আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

প্রযোজনায় প্রিয়াঙ্কা!

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

অভিনেত্রী হিসেবে ক্যামেরার সামনে অসংখ্যবার দাড়াতে হয়েছে তাকে তবে এবার ভিন্ন পরিচয়ে হাজির হচ্ছেন বলিউড হার্টথ্রব প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এবার প্রযোজকদের কাতারে নাম লেখাচ্ছেন তিনি। শাহরুখ, আমির আর সালমানদের পথ অনুসরন করে তিন্ওি শুরু করেছেন তার নতুন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কাজ। ২০১৫ সালেই তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে রিলিজ হবে নতুন সিনেমা। নাম ‘ম্যাডামজি’ পরিচালনা করবেন মধুর ভান্ডারকার। প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নিয়ে লিখেছেন শাহেদ পোলেন

বলিউড

চলছে ‘ম্যাডামজি’ সিনেমার প্রি প্রোডাকশনের কাজ। অফিসে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা। তবে ব্যস্তা থাকলে ও সময়টা নাকি ভালোই এনজয় করছেন প্রিয়াঙ্কা। ‘আমি আসলে একজন প্রযোজক হিসেবে গুরুত্বপূর্ন ডিসিশন নেয়াটাকে বেশ এনজয় করছি। প্রতিদিন অনেক তরুন এবং মেধাবী সহকারী পরিচালকেরা আমার এখানে তাদের স্ক্রিপ্ট নিয়ে আসছে। তাদের গল্পগুলো দূর্দান্ত। আমি হয়তো অনেক বড় বাজেটের ফিল্ম তাদের দিতে পারবো না। কিন্তু আমি ঠিক করেছি তাদের আমি সুযোগ করে দেব।’ ‘ম্যাডামজি’ সিনেমায় তিনি একজন আইটেম গার্লের চরিত্রে অভিনয় করেছেন যে কিনা নষ্ট রাজনীতির স্বীকার হয়ে পড়ে। এদিকে নতুন বছরের শুরুতেই প্রিংয়াঙ্কার ভাইয়ের বিয়ে। বিয়ের পোশাক নির্বাচন, কেনাকাটা সব মিলিয়ে ব্যস্ত সময় কাটছে প্রিয়াঙ্কার। ২০১৫ তে কাজ চলবে ‘বাজীরাও মাস্তানী’ এবং ‘দিল ঢাড়াকনে দো’ এই দুটি সিনেমার। এর মধ্যে ‘বাজীরাও মাস্তানী’ পরিচালনা করবেন ‘সাভারিয়া‘ খ্যাত পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালি।২০১৪ সাল প্রিয়াংঙ্কার জন্য বেশ পয়মন্তই ছিল। ’মেরী কম’ বক্স অফিস হিট করেছে। তবে অনেকই নাকি সমালোচনা করছেন যে প্রিংয়াঙ্কা একজন মেয়ে হয়ে এতবড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সামলাতে পারবে না। সেই সব সমালোচকদের অবশ্য একহাত নিয়েছেন প্রিয়াংকা। ‘অনেকেই বলছেন যে আমি এটা করতে পারবো না। আমি এটা করে দেখাতে চাই। আমার ক্যারিয়ারে আমি সব সময় চ্যালেঞ্জ নিতেই পছন্দ করেছি।’ মজার ব্যাপার হচ্ছে তিনি কিন্তু তার ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন তামিল সিনেমা দিয়ে। ২০০২ সালে থামিজহান সিনেমার মধ্য দিয়ে অভিষেক ঘটে তার। এর পরের বছর ২০০৩ সালে ‘দ্য হিরো’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে যাত্রার সূচনা করেন প্রিয়াঙ্কা। সেই বছর তিনি জিতে ফিল্ম ফেযারের বেষ্ট ফিমেল ডেব্যু’ এর তকমা। এরপর ‘ক্রিশ’ ‘ডন’ ‘সালাম-ই-ইশক’ ‘বরফি’ ‘লাভ স্টোরী ২০৫০’ ‘ফ্যাশন‘ ‘দোস্তানা’ সহ অসংখ্য সিনেমা। ২০০৭ এ ফ্যাশন সিনেমায় অভিনয়ের জন্য পেয়েছিলেন সেরা অভিনেত্রীর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। তবে সবাই তার ‘বরফির’ অভিনয় অনেক দিন মনে রাখবে।

‘মেরি কম’-এ দুর্দান্ত অভিনয় করে সময়টা ভালই কাটিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। অবশ্য প্রযোজনার পথটা যে খুব সহজ নয় সেটা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা। তবে তিনি দমে যাবার পাত্র নান। ‘লোকেরা বলাবলি করছে, একজন মেয়ে হয়ে একটি প্রোডাকশন হাউস তুমি চালাতে পারবে না। এটি আমি করে দেখাতে চাই। আমি আমার ক্যারিয়ারে সব সময় চ্যালেঞ্জিং কাজ কর্মই করেছি। ‘বরফির’ সেই অটিস্টিক মেয়েটির চরিত্রে অভিনয় করা অথবা ‘মেরি কম’ এর লড়াকু মেরি চরিত্রে অভিনয় সবই আমার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করারই অংশ বিশেষ উদাহরণ। নতুন বছরটা দারুণভাবে শুরু করতে চাই।’ কথাগুলো বলেছেন প্রিয়াঙ্কা তবে কোথায় যেন মেরি কমের লড়াকু মেরির ছায়া খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে তাঁর মধ্যে। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই প্রতিভাময়ী, যৌন আবেদনময়ী এবং ফ্যাশনেবল এই নায়িকা একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন। রাজ, আন্দাজ, দোস্তানা, ফ্যাশন, ডন, মেরি কম, বরফি এবং অগ্নিপথসহ অনেক হিট এবং দর্শকনন্দিত সিনেমা রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। তবে সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেছেন, ‘বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করাটা ছিল আমার ভুল সিদ্ধান্ত। এর মধ্যে ছিল ‘বারাসাত’, ‘আপ কি খাতির’, ‘দিওয়ানা মে দিওয়ানা’, ‘লাভ স্টরি ২০৫০’ ইত্যাদি।

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

০১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: