কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

তামিম ইকবালের অস্ত্রোপচার, তিন সপ্তাহ পরই মাঠে ফিরবেন!

প্রকাশিত : ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘদিন ধরে হাঁটুর ব্যথায় ভুগতে থাকা বাংলাদেশের নির্ভরযোগ্য ওপেনার তামিম ইকবালকে অস্ত্রোপচার ছাড়াই সুস্থ করার চিন্তা করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার শৈল্যবিদ ডেভিড ইয়াংয়ের ছুরির নিচেই যেতে হয়েছে তাঁকে। সোমবার বাংলাদেশ সময় দুুপুরের দিকে মেলবোর্নে তামিমের হাঁটুতে অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী জানিয়েছেন ইয়াং আশা প্রকাশ করছেন তিন সপ্তাহ পরেই মাঠে ফেরার মতো সুস্থ হয়ে উঠবেন তামিম। তবে সে জন্য তামিমের মানসিক জোরটা জরুরী বলে জানিয়েছেন ইয়াং।

এমআরআই স্ক্যান করানোর পর হাঁটুর মিনিসকাস ছিঁড়ে গেছে নিশ্চিত হলে গত শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ায় যান তামিম। সোমবার তাঁর হাঁটুর পরিস্থিতি পরীক্ষার পর অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন অসি শৈল্যবিদ ইয়াং। সোমবার অস্ট্রেলিয়ান সময় বিকেল ৫টায় (বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা) জাতীয় দলের এই বাঁহাতি ওপেনারের অস্ত্রোপচার করেন তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ। বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র ৪৩ দিন। এর মধ্যে দ্রুত তাঁকে মাঠে ফিরিয়ে আনতে চায় বিসিবি। তামিমও খুব দ্রুতই ফিরতে চান মাঠে। তবে পরিপূর্ণ সুস্থ হয়ে ফিরে আসতে হলে অস্ত্রোপচারের কোন বিকল্প না থাকায় সোমবার সেটাই করা হলো। উল্লেখ্য, জিম্বাবুইয়ে সিরিজের মাঝেই ফিরে আসে তামিমের পুরনো হাঁটুর ইনজুরি। ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে দুই ম্যাচ খেলার পর ব্যথার পরিমাণ বাড়ায় এমআরআই করানোর পর তাঁকে অস্ট্রেলিয়া পাঠানো হয়। এ বিষয়ে দেবাশিষ বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ান সময় বিকেল ৫টার দিকে তামিমের অস্ত্রোপচার হয়েছে। ডাক্তার ইয়াংয়ের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি বলেছেন তামিম তিন সপ্তাহের মধ্যে মাঠের অনুশীলনে ফিরতে পারবেন। তামিমের বিশ্বকাপের খেলার ব্যাপারে ডাক্তার ইয়াং আমাকে কিছু বলেনি। তবে জানিয়েছেন তামিমের যে মনের জোর রয়েছে তাতে করে তিনি খুব আশাবাদী দ্রুত মাঠে ফিরতে পারবে তামিম।’

শহীদ শেখ মণি আন্তর্জাতিক দাবা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গোল্ডেন স্পোর্টিং ক্লাবের আয়োজনে আগামী ২৩ জানুয়ারি সকাল ১০টা থেকে শুরু হচ্ছে ‘শহীদ শেখ মনি স্মৃতি আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা।’ ১ লাখ ৭০ হাজার টাকার প্রাইজমানির এই দাবা টুর্নামেন্টটির ভেন্যু হচ্ছে ঢাকার ৪১, ফ্রি স্কুল স্ট্রিট, কাঠালবাগানে অবস্থিত খাঁন হাসান আদর্শ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। উন্মুক্ত এ দাবা প্রতিযোগিতায় যারা অংশ নিতে ইচ্ছুক, তাদের আগামী ২১ জানুয়ারি রাত ৮টার মধ্যে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের অফিস সহকারী সাইফুলের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। তবে আন্তর্জাতিক গ্র্যান্ডমাস্টার এবং বিদেশী দাবাড়ুরা এন্ট্রি ছাড়াই খেলতে পারবেন।

প্রকাশিত : ৩০ ডিসেম্বর ২০১৪

৩০/১২/২০১৪ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: