রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আজ ও আগামীকাল জামায়াতের হরতাল

প্রকাশিত : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪
  • প্রত্যাহার চায় এফবিসিসিআই

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে এটিএম আজহারুল ইসলামের মৃত্যুদ-ের রায়ের প্রতিবাদে আজ ও আগামীকাল সারাদেশে হরতাল পালন করবে জামায়াত। চলতি বছরের শেষ দিন আজ সকাল ৬টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা এবং নতুন বছরের প্রথম দিন আগামীকাল একই সময় পর্যন্ত এ হরতাল কর্মসূচী পালন করবে বিএনপির এ রাজনৈতিক মিত্র। এদিকে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হরতাল প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে এফবিসিসিআই। ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের বৃহৎ এ সংগঠনটি উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, আদালতের রায়কে কেন্দ্র করে হরতাল দেয়া কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। দেশের বর্তমান স্থিতিশীল অর্থনীতিকে রাজনৈতিক কর্মসূচীর নামে কোন নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি ব্যবসায়ী সমাজ ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবেলা করবে। মঙ্গলবার ট্রাইব্যুনালে আজহারের যুদ্ধাপরাধ মামলার রায়ে ফাঁসির আদেশ আসার পরপরই জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমাদ এক বিবৃতিতে হরতালের ঘোষণা দেন। তাঁর দাবি জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলাম ‘সরকারের ধারাবাহিক ষড়যন্ত্রের’ শিকার। রায় একটি ন্যায়ভ্রষ্ট রায়। এদিকে হরতাল প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)। এক বিবৃতিতে সংগঠনটি বলেছে, হরতালের মতো নেতিবাচক রাজনৈতিক কর্মকা-ে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার পাশাপাশি অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক কার্যক্রম চরম বিঘিœত হয়। জনজীবনে ভোগান্তি, উৎপাদন ব্যবস্থা, পণ্য সরবরাহসহ সব কার্যক্রম ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সামগ্রিক অর্থনীতি, বাণিজ্য ও নাগরিক কর্মকা-কে ক্ষতিগ্রস্ত করে। বিবৃতিতে বলা হয়, বেসরকারী খাত দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ক্রমাগত ভূমিকা রেখে চলেছে। হরতাল বেসরকারী খাতের কর্মকা-কে বাধাগ্রস্ত করবে। আদালতের রায়কে কেন্দ্র করে হরতাল দেয়া কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী, সংক্ষুব্ধ ব্যক্তির উচ্চ আদালতে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। বিচারের রায়কে কেন্দ্র করে নেতিবাচক কর্মসূচী গ্রহণ করার মাধ্যমে বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টির প্রয়াস কোনভাবেই কাম্য নয়। এফবিসিসিআই নৈরাজ্যকর ও সংঘাতময় পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সরকারকে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। এদিকে জামায়াত হরতাল ডাকলেও পূর্ব ঘোষণা অনুসারে আগামীকাল এক জানুয়ারি সারাদেশে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হাতে বিনা মূল্যে নতুন বই তুলে দিয়ে ‘পাঠ্যপুস্তক উৎসব দিবস’ পালন করা হবে। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এ তথ্য জানিয়ে এই দিনে হরতাল দেয়ারও তীব্র সমালোচনা করেছেন। শিক্ষামন্ত্রী জানান, বিনা মূল্যে বই বিতরণের জন্য তাঁরা সম্পূর্ণ প্রস্তুত। দেশের সব প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল এবং মাদ্রাসায় এ উৎসব পালিত হবে। কেন্দ্রীয়ভাবে ওই দিন সকাল ১০টায় রাজধানীর মতিঝিল সরকারী বালক বিদ্যালয়ে পাঠ্যপুস্তক উৎসব পালন করা হবে। এদিকে হরতালে গাড়ি চালাবে বাস মালিকদের সংগঠন ঢাকা সড়ক পরিবহন সমিতি। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা সড়ক পরিবহন সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ গাড়ি চালানোর এ ঘোষণা দেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গভীর উৎকণ্ঠা ও উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে হরতাল ডাকার কোন যৌক্তিকতা নেই। এই হরতালে মালিক-শ্রমিকরা কোন সাড়া দেবে না। স্বাভাবিক দিনের মতোই রাস্তায় গাড়ি চলবে। মালিক-শ্রমিকরা হরতাল প্রত্যাখ্যান করে ঢাকা শহর এবং আশপাশের জেলাগুলোতে বাস-মিনিবাস চালাবে।

প্রকাশিত : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪

৩১/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: