগঠন ‘ঘাসফুল’। কখনও খোলা ছাদে, কখনওবা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষে কবিতা পাঠের আয়োজন করেছে ঘাসফুল। বিশেষ করে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক কবিতা আয়োজনে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কবিকে একত্রিত করার কৃতিত্ব দিতে হবে তাদের।

উত্তরায় ঋতুভিত্তিক কবিতাপাঠের আয়োজন করা হয়েছে। বিশেষত ‘আয় ঝেঁপে কবিতাবৃষ্টি’ শীর্ষক অনুষ্ঠানটি কবিতামগ্ন পাঠকদের প্রভূত আনন্দ দেয়। উত্তরায় বসবাসরত কবিদের মিলনমেলা হয়ে ওঠে ওই অনুষ্ঠান।

গালুমগিরি-র উদ্যোগে একজন কবির একক কবিতা পাঠের আয়োজন প্রশংসনীয় হয়। কারণ এতে একজন কবিকে ভালভাবে শ্রবণের সুযোগ থাকে। সেই কবিকে নিয়ে আলোচনাও করা হয়।

সুচিন্তা সাহিত্য আসর ও কবিতাসভা- এ দুটি সংগঠনও একাধিক কবিতাপাঠের আয়োজন করে। আটকুঠুরির আয়োজনে কবিতার বই নিয়ে আলোচনা ও আলোচিত কবির কবিতাপাঠের অনুষ্ঠানটি কবিতাপাঠকদের আকৃষ্ট করে। দাঁড়কাক প্রতিষ্ঠানটিও বেশ কিছু কবিতাসন্ধ্যার আয়োজন করে কবিতারসিকদের আনন্দ দিয়েছে।

এখন প্রিন্ট মিডিয়ার পাশাপাশি বেশ বড় অবয়বে আত্মপ্রকাশ করেছে ডিজিটাল মিডিয়া। এমনিতেই আমাদের দেশে দৈনিক পত্রিকার ছড়াছড়ি, প্রায় প্রতিটিরই সাহিত্য পাতা রয়েছে। এ সকল পত্রিকার পাশাপাশি অনলাইন পত্রিকাগুলো ভার্চুয়াল সাহিত্য পাতা খুলেছে। রয়েছে অসংখ্য ছোট কাগজ যাদের বিস্তৃতি ওই দৈনিকসমূহের মতোই প্রিন্টিং জগত ছাড়িয়ে ভার্চুয়াল জগত স্পর্শ করেছে। রয়েছে অসংখ্য ব্লগ। সুতরাং কবিদের লেখা প্রকাশের কোন স্থানসঙ্কট নেই, অন্য কোথাও মুদ্রিত না হলে, সম্পাদকদের সমর্থন না পেলেও, অন্তত নিজের ব্লগে কবিতা পোস্ট দিতে পারছেন তারা, কমছে পরনির্ভরশীলতা। সুতরাং কবিতা আর অপ্রকাশ্য থাকছে না, তাকে প্রকাশ করার জন্য অসংখ্য মঞ্চ প্রস্তুত, কবিদের কাব্যিক পদচারণার জমিন এখন সুবিস্তৃত। অনেকেই সরাসরি ফেসবুকে লিখছেন, কলম আর কাগজের স্থান দখল করেছে কম্পিউটারের কীবোর্ড আর স্ক্রিন। সত্যি বলতে কি, এখন ফেসবুকই হয়ে উঠেছে কবিদের নতুন কবিতার খোলাপাতা। সেখানে কবিকণ্ঠে কবিতাপাঠের অডিও-ও পোস্ট হচ্ছে। সব মিলিয়ে বলা যায়Ñ জয়তু কবিতা।

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

০১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: