কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইভানোভিচের ভাবনা...

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫
ইভানোভিচের ভাবনা...

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সার্বিয়ান টেনিসতারকা সুন্দরী আনা ইভানোভিচ দারুণ একটি বছর কাটিয়েছেন এবার। এ বছর আবার নিজেকে পূর্ণোদ্যমে ফিরে পেয়ে বিশ্বের সাবেক এই এক নম্বর তারকা ডব্লিউটিএ র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা দশে উঠে এসেছেন। বর্তমানে ২৭ বছর বয়সী এ গ্ল্যামার গার্লের র‌্যাঙ্কিং ৫। শুধু টেনিস কোর্টে ঝড় তুলেই ক্ষান্ত নয় ইভানোভিচ, রূপের ছটায় তিনি সৌন্দর্যপিপাসু মানুষেরও মন জয় করে রাখেন সবসময়ই। টেনিসের পাশাপাশি করেন মডেলিং, ফ্যাশন শো এবং বিশ্ববিখ্যাত ম্যাগাজিনগুলোর প্রচ্ছদেও নিয়মিত মেলে ধরেন আকর্ষণীয় ছবিসমূহ। বর্তমানে টেনিস বিশ্বে বড় একটি বিরতি চলছে। জানুয়ারিতেই শুরু হবে আবার ব্যস্ততা। এর আগে এখন ফ্যাশন ম্যাগাজিনের জন্য আকর্ষণীয়ভাবে নিজের ছবির জন্য পোজ দিচ্ছেন ইভানোভিচ। তবে তিনি দাবি করেছেন মূলত লাজুক প্রকৃতির। মূলত এককে ইভানোভিচের দাপট থাকলেও তিনি নিজে মনে করেন টেনিস একটা দলীয় খেলা। এ বছরের শুরুতেই অকল্যান্ডে শিরোপা জয় দিয়ে শুরু করেছিলেন ইভানোভিচ। ২০১১ সালের নবেম্বরের পর সেটিই ছিল তাঁর প্রথম কোন ডব্লিউটিএ শিরোপা। আর এর মাধ্যমেই আবার নতুন করে উত্থান শুরু হয়ে যায় ইভানোভিচের। তারপর আর তাঁকে থামানো যায়নি। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে কোয়ার্টার ফাইনালে যাত্রা থেমে গেলেও চতুর্থ রাউন্ডে বিশ্বের এক নম্বর সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে দিয়ে আবারও নিজের দিকে দৃষ্টি ফেরান সবার। সবমিলিয়ে আরও চারটি ডব্লিউটিএ শিরোপা জিতেছেন এ বছর। এ কারণেই তিনি উঠে এসেছেন আবার র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে। কোর্টের বাইরে আগে থেকেই ফ্যাশন ম্যাগাজিন, ফ্যাশন শো এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানে রূপ-লাবণ্যের আভা ছড়িয়েছেন তিনি। এ বছর সবমিলিয়ে আটটি ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ হয়েছেন তিনি। সবমিলিয়ে এক হিসেবে দেখা গেছে, ২০০৫ থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত এক শ’র বেশি ম্যাগাজিনে প্রচ্ছদ হিসেবে ছিলেন সুন্দরী ইভানোভিচ। আবার বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বেশ তৎপর থাকেন তিনি। বিশেষ করে ইনস্টাগ্রামে নিয়মিতই বিভিন্ন স্থানে ফ্যাশন শোতে তোলা ছবিগুলো প্রকাশ করেন ইভানোভিচ। তবে এ সার্বিয়ান সুন্দরী দাবি করেছেন, মূলত লাজুক প্রকৃতির তিনি।কোর্টের বাইরে সৌন্দর্য দিয়ে সবাইকে তাক লাগালেও যে কারণে তাঁকে বিশ্ব চিনেছে সেই টেনিস কোর্টেও যথেষ্ট ঝড় তুলেছেন তিনি ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই। ২০০৯ সালে ডব্লিউটিএ র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষেও ওঠেন তিনি। তবে মাঝে হারিয়েই গিয়েছিলেন। আবারও ফিরেছেন পুরনো ছন্দে।

প্রকাশিত : ১ জানুয়ারী ২০১৫

০১/০১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: