মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইউনাইটেডের নতুন শুরুর প্রত্যয়

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে নতুন বছরের প্রথম দিনেই মাঠে নামছে জায়ান্ট ক্লাবগুলো। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি খেলবে সান্ডারল্যান্ডের বিপক্ষে। জোশে মরিনহোর চেলসির প্রতিপক্ষ শক্তিশালী টটেনহ্যাম হটস্পার। লিভারপুল মুখোমুখি হবে লিচেস্টার সিটির আর আর্সেনালকে আতিথ্য দেবে সাউদাম্পটন। আর দিনের প্রথম ম্যাচে স্টোক সিটি সফরে যাবে প্রিমিয়ার লীগের সবচেয়ে সফল ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

গত মৌসুমের হতাশা কাটিয়ে ক্রমেই নিজেদের অবস্থানকে শক্তিশালী করছে লুইস ভ্যান গালের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। বিশেষ করে নিজেদের মাঠ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দুর্দান্ত পারফর্মেন্স প্রদর্শন করছে রেড ডেভিলরা। আর তাই নববর্ষের দিন স্টোক সিটির বিপক্ষে এ্যাওয়ে ম্যাচেও খেলোয়াড়দের তেমনই নৈপুণ্য প্রদর্শনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন ক্লাবটির অভিজ্ঞ কোচ ভ্যান গাল। নিজেদের মাঠে সোয়ানসির বিপক্ষে মৌসুম শুরুর ম্যাচেই পরাজিত হয়েছিল লীগ ইতিহাসের সবচেয়ে সফল ক্লাবটি। তবে সেই হারের পর থেকেই ঘুরে দাঁড়িয়ে ওল্ড ট্রাফোর্ডকে দুর্গ বানিয়ে ফেলেছিল রেড ডেভিলরা। এ পর্যন্ত নিজেদের মাঠে ৮ ম্যাচ খেলে তার ৭টিতেই জয় লাভ করেছে। ড্র করেছে একটি ম্যাচে। ঘরের মাঠে সফল হলেও এ্যাওয়ে ম্যাচে এখন পর্যন্ত খুব একটা সুবিধা করতে পারছে না ভ্যান গালের শিষ্যরা। শুধু দুটি ম্যাচে জয় পেয়েছে প্রিমিয়ার লীগের জায়ান্টরা। একটি আর্সেনালে এবং অপরটি সাউদাম্পটনে। তবে এখন অনুকূল পরিবেশ চান গাল। যে কারণে ডাচ্ কোচ চান ২০১৫ সালের শুরুটাই হোক জয় দিয়ে, সাফল্যের উল্লাসে ভক্ত-অনুরাগীদের ভাসিয়ে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করছি আমার দল প্রতি সপ্তাহেই উন্নতি করছে, তাই স্টোক সিটির বিপক্ষে ম্যাচটিতে প্রমাণ দেয়ার দায়ও রয়েছে। এ্যাওয়ে ম্যাচ হিসেবে আমাদের সেখানে এটি করতেই হবে। ঘরের মাঠে শুধু সোয়ানসি সিটির কাছে মৌসুমের প্রথম ম্যাচে আমরা পরাজিত হয়েছি। তাই এ্যাওয়ে ম্যাচে আমাদের কর্তৃত্ব দেখাতে হবে। এর আগে অতিথি হিসেবে খেলতে গিয়ে আমরা শুধু আর্সেনাল ও সাউদাম্পটনকে হারাতে পেরেছি। একটি এ্যাওয়ে ম্যাচে আমাদের কর্তৃত্ব দেখাতেই হবে। জেনেছি স্টোক সিটির মাঠটি বেশ দুর্বোধ্য। তাই এই স্টোকের বিপক্ষে কঠিন পরিস্থিতির মোকাবেলা করে আমাদের নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিতে হবে। হয়ত আমরা সেটি দেখাতে সক্ষম হব।’

ইতোমধ্যেই ইনজুরির দীর্ঘ তালিকাটির কিছুটা কাটসাট হয়েছে। পূর্ণ ফিটনেস নিয়েই দলে ফিরেছেন ডিফেন্ডার ক্রিস স্মাইলিং, লুক শাহ ও রাফায়েল দা সিলভা। যদিও উইঙ্গার এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া এখনও ইনজুরির কারণে দলের বাইরে রয়ে গেছেন। ইনজুরি থেকে পরিপূর্ণ মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছেন মিডফিল্ডার আন্ডার হেরিরা ও উইঙ্গার আদনান জানুজাজও। এ বিষয়ে লুইস ভ্যান গাল বলেন, ‘হেরিরা প্রথমবারের মতো আমাদের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন। তবে এখন পর্যন্ত পুরোমাত্রায় ছন্দ ফিরে পাননি তিনি। জানুজাজও অনুশীলনের দুটি সেশনে অংশগ্রহণ করেছেন। কিন্তু এখন তিনি অসুস্থ। সর্বপ্রথম তাকে অসুস্থতা থেকে মুক্তি পেতে হবে।’

প্রিমিয়ার লীগের শুরুতেই হোঁচট খেয়েছিল ম্যানইউ। কিন্তু বর্তমানে ভাল করায় সমর্থকদের আকুণ্ঠ সমর্থন পাওয়ায় তাদের অভিনন্দিত করেছেন ভ্যান গাল। এ বিষয়ে সাবেক হল্যান্ডের এই কোচ বলেন, ‘সমর্থকরা অসাধারণ, ওই সময় ১০ ম্যাচ থেকে আমরা মাত্র ১৩ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছিলাম। কোনভাবেই ভাল বলা যাবে না। তারপরও সমর্থকরা আমাদের পাশে থেকেছে এবং সমর্থন যুগিয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা সঠিক পথ খুঁজে পেয়েছি। এ কারণেই আমি তাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। তারা সব সময় তাদের খেলোয়াড় ও কোচের প্রতি আস্থা রেখেছে। আমার মনে হয়ে দলের লড়াকু মনোভাব দেখেই তারা আমাদের প্রতি ওই সমর্থন অব্যাহত রেখেছে। আমরা সব সময় খেলার মধ্যে এগিয়ে ছিলাম না। তারপরও খেলা শেষ না হওয়া পর্যন্ত দলটি লড়াই করে গেছে। ফলশ্রুতিতে অধিকাংশ সময়ই আমরা ভাল সফলতা নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছি।’

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

০১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: